রোনালদোকে নিয়ে ইউনাইটেডে বাড়ছে অনিশ্চয়তা

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়তে চান ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, ক্লাবকে নিজের সিদ্ধান্ত জানিয়েও দিয়েছেন- এসব গুঞ্জন বেড়েই চলেছে। তার সম্ভাব্য ভবিষ্যৎ নিয়ে চলছে আলোচনা। এর মধ্যে টানা তৃতীয় দিন তিনি দলের প্রাক-মৌসুমের অনুশীলনে না থাকায় ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে পর্তুগিজ তারকাকে নিয়ে অনিশ্চয়তা ক্রমেই বাড়ছে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 July 2022, 10:46 AM
Updated : 6 July 2022, 11:26 AM

নতুন মৌসুমের জন্য গত সোমবার থেকে শুরু হয়েছে ইউনাইটেডের প্রস্তুতি। ক্লাবের সূত্র ধরে ওইদিন ব্রিটিশ পত্রিকা ‘দা মিরর’ জানায়, পারিবারিক কারণ দেখিয়ে রোনালদো অনুশীলনে উপস্থিত হননি। পরের দিনও ছিলেন না তিনি।

এরপর গোল ডটকমের ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড করসপনডেন্ট জেমস রবসন টুইটারে জানান, বুধবারও অনুশীলনে উপস্থিত নেই রোনালদো। তবে কোনো কারণের কথা এবার জানা যায়নি।

ইউনাইটেড থেকেই ২০০৯ সালে রিয়াল মাদ্রিদে পাড়ি দিয়ে সফল ৯ বছর কাটিয়ে ইউভেন্তুসে যোগ দেন রোনালদো। সেখানে ৩ বছরে তিনি ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে উজ্জ্বল থাকলেও দলগতভাবে ইতালিয়ান ক্লাবটির সময়টা তখন ভালো কাটেনি।

এরপর ২০২১-২২ মৌসুমের শুরুতে দুই বছরের চুক্তিতে ইউনাইটেডে ফিরে আসেন রোনালদো। ৩৭ বছর বয়সেও দলটির মৌসুম সেরা খেলোয়াড় ছিলেন তিনি। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৩৭ ম্যাচে করেন ২৪ গোল।

তবে এখানেও সেই একই চিত্র; ব্যক্তিগতভাবে রোনালদোর জন্য মৌসুমটা দারুণ গেলেও ইউনাইটেডের জন্য ছিল হতাশাজনক। আরেকটি শিরোপাহীন মৌসুম কাটানো দলটি প্রিমিয়ার লিগ শেষ করে ছয়ে থেকে। তাই নতুন মৌসুমে তাদের খেলতে হবে ইউরোপা লিগে।

ইউনাইটেডের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে না থাকতে পারাই রোনালদোর দলবদলের ইচ্ছার বড় কারণ বলে ধারণা করা হচ্ছে। ব্রিটিশ দৈনিক ‘দা টাইমস’ সম্প্রতি সূত্রের বরাত দিয়ে জানায়, ইউনাইটেডকে দল ছাড়ার ইচ্ছার কথা জানিয়ে দিয়েছেন রোনালদো। 

ইউনাইটেডের অবশ্য এই মুহূর্তে রোনালদোকে ছাড়ার কোনো পরিকল্পনা নেই বলে জানা গেছে। তারা আশাবাদী, প্রস্তুতিতে দলের সঙ্গে যোগ দিয়ে থাইল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ায় প্রাক-মৌসুমের ম্যাচও খেলবেন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার।

সবশেষ ২০১৭ সালে বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জয়ী রোনালদোর ভবিষ্যৎ ঠিকানা হিসেবে শোনা যাচ্ছে চেলসি, বায়ার্ন মিউনিখের মতো দলের নাম। আদতে কী হবে, তা সময়ই বলে দেবে। তবে বর্তমান প্রেক্ষাপটে তাকে ঘিরে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে যে অনিশ্চয়তা প্রতিনিয়ত বাড়ছে, তা একরকম নিশ্চিত করেই বলা যায়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক