• ডেনমার্ক দলকে দেশে বীরোচিত অভ্যর্থনা
    রূপকথাময় পথচলা শেষ হয়েছে হৃদয়ভাঙা হারে। অতিরিক্ত সময়ের বিতর্কিত পেনাল্টি গোলে ভেঙে গেছে ফাইনালের স্বপ্ন। তবে ডেনমার্কের অর্জন, তাদের অসাধারণ পারফরম্যান্সের রেশ তো শেষ হয়ে যায়নি। লন্ডন থেকে দেশে ফেরা দলকে বরণ করে নেওয়া হয়েছে বীরের মর্যাদায়।
  • পেনাল্টির আগে স্মাইকেলের মুখে লেজার লাইট মারার অভিযোগ
    হ্যারি কেইন স্পট কিক নেওয়ার আগমুহূর্তে ডেনমার্কের গোলরক্ষক কাসপের স্মাইকেলের মুখে লেজার লাইট মারার ঘটনাসহ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিনটি ‘ডিসিপ্লিনারি চার্জ’ এনেছে উয়েফা।
  • ছবিতে ইউরোর দ্বিতীয় সেমি-ফাইনাল
    অসাধারণ এক ফ্রি কিকে ডেনমার্ককে এগিয়ে নেন মিকেল ডামসগার্ড। কিন্তু বেশিক্ষণ এই ব্যবধান ধরে রাখতে পারেনি তারা। আত্মঘাতী গোলে ফিরে সমতা। অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো ম্যাচে সফল স্পট কিকে ইংল্যান্ডের জয়সূচক গোলটি করেন হ্যারি কেইন। ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে ২-১ গোলে জিতে শিরোপার আরেক ধাপ কাছে পৌঁছে গেল গ্যারেথ সাউথগেটের দল।
  • ডেনমার্ককে হারিয়ে স্বপ্নের ফাইনালে ইংল্যান্ড
    প্রতিপক্ষের আক্রমণে পিষ্ট ডেনমার্ক মাথা তুলতে পারল সামান্যই। অবশ্য তাতেই ঘাম ছুটে গেল ইংল্যান্ডের। প্রতিপক্ষের ভুলে সমতায় ফিরলেও কাসপের স্মাইকেলের দেয়াল আর ভাঙতে পারছিল না তারা। অবশেষে অতিরিক্ত সময়ে গিয়ে মিলল জালের দেখা। প্রথমবারের মতো ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠল ইংল্যান্ড।
  • বিশ্বকাপের সেই হারের পুনরাবৃত্তি যেন না হয়, সতর্ক ইংল্যান্ড
    বছর তিনেকের মাথায় আরেকটি সেমি-ফাইনাল। ইংল্যান্ড দলকে স্বাভাবিকভাবে তাড়া করছে রাশিয়া বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনালে সেই হেরে যাওয়া ম্যাচটি। তবে ওই ব্যর্থতার মাঝেই ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ভালো করার অনুপ্রেরণা খুঁজছেন হ্যারি ম্যাগুইয়ার।
  • ‘আমরা কেইনকে আটকাতে পারব’, আত্মবিশ্বাসী ডেনমার্ক
    নকআউট পর্বের দুই ম্যাচেই গোল করেছেন। ২৫ বছর পর ইংল্যান্ডের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের সেমি-ফাইনালে ওঠায় রেখেছেন দারুণ ভূমিকা। ইংলিশ ফরোয়ার্ড হ্যারি কেইনের সামর্থ্য নিয়ে কোনো সংশয় নেই আন্দ্রেয়াস স্ক্রাস্তেনসেন। তবে ডেনিশ এই ডিফেন্ডার আস্থা রাখছেন নিজেদের রক্ষণভাগের ওপর। আত্মবিশ্বাসী কণ্ঠে বললেন, কেইনকে আটকাতে পারবেন তারা। 
  • ‘এরিকসেনের জন্য ভালোবাসাই আমাদের এতদূর টেনে এনেছে’
    মাঠে ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের ঢলে পড়া এবং তার জীবন-মৃত্যুর লড়াই খুব কাছ থেকে দেখে হতবিহ্বল হয়ে পড়েছিল সেদিন স্টেডিয়ামে উপস্থিত সবাই। তারপর পেরিয়ে গেছে অনেক দিন, ডেনিশ তারকা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। সেদিনের সেই হতাশাময় ঘটনাই পুরো ডেনমার্ক দলকে আজ যেন একক অটুট বন্ধনে বেঁধে ফেলেছে। কোচ কাসপের হিউমান্দের বললেন, সশরীরে এরিকসেন দলে নেই ঠিকই, তবে তার প্রতি ভালোবাসা আর সমবেদনার জোরেই খাদের কিনারা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের সেমি-ফাইনালে পৌঁছেছে তারা।
  • যেভাবে ইউরোর শেষ চারে তারা
    আরও এক ধাপ পেরিয়ে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ এখন সেমি-ফাইনালের মঞ্চে। শেষ চারে জায়গা করে নিয়েছে স্পেন, ইতালি, ডেনমার্ক ও ইংল্যান্ড।
  • ছবিতে ডেনমার্কের জয়ের গল্প
    ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ডেনমার্কের স্বপ্নযাত্রা অব্যাহত রয়েছে। আজারবাইজানের বাকু অলিম্পিক স্টেডিয়ামে শনিবার কোয়ার্টার-ফাইনালে চেক রিপাবলিককে ২-১ গোলে হারিয়ে সেমি-ফাইনালে উঠেছে ১৯৯২ আসরের চ্যাম্পিয়নরা। টমাস ডেলানি ও কাসপের ডলবার্গের গোলে ডেনিশরা এগিয়ে যাওয়ার পর ব্যবধান কমান পাত্রিক শিক। ছবি: র‍য়টার্স
  • চেকদের হারিয়ে শেষ চারে ডেনমার্ক
    প্রথমার্ধে দুই গোল করে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেওয়া ডেনমার্ক বিরতির পর ছন্দ হারাল কিছুটা। ব্যবধান কমিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা জাগাল চেক রিপাবলিক। তবে শেষ পর্যন্ত পেরে উঠল না তারা। দারুণ জয়ে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের সেমি-ফাইনালে উঠল ডেনিশরা।
  • ছবিতে ডেনমার্কের দুর্দান্ত জয়
    ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের শেষ ষোলোয় ডেনমার্কের সামনে পাত্তাই পায়নি ওয়েলস। আমস্টারডামের ইয়োহান ক্রুইফ অ্যারেনায় শনিবার গ্যারেথ বেলের দলকে ৪-০ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার-ফাইনালে ওঠে ডেনিশরা। কাসপের ডলবার্গের জোড়া গোলের পর শেষ দিকে ব্যবধান বাড়ান ইওয়াখিম মেইল ও মার্টিন ব্র্যাথওয়েট। ছবি: রয়টার্স
  • ওয়েলসকে উড়িয়ে শেষ আটে ডেনমার্ক
    আসরে প্রথমবার শুরুর একাদশে সুযোগ পেয়ে জোড়া গোলে আলো ছড়ালেন কাসপের ডলবার্গ। উজ্জীবিত পারফরম্যান্সে ওয়েলসকে উড়িয়ে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠল ডেনমার্ক।
  • ছবিতে ডেনমার্কের দাপুটে জয়
    প্রথম দুই ম্যাচ হেরে জেগেছিল বিদায়ের শঙ্কা, সেই ডেনমার্ক শেষ রাউন্ডে রাশিয়াকে উড়িয়ে গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের নকআউট পর্বে উঠেছে। কোপেনহেগেনের পারকেন স্টেডিয়ামে সোমবার রাতে ‘বি’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে ৪-১ গোলে জেতে ডেনিশরা। ছবি: রয়টার্স 
  • রাশিয়াকে উড়িয়ে শেষ ষোলোয় ডেনমার্ক
    প্রথম দুই ম্যাচে হারের তেতো স্বাদ পাওয়া ডেনমার্ক শেষ রাউন্ডে নিজেদের মেলে ধরল দুর্দান্তভাবে। উজ্জীবিত পারফরম্যান্সে তারা উড়িয়ে দিল রাশিয়াকে। অন্য ম্যাচের ফলও এলো পক্ষে। ডেনিশরা উঠে গেল ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের নকআউট পর্বে।
  • হাসপাতাল থেকে ফিরেছেন এরিকসেন
    ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের হৃদযন্ত্র স্বাভাবিকভাবে সচল রাখতে ‘হার্ট স্টার্টার’ বসানোর অস্ত্রোপচার ‘সফল’ হয়েছে। হাসপাতাল থেকেও ছাড়া পেয়েছেন ডেনমার্কের এই মিডফিল্ডার।
  • ‘মনেই হয়নি, বাইরে ছিল ডে ব্রুইনে’
    চোট কাটিয়ে অনুশীলনে ফিরেছিলেন বটে। কিন্তু ডেনমার্কের বিপক্ষে ম্যাচে কেভিন ডে ব্রুইনের খেলা নিয়ে ছিল অনিশ্চয়তা। তিনিই বদলি হিসেবে মাঠে নেমে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেন। গোল করে ও করিয়ে ম্যাচে ব্যবধান গড়ে দেওয়া এই মিডফিল্ডারের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ বেলজিয়াম কোচ রবের্তো মার্তিনেস।
  • ফিরেই নায়ক ডে ব্রুইনে, শেষ ষোলোয় বেলজিয়াম
    মাত্র তিন দিন আগে অনুশীলনে ফেরা কেভিন ডে ব্রুইনের খেলাই নিশ্চিত ছিল না। সেখানে সব অনিশ্চয়তা দূরে ঠেলে বিরতির পর মাঠে নেমেই খেলার চিত্র বদলে দিলেন তিনি। কোণঠাসা দলকে পথে ফেরাতে সতীর্থের গোলে রাখলেন অবদান, পরে নিজে করলেন দুর্দান্ত একটি গোল। ডেনমার্কের বিপক্ষে শুরুতেই পিছিয়ে পড়ার ধাক্কা সামলে দারুণ এক জয় তুলে নিল বেলজিয়াম।
  • 'হার্ট স্টার্টার' যন্ত্র বসাতে হবে এরিকসেনের
    কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে মাঠে লুটিয়ে পড়া ক্রিস্তিয়ান এরিকসেন ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন। তবে এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এই ডেনিশ ফুটবলারের শরীরে হৃদযন্ত্র স্বাভাবিকভাবে সচল রাখার যন্ত্র বসানো হবে বলে জানানো হয়েছে।
  • উয়েফার ‘বিরক্তিকর’ সিদ্ধান্তে চটেছেন সাবেকরা
    মাঠে লুটিয়ে পড়লেন সতীর্থ, দীর্ঘক্ষণ চিকিৎসার পরও তেমন উন্নতি না হওয়ায় তাকে নেওয়া হলো হাসপাতালে। এমন পরিস্থিতিতে পরিত্যক্ত ঘোষণার ঘণ্টা দুয়েক পর আবার ম্যাচ শুরুর সিদ্ধান্তে হতবাক অনেকেই। উয়েফার ওপর ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন ডেনমার্কের সাবেক ফুটবলাররা। তারা মনে করছেন, পুরো ঘটনাটি ঠিকভাবে সামাল দিতে পারেনি ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ন্তা সংস্থা।
  • হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন এরিকসেন
    খেলা চলাকালীন সময়ে মাঠে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন ক্রিস্তিয়ান এরিকসেন। তার মেডিকেল টেস্টের ফল এসেছে স্বাভাবিক, অবস্থাও স্থিতিশীল আছে বলে ডেনমার্ক দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।
  • এরিকসেনের ফিরে আসার পার্শ্বনায়কেরা
    “ডেনমার্ক হেরেছে, কিন্তু জয় হয়েছে জীবনের”-ডেনমার্কের একটি সংবাদপত্রের শিরোনামেই ফুটে উঠেছে জয়-পরাজয় ছাপিয়ে কিভাবে প্রেক্ষাপট বদলে দিতে পারে ভিন্ন কোনো উপলক্ষ। যেখানে মানবিকতার জয়ই মুখ্য। ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচে ফলাফলকে পাশ কাটিয়ে সবাইকে স্বস্তি দিয়েছে ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের সুস্থতার খবর। খেলোয়াড়-কর্তৃপক্ষসহ ক্রীড়া বিশ্বের সবার প্রার্থনা ছিল একটাই, ফিরে আসুক এরিকসেন।
  • 'এরিকসেনের ম্যাচে' জিতল ফিনল্যান্ড
    শক্তি-সামর্থ্য-ঐতিহ্যে ডেনমার্কের চেয়ে অনেক পিছিয়ে ফিনল্যান্ড। সেই দলই দেখাল চমক। প্রথমবারের মতো ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে খেলতে এসেই হারিয়ে দিল সাবেক চ্যাম্পিয়নদের।
  • এরিকসেনের জন্য প্রার্থনা
    ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে ডেনমার্কের ম্যাচ চলাকালীন ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের হঠাৎ মাঠে লুটিয়ে পড়ার ঘটনা নাড়িয়ে দিয়েছে ক্রীড়া বিশ্বকে। ডেনিশ এই মিডফিল্ডারের সুস্থতা কামনায় প্রার্থনা করছেন সবাই।
  • হাসপাতালে এরিকসেন, স্থগিতের পর ফের ম্যাচ শুরুর ঘোষণা
    ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের মাঠে লুটিয়ে পড়ার ঘটনায় শুরুতে স্থম্ভিত হয়ে গিয়েছিল সবাই। প্রথমে স্থগিতের ঘোষাণা এলেও খানিক পর এদিনই ডেনমার্ক-ফিনল্যান্ড ম্যাচটি পুনরায় মাঠে গড়ানোর সিদ্ধান্ত জানায় উয়েফা।
  • মাঠে লুটিয়ে পড়লেন এরিকসেন, ম্যাচ পরিত্যক্ত
    ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে ডেনমার্কের ম্যাচ চলাকালীন হঠাৎ মাঠে লুটিয়ে পড়েন ক্রিস্তিয়ান এরিকসেন। বেশ কিছুক্ষণ ধরে চিকিৎসা চলার পরও পরিস্থিতির দৃশ্যগত তেমন উন্নতি হয়নি। বিরতির আগেই একে একে সবাই মাঠ ছেড়ে যান। পরিত্যক্ত হয়েছে ম্যাচ। হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে এরিকসেনকে।
  • আইসল্যান্ডকে উড়িয়ে দিল বেলজিয়াম
    শুরুতে গোল খেয়ে যেন তেতে উঠল বেলজিয়াম। তাদের আগুনে পুড়ল আইসল্যান্ড। দলটিকে উড়িয়ে উয়েফা নেশন্স লিগে টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছে রবের্তো মার্তিনেসের দল।
  • ডেনমার্ককে হারাল বেলজিয়াম
    ম্যাচের শুরুতে এগিয়ে যাওয়া বেলজিয়াম বিরতির পর জালের দেখা পেল আরও একবার। ডেনমার্কের বিপক্ষে প্রত্যাশিত জয়ে উয়েফা নেশন্স লিগের দ্বিতীয় আসর শুরু করল রবের্তো মার্তিনেসের দল।
  • ডেনিশ ফুটবলারকে মৃত্যুর হুমকি
    টাইব্রেকারে গোল করতে ব্যর্থ হওয়ায় মৃত্যুর হুমকি পেয়েছেন ডেনমার্কের ফরোয়ার্ড নিকোলাই ইয়োরগেনসেন। মঙ্গলবার দেশটির পুলিশকে বিষয়টি জানিয়েছে ডেনিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন।
  • গ্যালারির মুখ: ক্রোয়েশিয়া-ডেনমার্ক
    টান টান উত্তেজনা। এই বিষাদ, এই উচ্ছ্বাস। ক্রোয়েশিয়া ও ডেনমার্কের মধ্যকার শেষ ষোলোর লড়াইয়ের শেষটায় এমনই ছিল নিজনি নভগোরোদ গ্যালারির দৃশ্য। শেষ পর্যন্ত উচ্ছ্বাস সঙ্গী হলো ক্রোয়েশিয়া সমর্থকদের; ডেনমার্ক সমর্থকদের কান্না। ছবি: রয়টার্স
  • ক্রোয়েশিয়া-ডেনমার্ক: কোয়ার্টার-ফাইনালে ক্রোয়েশিয়া
    শেষ পর্যন্ত লড়াইটা হলো দুই গোলরক্ষকের। টাইব্রেকারে সেই লড়াইয়ে কাসপেস স্মাইকেলের সঙ্গে জিতলেন দানিয়েল সুবাসিচ। ডেনমার্ককে হারিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপের কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠল ক্রোয়েশিয়া। ছবি: রয়টার্স
  • সুবাসিচের নৈপুণ্যে শেষ আটে ক্রোয়েশিয়া
    টাইব্রেকারে কাসপেস স্মাইকেলের সঙ্গে লড়াইয়ে জিতলেন দানিয়েল সুবাসিচ। ডেনমার্ককে হারিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপের শেষ আটে উঠল ক্রোয়েশিয়া।
  • পরিসংখ্যানে ডেনমার্ক-ক্রোয়েশিয়া লড়াই
    বিশ্বকাপের শেষ ষোলোয় গ্রুপ পর্বে দারুণ খেলা ক্রোয়েশিয়ার প্রতিপক্ষ ডেনমার্ক। রোববার বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায় কোয়ার্টার-ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে দুই দল।
  • গ্যালারির মুখ: ফ্রান্স-ডেনমার্ক
    শেষ ষোলোর টিকেট পাওয়ায় ডেনমার্কের খেলোয়াড়দের উচ্ছ্বাস ছুঁয়ে গেলো তাদের সমর্থকদেরও। পরের রাউন্ড আগে থেকেই নিশ্চিত থাকায় ম্যাচ জুড়েই আমেজে ছিল ফ্রান্স সমর্থকরা। ছবি: রয়টার্স
  • ফ্রান্স-ডেনমার্ক: পার পেল ডেনিশরা 
    পরের রাউন্ডে যেতে একটি পয়েন্টের খুব দরকার ছিল ডেনমার্কের। ফ্রান্সের বিপক্ষে নিরাপদ ফুটবল খেলে লক্ষ্য পূরণ করেছে ডেনিশরা। ছবি: রয়টার্স  
  • গ্রুপ সেরা ফ্রান্স, ড্র করে নকআউট পর্বে ডেনমার্ক
    আগেই নকআউট পর্ব নিশ্চিত হয়ে যাওয়া ফ্রান্স খেলল প্রথম পছন্দের ছয়জনকে ছাড়া। সাবেক চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষ একটি পয়েন্ট পেলেই দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত-সেই লক্ষ্যে ডেনমার্ক খেলল নিরাপদ ফুটবল। তাতে হল এবারের আসরের প্রথম গোলশূন্য ড্র।
  • গ্রুপ সি: সমীকরণে অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে এগিয়ে ডেনমার্ক
    আগেই শেষ ষোলোতে উঠে যাওয়া ফ্রান্সের ভাবনা কেবল গ্রুপসেরা হওয়া নিয়ে। নক আউট পর্বে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের সঙ্গী হওয়ার ক্ষেত্রে হিসাব-নিকাশে অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে সুবিধাজনক অবস্থায় আছে ডেনমার্ক।
  • ডেনমার্ক-অস্ট্রেলিয়া: হারের বৃত্ত ভাঙল অস্ট্রেলিয়া
    বিশ্বকাপে টানা চার ম্যাচ পরাজয়ের পর অবশেষে সে গণ্ডি থেকে বেরিয়ে এলো অস্ট্রেলিয়া। ডেনমার্ককে রুখে দিয়ে নক আউট পর্বের আশাও বাঁচিয়ে রাখল অস্ট্রেলিয়া। ছবি: রয়টার্স
  • গ্যালারির মুখ: ডেনমার্ক-অস্ট্রেলিয়া
    প্রথম ম্যাচে পেরুর বিপক্ষে জয়ের পর অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ড্রয়ে অখুশি নন ডেনমার্ক সমর্থকরা। বিশ্বকাপে টানা চার হারের পর দল ড্র করায় হাসি মুখে মাঠ ছাড়লেন অস্ট্রেলিয়ান সমর্থকরাও। ছবি: রয়টার্স
  • পেনাল্টি থেকে গোলে ডেনমার্ককে রুখে দিল অস্ট্রেলিয়া
    মাইল ইয়েডিনাকের গোলে নক আউট পর্বের আশা বাঁচিয়ে রাখল অস্ট্রেলিয়া। ডেনমার্ককে রুখে দিয়ে এবারের আসরে প্রথম পয়েন্ট পেল তারা।
  • ডেনমার্ক-পেরু: ছন্দপতন পেরুর, কক্ষপথে ডেনমার্ক
    দারুণ ছন্দে ছুটে চলেছিল দল দুটি। বিশ্বকাপের নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে ছন্দপতন হলো পেরুর। তাদের হারিয়ে অপরাজেয় পথচলা অব্যাহত রাখলো ডেনমার্ক। ছবি: রয়টার্স  
  • গ্যালারির মুখ: ডেনমার্ক-পেরু
    ম্যাচ জুড়ে প্রিয় দলকে সমর্থন করলো গ্যালারি ভর্তি দর্শক। শেষটায় হতাশা নিয়ে ফিরলো পেরুর সমর্থকরা, উচ্ছ্বাসে ভাসলো ডেনমার্ক। ছবি: রয়টার্স
  • পেরুকে হারিয়ে বিশ্বকাপ শুরু ডেনমার্কের
    টানা ১৫ ম্যাচ করে অপরাজিত থাকার আত্মবিশ্বাস নিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরু করেছিল দুই দল। ইউসুফ পৌলসেনের একমাত্র গোলে পেরুকে হারিয়ে অজেয় যাত্রা ধরে রেখেছে ডেনমার্ক।
  • হালেপকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন কারোলিন
    অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন কারোলিন ভজনিয়াৎস্কি। সিমোনা হালেপকে হারিয়ে ক্যারিয়ারে প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের স্বাদ পেয়েছেন ডেনমার্কের এই খেলোয়াড়।
  • এরিকসেনের হ্যাটট্রিকে বিশ্বকাপে ডেনমার্ক
    ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের দারুণ হ্যাটট্রিকে রিপাবলিক অব আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপে উঠেছে ডেনমার্ক।
  • ছেলেদের হ্যান্ডবলে চ্যাম্পিয়ন ডেনমার্ক
    গত দুই বারের চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সকে হারিয়ে পুরষ হ্যান্ডবলে প্রথম অলিম্পিক সোনা জিতেছে ডেনমার্ক।
  • ব্যাডমিন্টনে চীনের আধিপত্যে ডেনিশ ধাক্কা
    অলিম্পিক ব্যাডমিন্টনে মেয়েদের দ্বৈতে ডেনমার্ককে প্রথম পদক এনে দেওয়া নিশ্চিত করেছেন ক্রিস্টিনা পেডেরসেন ও কামিলা রাইটার জুটি। সেমি-ফাইনালে তারা হারিয়েছে ব্যাডমিন্টনে আধিপত্য করে আসা চীনের মেয়েদের।
  • সুইমিংপুলে দ্রুততম মানবী ব্লুম
    ফেভারিটদের পেছনে ফেলে ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলের সোনা জিতেছেন ডেনমার্কের পেনিল ব্লুম।