স্বচালিত গাড়ি, নতুন আইনের লক্ষ্যে নরওয়ে

দেশের রাস্তায় স্বচালিত যানের পরীক্ষার অনুমোদন দিতে সামনের বছর নতুন একটি আইন পাস করার লক্ষ্য নিয়েছে নরওয়ে সরকার, বৃহস্পতিবার এই তথ্য জানানো হয়।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 Dec 2016, 12:45 PM
Updated : 23 Dec 2016, 12:45 PM

মার্কিন প্রতিষ্ঠান টেসলার বৈদ্যুতিক গাড়ির জন্য নরওয়ে অন্যতম বড় একটি বাজার। চলতি বছর অক্টোবরে প্রতিষ্ঠানটি জানায়, তাদের নতুন মডেলের গাড়িগুলোতে আরও ক্যামেরা ও একটি র‍্যাডার আনা হবে, যার ফলে গাড়িগুলো পুরো স্বচালিত গাড়িতে পরিণত হতে পারবে।

নরওয়ে’র পরিবহন ও যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ২০১৭ সালে সংসদে নতুন এই আইন পাসের প্রস্তাব দিতে লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে সে দেশের সরকার, জানিয়েছে রয়টার্স। এক বিবৃতিতে বলা হয়, “এই আইনের উদ্দেশ্য হচ্ছে নরওয়ের রাস্তায় স্বচালিত গাড়ি পরীক্ষার সুযোগ করে দেওয়া। তবে তা ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষা ও যান চলাচলের নিরাপত্তা বজায় রেখে করা হবে।” ক্রমান্বয়ে স্বচালিত গাড়ি চালু করা হবে বলেও জানিয়েছে তারা।

বিশ্বব্যাপী স্বচালিত গাড়ি নিয়ে আগ্রহী হয়ে উঠছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। ইতোমধ্যে গুগল, উবার আর ফোর্ডের মতো প্রতিষ্ঠানগুলোও কাজ শুরু করেছে।

গুগলের মূল প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেট-এর স্ব-চালিত গাড়ির প্রতিষ্ঠান ‘ওয়েইমো’-র প্রযুক্তি পরীক্ষার জন্য গাড়ি সরবরাহ করতে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে কথা বলছে জাপানি গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হন্ডা।

ইতোমধ্যেই দক্ষিণ এশিয়ান রাইড হেইলিং স্টার্টআপ গ্র্যাব-এর সঙ্গেও চুকি করেছে হন্ডা। আর এ যাবৎ স্ব-চালিত গাড়ি তৈরির প্রকল্পে একাই কাজ করছিল তারা। ২০২০ সালের মধ্যেই মহাসড়কে এ ধরনের গাড়ি নামানোর পরিকল্পনা রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির। সেক্ষেত্রে গাড়িতে নিরাপত্তার জন্য একজন চালক থাকবেন। তাই গুগলের সম্পূর্ণভাবে চালকবিহীন স্ব-চালিত গাড়ি তৈরির প্রকল্পে ওয়েইমো’র সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে হন্ডা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক