ডেল্টার ফ্লাইট বিপর্যয়ে ছয় ঘণ্টা ভোগান্তি

সোমবার মার্কিন এয়ারলাইন ডেল্টা এর ফ্লাইট বাতিল হওয়ায় বিশ্বজুড়ে হাজার হাজার যাত্রী বিমানবন্দরগুলোতে আটকা পড়েন।

তাহমিন আয়শা মুর্শেদবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 August 2016, 11:03 AM
Updated : 9 August 2016, 11:03 AM

সৃষ্ট ঘটনায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান,ইতালি আর যুক্তরাজ্যের অনেকগুলো ফ্লাইট স্থগিত করা হয়। বিমানবন্দরে চেক-ইন সিস্টেম,যাত্রী নিরীক্ষণ, এয়ারলাইন এর ওয়েবসাইট এবং স্মার্টফোনের অ্যাপ সোমবার ‘সিস্টেম ফেইলিয়রের’শিকার হয়। প্রায় ছয় ঘণ্টা পর, ডেল্টা কর্তৃপক্ষ জানায়, ফ্লাইট সীমিতভাবে শুরু হতে যাচ্ছে;তবে তারা চালু হওয়া ফ্লাইটগুলো বিলম্ব আর বাতিলের সম্ভাবনা থাকতে পারে বলে সতর্ক করেদেন।

বিবিসি এর তথ্যানুসারে, বিমানবন্দরেরএজেন্টরা বোর্ডিং পাস হাতে লিখতে বাধ্য হন। তবু শেষরক্ষা করতে পারেনি প্রতিষ্ঠানটি। সোমবার ভোর পর্যন্ত প্রায় ডজন ডজন ফ্লাইট বাতিলকরতে বাধ্য হয় ডেল্টা।

“সব জায়গায় আমাদের সিস্টেম বসে গেছে”—টুইটারে গ্রাহকদের জানানো হয়।

বিশ্বজুড়ে এমন অনাকাংক্ষিত ঘটনায় কয়েকহাজার গ্রাহক, চেক ইনের সুদীর্ঘ লাইনে দাঁড়ানো আর বিমানবন্দরের মেঝেতেই ঘুমিয়ে পড়ারমতো ভোগান্তি শিকারের অভিযোগ জানান দিনভর।

ডেল্টা থেকে দেওয়া প্রতিষ্ঠানটির সিইও-রএক ভিডিও বিবৃতিতে বলা হয়, বিদ্যুত বিভ্রাটের জন্য প্রতিষ্ঠানের কম্পিউটার সিস্টেমেবিপর্যয় ঘটেছিল। সমস্যাটি সমাধানের পরও প্রতিষ্ঠান থেকে গ্রাহকদের সতর্ক করা হয়। আরওবলা হয় যে পুরো ব্যবস্থা স্থিতিশীল হতে কিছুটা সময় লাগবে। সেপর্যন্ত ফ্লাইট বিলম্ববা বাতিলের মতো ঘটনা ঘটতেও পারে।

আইএটিএ এর তথ্যানুযায়ী, যাত্রী বহনেরদিক থেকে এয়ারলাইনগুলোর মধ্যে ডেল্টা তৃতীয়।

এয়ারলাইন কর্তৃপক্ষ যাত্রীদেরকে পরামর্শদিয়েছেন যে, তারা যেন এয়ারপোর্টে আসার আগে তাদের ফ্লাইটের অবস্থা সম্পর্কে নিশ্চিতহয়ে আসেন।

প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, ডেল্টার সদরদপ্তরেরকাছে অবস্থিত আটলান্টায় পুরো রাতজুড়ে বিদ্যুত বিভ্রাটের এই ঘটনা ঘটে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক