আসছে নিনটেনডো-র বহনযোগ্য ‘সুইচ’

গেইমিং কনসোলের নতুন সংস্করণের টিজার ভিডিও প্রকাশ করেছে জাপানিজ প্রতিষ্ঠান নিনটেনডো। প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ছোট ভিডিওতে দেখা গেছে নতুন গেইমিং কনসোলটি হবে বহনযোগ্য।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Oct 2016, 11:49 AM
Updated : 21 Oct 2016, 11:50 AM

এর আগে ডিভাইসটির কোড-নেইম 'এনএক্স' বলা হলেও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে নতুন কনসোলের নাম বলা হচ্ছে 'নিনটেনডো সুইচ'। স্বল্প দৈর্ঘ্যের ভিডিও থেকে কিছুটা ধারণা পাওয়া গেছে কনসোলটি বিষয়ে।

ভিডিওতে দেখা গেছে নতুন এই কনসোলটি দেখতে ট্যাবলেট কম্পিউটারের মতো। ডিভাইসটির দুইপাশে কন্ট্রোলার সংযুক্ত করার ব্যবস্থা রয়েছে, জানিয়েছে বিবিসি।

নতুন এই কনসোলটিকেই প্রতিষ্ঠানের গেইমিং কনসোল ব্যবসার শেষ চেষ্টা হিসেবে দেখছেন প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা। কারণ এর আগের গেইমিং কনসোলটি দিয়ে এখন পর্যন্ত খুব বেশি সুবিধা করতে পারেনি প্রতিষ্ঠানটি।

২০১২ সালে বাজারে আসে নিনটেনডোর 'উয়ি ইউ' কনসোল। এ পর্যন্ত এই কনসোলটির এক কোটি ৩০ লাখ বিক্রি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। যেখানে এর আগের গেইমিং কনসোল 'উয়ি' এ যাবত বিক্রি হয়েছে ১০ কোটি ১০ লাখ। ২০০৬ সালে প্রথমবারের মতো বাজারে আসে ডিভাইসটি।

বর্তমানের গেইমিং কনসোলের বিক্রির হার কমতে থাকায় এবার স্মার্টফোনের গেইমেও মনযোগ দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। সেটিরই ফলাফল হিসেবে 'পোকিমন গো' গেইম দিয়ে দারুণ সাফল্য পেয়েছে নিনটেনডো। এ বছরের ডিসেম্বরে আইওএস ডিভাইসের জন্য প্রতিষ্ঠানের জনপ্রিয় গেইম 'সুপার মারিও ব্রাদার্স' উন্মোচন করার কথা রয়েছে।

এক্সবক্স এবং পিএস৪ এর সঙ্গে বাজারে টিকতে পারেনি নিনটেনডোর আগের কনসোল। তাই প্রতিষ্ঠানের কনসোল ব্যবসাকে টিকিয়ে রাখতে নতুন ডিভাইসটির সাফল্য বেশ জরুরী।

'নিনটেনডো সুইচ' বিষয়ে পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ওভাম-এর পল জ্যাকসন বলেন, "'উয়ি ইউ' ছিল একটি দূর্ঘটনা। নতুন ডিভাইসটি কনসোল এবং বহনযোগ্য উভয়েরই সংমিশ্রণ। এ যাবত নিনটেনডোর সবচেয়ে জনপ্রিয় দুইটি বহনযোগ্য ডিভাইস হলো গেইমবয় এবং ডিএস, উভয় ডিভাইসই বিক্রি হয়েছে ১০ কোটি।"

খুব শীঘ্রই নিনটেনডো সুইচ-এর স্পেসিফিকেশন প্রকাশ করবে প্রতিষ্ঠানটি। ২০১৭ সালের মার্চে এটি বাজারে আসার কথা রয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক