ব্ল্যাকবেরি'র বিদায়, "এক যুগের অবসান"

বুধবার 'স্মার্টফোন' যুগের সূচনাকারী প্রতিষ্ঠান ব্ল্যাকবেরি তাদের স্মার্টফোন ব্যবসায় বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছে। একই দিনে স্মার্টফোন নিয়ে নতুন কার্যক্রম চালুর ঘোষণা দিয়েছে কানাডীয় প্রতিষ্ঠানটির প্রতিদ্বন্দ্বী মার্কিন প্রতিষ্ঠান অ্যাপল।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Sept 2016, 01:46 PM
Updated : 29 Sept 2016, 01:46 PM

ব্ল্যাকবেরি'র আয়ের সবচেয়ে বড় উৎস ছিল স্মার্টফোন ব্যবসায়। এবার এই খাতে বড় ব্যবসায়ের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে অ্যাপল, জানিয়েছে ব্যবসা-বাণিজ্যবিষয়ক মার্কিন সাইট বিজনেস ইনসাইডার।

এ নিয়ে অ্যাপল প্রধান কী ভাবছেন? ফিনান্সিয়াল টাইমস-এর এমন প্রশ্নের জবাবে টিম কুক ব্ল্যাকবেরি'র ঘোষণাকে "একটি যুগের অবসান" হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন। তিনি বলেন, "আমি মনে করি কিছু সময়ের জন্য তাদের বিক্রি অনেক কমে গিয়েছিল। আমরা এই সুযোগের দিকে অত্যন্ত ভালভাবে নজর দিচ্ছি আর আমরা একে বিশাল সুযোগ হিসেবেই দেখছি।" 

বিজনেস ইনসাইডার-এর মতে, এর মানে দাঁড়ায় এখন এটি পুরোই অ্যাপলের দুনিয়া। বর্তমানে বিশ্ব স্মার্টফোন বাজারে ব্ল্যাকবেরি'র দখল ০.১ শতাংশ, আর অ্যাপলের আইফোনের দখলে ১৩.৮ শতাংশ।

বুধবার নিজ অর্থবছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে কানাডীয় স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। ওই প্রতিবেদনে মোট আয়ের ক্ষেত্রে বিশ্লেষকদের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি প্রতিষ্ঠানটি। প্রতিষ্ঠান প্রধান জন চেন ‘প্রত্যাশা পূরণ না হলে’ হার্ডওয়্যার বিভাগ বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত ২০১৫ সালেই জানিয়েছিলেন।

লক্ষ্য অর্জনে ব্যর্থ হওয়ার পর স্মার্টফোন ব্যবসায় বন্ধ ও সফটওয়্যার ব্যবসায়ে নজর দেওয়ার কথা জানিয়েছে এক সময় স্মার্টফোন যুগের সূচনা করা প্রতিষ্ঠানটি। এর ফলে স্মার্টফোন ইতিহাসে একটি যুগের অবসান হল বলে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়

এ বছর দ্বিতীয় প্রান্তিকে ব্ল্যাকবেরি'র মোট আয় হয় ৩৫ কোটি ২০ লাখ মার্কিন ডলার, যদিও বিশ্লেষকদের প্রত্যাশা ছিল ৩৯ কোটি ডলার। সফটওয়্যার খাতে প্রতিষ্ঠানটির মোট আয় ১৫ কোটি ৬০ লাখ ডলার, যা একই সময়ে ২০১৫ সালে হওয়া আয়ের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ। কিন্তু এর আগের প্রান্তিকে প্রতিষ্ঠানটি এই খাতে ১৬ কোটি ৬০ লাখ ডলার আয় করলেও, এবার তা অনেক কমে গেছে। শেষ লেনদেন খবর পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটি শেয়ারমূল্য ছয় শতাংশ বেড়ে ৮.৩৫ ডলার হয়েছে বলে জানা যায়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক