খেলাধুলার উন্নয়নে বিত্তবানদের এগিয়ে আসতে বললেন প্রধামন্ত্রী

খেলাধুলার উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবান, ব্যবসায়ী ও শিল্পপতিসহ সংশ্লিষ্টদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 Oct 2010, 08:52 AM
Updated : 30 Oct 2010, 08:52 AM
ঢাকা, অক্টোবর ৩০ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- খেলাধুলার উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবান, ব্যবসায়ী ও শিল্পপতিসহ সংশ্লিষ্টদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আবার খেলোয়াড় কোটা চালু করার ওপর গুরুত্ব দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, "ভাল খেলোয়াড় ভর্তি হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সুনাম বাড়বে।"
নবনির্মিত হ্যান্ডবল স্টেডিয়াম, উডেন ফ্লোর জিমনেসিয়াম ও মোহাম্মদ আলী বক্সিং স্টেডিয়াম উদ্বোধন উপলক্ষে শনিবার বিকালে এক অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।
এর আগে তিনি প্রায় আট কোটি টাকা ব্যয়ে নবনির্মিত ১১শ আসনের উডেন ফ্লোর জিমনেসিয়াম ও দুই কোটি টাকা ব্যয়ে চারশ আসনের হ্যান্ডবল স্টেডিয়াম এবং চার কোটি টাকা ব্যয়ে পুনর্নির্মিত আটশ আসনের মোহাম্মদ আলী বক্সিং স্টেডিয়াম উদ্বোধন করেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আহাদ আলী সরকার, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি জাহিদ আহসান রাসেল, সাংসদ রাশেদ খান মেনন, অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল মো. আব্দুল মুবীন ও যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মাহবুব আহমেদ।
শেখ হাসিনা খেলাধুলার উন্নয়নে বিত্তবান ও শিল্পপতিদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে বলেন, "পৃষ্ঠপোষকতা ছাড়া কখনই খেলাধুলার উন্নয়ন সম্ভব নয়। দেশের ছেলেমেয়েদের যথেষ্ট প্রতিভা রয়েছে। কিন্তু তারা যথেষ্ট সুযোগ-সুবিধা পায় না।"
নিউজিল্যান্ডকে পরপর চারটি ওয়ানডে ম্যাচে পরাজিত করার পর ক্রিকেট খেলোয়াড়দের পুরস্কৃত করা নিয়ে সমালোচনার জবাবে তিনি বলেন, "খেলোয়াড়দের উৎসাহিত করার জন্য পুরস্কার দেওয়া হয়। যারা ভালো দৃষ্টান্ত স্থাপন করবেন তাদেরও পুরস্কার দেওয়া হবে।"
প্রধানমন্ত্রী খেলাধুলার মানোন্নয়নে শুধু রাজধানীকেন্দ্রিক না হয়ে জেলা, থানা, গ্রাম এবং স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে প্রতিযোগিতার আয়োজন করার ওপর দেন।
তিনি এসএ গেমসের সফল আয়োজনের কথা উল্লেখ করে বলেন, "বিশ্বকাপ ক্রিকেটের আটটি খেলা বাংলাদেশে হবে। অনেক সমস্যা সত্ত্বেও এ আয়োজনে বাংলাদেশ সফল হবে। ইতোমধ্যে বিশ্বকাপ ক্রিকেট অনুষ্ঠানে দুশ ৭৫ কোটি টাকা ব্যয়ে পাঁচটি স্টেডিয়ামের সংস্কার কাজ এগিয়ে চলছে।"
অনুষ্ঠানে মন্ত্রিসভার সদস্য, সংসদ সদস্য এবং উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা, খেলোয়াড়রা উপস্থিত ছিলেন।
বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এসইউএম/পিডি/২০৪২ ঘ.
তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক