• স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলকে বাফুফের সংবর্ধনা
    স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের খেলোয়াড়, সংগঠকদের মিলনমেলা বসল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনে। তাদের জবানীতে উঠে এলো মুক্তিযুদ্ধের সময় দলটির গড়ে ওঠা, ১৬টি ম্যাচ খেলা, মুক্তিযুদ্ধের তহবিলে সহায়তা দেওয়াসহ নানা ঐতিহাসিক ঘটনা।
  • ‘ভারতের ক্যাম্পে তিনি সবাইকে উৎসাহ দিতেন’
    বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের চেনা আঙিনায় ফিরলেন একেএম নওশেরুজ্জামান। কিন্তু নিরব-নিথর হয়ে। সদা হাসি-খুশি মানুষটি করোনাভাইরাসের বিপক্ষে লড়াইয়ে পেরে ওঠেননি। কিন্তু খেলোয়াড়ী জীবনে যা পেরেছিলেন, যা করেছিলেন, তা ঈর্ষণীয়। স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের এই খেলোয়াড়কে নিয়ে স্মৃতিচারণে একসময়ের সতীর্থদের চোখ ভিজে উঠল।
  • স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের নওশেরুজ্জামান আর নেই
    করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় ছিলেন লাইফ সাপোর্টে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও নিয়মিত খোঁজ নিচ্ছিলেন স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের খেলোয়াড় একেএম নওশেরুজ্জামানের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পেরে উঠলেন না। ৭০ বছর বয়সে না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্লু খেতাব পাওয়া এই খেলোয়াড়।