ছোট হলো আইপ্যাড প্রো

২১ মার্চ ক্যালিফোর্নিয়ার কুপারটিনো টাউনহলে অনুষ্ঠিত হল মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাপলের পণ্য মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান ‘স্পেশাল অ্যাপল ইভেন্ট’। অ্যাপল প্রধান টিম কুকের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটিতে তাক লাগানো সব ফিচার নিয়ে ৯.৭ ইঞ্চির এই আইপ্যাড প্রো-এর মোড়ক উন্মোচন করেন প্রতিষ্ঠানটির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট অফ ওয়ার্ল্ড ওয়াইড মার্কেটিং  ফিল শিলার।

নাজিয়া শারমিনবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 March 2016, 01:57 PM
Updated : 22 March 2016, 01:57 PM

৬.১ মিমি পাতলা ও এক পাউন্ডেরও কম ভরের অ্যাপলের এই ট্যাবটিতে রয়েছে নতুন প্রো রেটিনা ডিসপ্লে, লোয়ার রিফ্লেকটিভিটি, নাইট শিফট মোড এবং নতুন ট্রু টোন প্রযুক্তি, যা ট্যাবটির ডিসপ্লেকে করে তুলেছে ‘অনেক বেশি আকর্ষণীয়’। নতুন এই রেটিনা ডিসপ্লে প্রযুক্তির জন্য ডিসপ্লেটি আই প্যাড এয়ারের চেয়ে ২৫ শতাংশ বেশি উজ্জ্বল এবং প্রতিফলন ৪০ শতাংশ কম হবে, জানিয়েছেন শিলার।

পোর্টেবল পিসিকে টক্কর দিতে এতে রাখা হয়েছে ৬৪ বিট এনাইনএক্স চিপ। লাইভ ফটো তোলা, বিভিন্ন ফটো ও ভিডিও দেখা ও শব্দ শোনার সুবিধার্থে এতে যোগ করা হয়েছে ফোর স্পিকার অডিও সিস্টেম, ১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা, ৪কে ভিডিও, ৫ মেগাপিক্সেল ফেইসটাইম এইচডি ক্যামেরা এবং দ্রুততম তারবিহীন প্রযুক্তি।

সর্বশেষ চমক হিসেবে উন্মোচন করা হয়েছে অ্যাপল পেন্সিল এবং স্মার্ট কিবোর্ড যা আই প্যাড প্রো-কে আরও এক ধাপ সামনে এগিয়ে নিয়ে গেছে। অ্যাপল পেন্সিলটি অ্যাডভান্সড সেন্সর ব্যবহার করে এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যেন সাধারণভাবেই এটি দিয়ে নোট করা ও ছবি আঁকা যায়। শিলার বলেন, “আইপ্যাড প্রো আইপ্যাড-এর একটি নতুন প্রজন্মের আইপ্যাড, যা ‘ইনডিসপেনসেবল’ আর ‘ইমার্সিভ’ হওয়ায় মানুষকে আরও বেশি সৃজনশীল আর দক্ষ হতে সহায়তা করে। এটাই প্রথম, সবচেয়ে বেশি বহনযোগ্য, আর আঙ্গুল, অ্যাপল পেন্সিল, স্মার্ট কিবোর্ড দিয়ে ব্যবহারের জন্য সম্পূর্ণ স্বাভাবিক। আর এখন দুটি আকারে পাওয়া যাচ্ছে।”

অ্যাপলের ওয়েবসাইটে জানা যায়, পিক্সার আর ওয়াল্ট ডিজনি অ্যানিমেশন স্টুডিওস-এর প্রধান ক্রিয়েটিভ অফিসার জন ল্যাসেটার বলেন, “কম্পিউটার অ্যানিমেশন বানাতে কী পরিমাণ হাতে আঁকার কাজ করতে হয়, তা মানুষ বোঝে না। ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-এ প্রকৃত অর্থে কাগজে আঁকার মতো আঁকতে আমাদের সর্বোচ্চ সুযোগ এনে দিচ্ছে আইপ্যাড প্রো আর অ্যাপল পেন্সিল।”

এই আইপ্যাড সোনালি, রুপালি, স্পেস গ্রে ও রোজগোল্ড রঙে পাওয়া যাবে। এটি চলতি বছর ২৪ মার্চ থেকে অর্ডার করা আর ৩১ মার্চেই এটি বাজারে আসবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

এক্ষেত্রে ৩২ জিবি ওয়াই ফাই মডেলের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৯৯ মার্কিন ডলার এবং ৬৪ জিবি ওয়াই-ফাই+সেলুলার মডেলের দাম ৭২৯ ডলার।