হোয়াইট হাউস-এ ট্রাম্পের বাধা অ্যান্ড্রয়েড

হোয়াইট হাউস-এ আসন্ন লাইফস্টাইলে নিজের স্মার্টফোন ব্যবহার নিয়ে ইতোমধ্যেই বিড়ম্বনায় পড়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন দৈনিক নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে তার অ্যান্ড্রয়েড ফোন ছাড়তে চান না তিনি।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Nov 2016, 06:44 AM
Updated : 20 Nov 2016, 06:44 AM

টাইমস-এর এক সূত্র থেকে বলা হয়, ফোনছাড়া তিনি বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবেন। তার উপদেষ্টা এবং বন্ধুদেরসঙ্গে দূর থেকে যোগাযোগের জন্য এটিই তার মূল যন্ত্র। আর এটির মাধ্যমেই তিনি জনগণেরসঙ্গে টুইটারে যোগাযোগ করে থাকেন, জানিয়েছে আরেক মার্কিন সাময়িকী ফরচুন।

নির্বাচনী প্রচারণার সময় অপর প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন অঙ্গীকার করেনযে,নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে স্টেট ডিপার্টমেন্টে তিনি শুধু তার ব্যক্তিগতব্ল্যাকবেরি ফোন ব্যবহার করবেন। এর ফলে তার সকল তথ্য সংরক্ষণেরজন্য একটি ব্যক্তিগত ইমেইল সার্ভার বানানো হবে। পরবর্তীতে তার এই অঙ্গীকারইনির্বাচনে হারের একটি কারণ হিসেবে সমালোচিত হয়েছে।

ক্লিনটনের মতোই ট্রাম্প-ও খুব বেশি জানেন না কম্পিউটার কিভাবে ব্যবহার করতেহয়। এমনকি ২০০৭ সালের পর ট্রাম্পকখনো মেইল ব্যবহার করেন নি। কম্পিউটার ব্যবহার করতেনা জানায় ক্লিনটন ডেস্কটপে মেইল দেখতে পেতেন না। এ কারণেই ব্যক্তিগত মেইলসার্ভার বানানোর কথা বলেন তিনি।

অফিসে নিজের ব্যক্তিগত ডিভাইস এবং অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে চাইলে একইধরনের সমস্যায় পড়বেন ট্রাম্প।  নির্বাচনেরসময় মার্কিন রাজনৈতিক দলের উপর হ্যাকের প্রভাব নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে বলা উল্লেখ করাহয়। আর অনেক ক্ষেত্রেই হ্যাকেরকারণ হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ফোন।

এর আগে স্যামসাংয়ের পক্ষে কথা বলেছেন ট্রাম্প। স্বাভাবিকভাবেই বোঝা যায়তিনি অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। এমনকি নির্বাচনী প্রচারণারসময় তিনি অ্যাপলের পণ্য বর্জনের ডাকও দিয়েছিল্ন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক