স্ট্রিমিং সেবায় 'বিপ্লব' আনছে অ্যাপল

অনলাইন স্ট্রিমিং বা বিলবোর্ড বিজ্ঞাপনে শিল্পীদের প্রচারণা থেকে যে আয় হয় তাতে 'আমূল পরিবর্তন' আনতে যাচ্ছে অ্যাপল। ধারণা করা হচ্ছে, এই পরিবর্তনের মাধ্যমে স্পটিফাই আর গুগলের মতো প্রতিদ্বন্দ্বীদের আঘাত করতে পারে প্রতিষ্ঠানটি।

তাহমিন আয়শা মুর্শেদবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 July 2016, 05:15 PM
Updated : 18 July 2016, 05:15 PM

প্রথমত, কীভাবে বর্তমানে মোটআয় হিসাব করা হয় তা ব্যাখ্যা করা যাক। এটি একটি কৌশলী প্রক্রিয়া, প্রতিটি স্ট্রিমিং প্রতিষ্ঠান তাদের নিজস্ব গোপন চুক্তিগুলো নিয়েসত্ত্বাধিকারদের সঙ্গে আলোচনা করে। গান আর এলাকাভেদে অর্থের পরিমাণটা আলাদা হয়।এটি এত বেশি জটিল যে, স্ট্রিমিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান,স্পটিফাই এই পদ্ধতি ব্যাখ্যা করে তাদের ওয়েবসাইটে একটি পোস্ট দিয়েরেখেছে।

সম্প্রতি মার্কিন কপিরাইটরয়্যালটি বোর্ড-এ অ্যাপল অপেক্ষাকৃত সহজ ব্যবস্থার প্রস্তাব উত্থাপন করেছে। অনেকউপাদান সমৃদ্ধ জটিল কিছু নয়, বরং যেখানে স্বত্বাধিকারীরা মার্কিন কপিরাইট রয়্যালটিবোর্ড একটি কনটেন্ট প্রতি ১০০ বার 'প্লে' করার জন্য ৯.১ সেন্ট পাবেন। এর মানে হচ্ছে, ১০০ বারস্ট্রিমিংয়ে যে আয় হবে, তা একবার ডাউনলোড করলে যে আয় হয় তারসমান। এটি আগের তুলনায় অনেক "সহজ এবং আরও স্বচ্ছ" প্রয়াস, জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।

অ্যাপলের এই প্রস্তাব সঙ্গীতশিল্পের জন্য শুধু একটি উন্নত প্রয়াস নয় বরং এটি স্পটিফাই এবং ইউটিউবের মতোপ্রতিদ্বন্দ্বী স্ট্রিমিং সেবাদাতাদেরও আঘাত করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আয়ের হারের উপর না করেপ্রতিবার প্লে-এর ভিত্তিতে আয় হিসাব করায়, নতুন পরিকল্পনা অনুসারে আয় বেড়ে যাবে বলে আশাকরা হচ্ছে। ২০১৮ সাল থেকে এই প্রস্তাবনা কার্যকর করবে অ্যাপল।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক