• সময়ের থাবায় থমকে গেছে মোশাররফের সোনার হাসি
    সোনায় মোড়ানো দিনগুলি হারিয়ে গেছে সময়ের স্রোতে। পড়ে আছে কেবল অতীতের কঙ্কাল। একসময় বক্সিং রিং দাপিয়ে বেড়িয়েছেন মোশাররফ হোসেন। মুষ্ঠিবদ্ধ হাতের প্রতাপে লিখেছেন অর্জনের দারুণ সব গল্প। সময়ের থাবায় এখন তিনি নড়তে-চড়তে পারেন না ঠিকঠাক। পক্ষাঘাতগ্রস্ত হওয়ার পর লাঠিতে ভর করে কোনো রকমে চলছে জীবনের চাকা। বক্সার মোশাররফ হেরে গেছেন জীবনযুদ্ধে। ৩৫ বছর এসএ গেমসের সেই সোনাঝরা দিনগুলি এখনও তাকে ভালো লাগার দোলা দেয় বটে, তবে জাগায় প্রবল হাহাকারও।
  • ‘পলিথিন থেরাপি’ নিয়ে সোনা জিতেছিলেন রহিম
    সে এক দুঃসহ রাত! ডোপ টেস্ট দিতে গিয়ে বিপত্তির শেষ নেই। বোতলের পর বোতল পানি পান করেও লাভ হচ্ছিল না। উল্টো ওজন বেড়ে গেলো ৮ কেজি! অথচ সকালে নামতে হবে সোনার পদকের লড়াইয়ে। চোখেমুখে ঘোর অন্ধকার দেখছিলেন আব্দুর রহিম। স্বপ্ন ভাঙার ভয়ে চোখে পানিও এসে যায়। এরপর নিলেন পলিথিন থেরাপি! শঙ্কার মেঘ উড়িয়ে সকালটাও রাঙালেন সোনা জয়ের সাফল্যের আভায়।
  • সাফের সেই সোনার পদক নিলামে তুলবেন জনি
    এতদিন পরম যত্নে পদকটা আগলে রেখেছেন। হাতছাড়া করতে কষ্ট হবে। কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে দেশের অসহায় মানুষের জন্য কিছু করার তাড়না থেকে এসএ গেমসে জেতা সোনার পদকটি নিলামে তুলতে চাইছেন বক্সার জুয়েল আহমেদ জনি।
  • শেষটা রাঙাতে চান বক্সার রহিম
    সবশেষ সোনার পদক এসেছে ২০১০ সালে। আরও পেছনে গেলেও অর্জনের ঝুলি খুব সমৃদ্ধ নয়। দক্ষিণ এশিয়ান গেমসের বক্সিং রিংয়ে আনন্দের চেয়ে বাংলাদেশের আক্ষেপের গল্পই রচিত হয়েছে বেশি। সামনে তাকালে তবু চোখে পড়ছে আশার আলো। আব্দুর রহিম যে আছেন!
  • ইংল্যান্ড থেকে এসে জাতীয় বক্সিংয়ে সোনা সাফওয়ানের
    জাতীয় বক্সিংয়ের এবার সবার দৃষ্টি ছিল ইংল্যান্ড থেকে আসা আল সাফওয়ান উদ্দিনের দিকে। শারীরিক গড়নে ও কৌশলে এগিয়ে থাকা বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এই বক্সার সেরা হয়েছেন ৬০ কেজি ওজন শ্রেণিতে।
  • বক্সিংয়ে উজবেকিস্তানের দিন
    রিও অলিম্পিকের শেষ দিনে বক্সিং থেকে দুটি সোনা পেয়েছে উজবেকিস্তান। সব মিলিয়ে বক্সিং রিং থেকে তিনটি সোনার পদক পেল মধ্য এশিয়ার দেশটি।
  • বক্সিং শিরোপা ধরে রাখলেন অ্যাডামস
    মেয়েদের ফ্লাইওয়েট বক্সিংয়ের শিরোপা ধরে রেখেছেন যুক্তরাজ্যের নিকোলা অ্যাডামস।
  • জন্মদিনে সোনা জিতলেন ফ্রান্সের মোসলি
    জন্মদিনে নিজেকে সেরা উপহারটাই দিলেন এসতেল মোসলি। রিও দে জেনেইরো অলিম্পিকে মেয়েদের ৬০ কেজি ওজনশ্রেণিতে প্রতিদ্বন্দ্বীর সঙ্গে কঠিন লড়াইয়ের পর সোনা জিতেছেন ফ্রান্সের এই বক্সার।
  • হুলিও সেসারের সোনায় চক্র পূরণ কিউবার
    তিন রাউন্ডে অধিপত্য করে অলিম্পিকে প্রথম সোনা জিতেছেন কিউবার বক্সার হুলিও সেসার লা ক্রুস। লাইট-হেভিওয়েট ইভেন্টে ২৭ বছর বয়সী ক্রুস হারিয়েছেন কাজাখস্তানের আদিলবেক নিয়াজিমবেতোভকে।
  • বক্সিং ওয়েল্টারওয়েটে কাজাখস্তানের আধিপত্য অব্যাহত
    অলিম্পিক বক্সিংয়ে ওয়েল্টারওয়েট বিভাগে আধিপত্য ধরে রেখেছে কাজাখস্তান।
  • বক্সিংয়ে ব্রাজিলের রবসনের ইতিহাস
    নিজ দেশের দর্শকের সামনে দারুণ এক ইতিহাস গড়েছেন ব্রাজিলের রবসন কনসেইসাও। অলিম্পিকে বক্সিং থেকে দেশকে প্রথম সোনা এনে দিয়েছেন ২৭ বছর বয়সী এই বক্সার।
  • সোনা জিতে দুয়ো শুনলেন তিসচেঙ্কো
    পুরুষ বক্সিংয়ে ৯১ কেজি ওজনশ্রেণির সোনা জিতেছেন ইভজেনি তিসচেঙ্কো। তবে রিংয়ের লড়াই থেকে শুরু করে পুরস্কার বিতরণী অনু্ষ্ঠান পর্যন্ত দুয়ো শুনতে হয়েছে রাশিয়ার এই বক্সারকে।
  • বক্সিংয়ের প্রথম সোনা উজবেকিস্তানের দুসমাতোভের
    রিও দে জেনেইরো অলিম্পিকে বক্সিংয়ের প্রথম সোনার পদক গেছে উজবেকিস্তানের দখলে।