অ্যাডসেন্স অভিযোগে ফের সময় পেল গুগল

গুগল অনলাইন সার্চ অ্যাডভার্টাইজিংয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীদের রুখে দিচ্ছে- এমন অভিযোগে আনুষ্ঠানিকভাবে জবাব দিতে অ্যালফাবেট-এর অধীনস্থ প্রতিষ্ঠানটিকে বাড়তি এক সপ্তাহ সময় দিয়েছে ইউরোপিয়ান কমিশন।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Oct 2016, 12:22 PM
Updated : 25 Oct 2016, 12:22 PM

এই পদক্ষেপের ফলে মামলায় নীতিনির্ধারণী সিদ্ধান্ত নিতে ২০১৭ সাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হতে পারে বলে, জানিয়েছে রয়টার্স। এমন অভিযোগের জবাব দিতে দ্বিতীয়বারের মতো সময় বাড়িয়ে গুগল-কে ৩ নভেম্বর পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ইউরোপিয়ান কমিশন-এর মুখপাত্র রিকার্ডো কারডোসো। এক ইমেইলে তিনি বলেন, "গুগল মামলার নথিতে থাকা দলিল যাচাইয়ে বাড়তি সময় চেয়েছে। প্রচলতি অনুশীলন অনুযায়ী, কমিশন তাদের অনুরোধের কারণ যাচাই করেছে আর গুগল-কে তাদের আত্মপক্ষ সমর্থনে পুরো সুযোগ দিতে বাড়তি সময় মঞ্জুর করেছে।"

চলতি বছর জুলাইয়ে গুগলের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ আনা হয়। এটি হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ইন্টারনেট সার্চ ইঞ্জিনের বিরুদ্ধে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ) -এর আনা তৃতীয় অ্যান্টিট্রাস্ট অভিযোগ। থার্ড-পার্টি ওয়েবসাইটগুলোতে গুগল তাদের বাজারের ক্ষমতা কাজে লাগিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীদের রুখে দিচ্ছে বলে এই অভিযোগে আনা হয়।

গুগল অ্যাডসেন্স-এ কোনো পণ্য সার্চ-এর ক্ষেত্রে অনলাইন খুচরা বিক্রেতা, টেলিযোগাযোগ অপারেটর আর সংবাদপত্রের মতো ওয়েবসাইটগুলো তাদের সাইটে নিজস্ব 'কাস্টমাইজড' সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করতে পারে। যার মাধ্যমে তারা সার্চ রেজাল্টের এই পেইজে ওই সার্চ সম্পর্কিত বিজ্ঞাপন দেখিয়ে আয় করতে পারে।

সার্চ ইঞ্জিনে নিজেদের শপিং সার্ভিস-কে প্রতিদ্বন্দ্বীদের চেয়ে বাড়তি সুবিধা দেওয়া আর স্মার্টফোনে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম-এর আধিপত্য অপব্যবহার নিয়ে গুগল-কে দুই অভিযোগে যথাক্রমে ৭ নভেম্বর ও ৩১ অক্টোবর জবাব দেওয়ার সময় ধার্য করে দেওয়া আছে। এই দুই অভিযোগেও কয়েকবার সময় পিছিয়ে এই সময় ধার্য করা হয়।

এর আগে কোনো প্রকার অন্যায় করার কথা অস্বীকার করেছে গুগল।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক