দোরিয়েলতন-ফয়সালের গোলে আবাহনীর জয়

প্রথম লেগের মতো এবারও চমক দেখানোর ইঙ্গিত দিল চট্টগ্রাম আবাহনী। দুইবার এগিয়েও গেল তারা। তবে চাপে ভেঙে না পড়ে আবাহনী ঘুরে দাঁড়াল দোরিয়েলতন গোমেস নাসিমেন্তো ও নুরুল নাইম ফয়সালের নৈপুণ্যে। দারুণ জয়ে মধুর প্রতিশোধও নিল আকাশী-নীল জার্সিধারীরা।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 June 2022, 12:20 PM
Updated : 28 June 2022, 01:15 PM

কুমিল্লার শহীদ ধীরেন্দ্র নাথ দত্ত স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার ৩-২ গোলে জিতেছে আবাহনী। জোড়া গোল করেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড দোরিয়েলতন, অপর গোলটি ফয়সালের। চট্টগ্রাম আবাহনীর দুই গোলদাতা ওমিদ পোপালজাই ও পিটার থ্যাঙ্কগড।

প্রথম লেগে চট্টগ্রাম আবাহনীর কাছে একই ব্যবধানে হেরেছিল আবাহনী।

১৭ ম্যাচে ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে আছে আবাহনী। ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা বসুন্ধরা কিংসের উপর চাপও ধরে রাখল মারিও লেমেসোর দল।

প্রথমার্ধে আক্রমণে আধিপত্য করে আবাহনী, কিন্তু সুযোগ কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যায় চট্টগ্রামের দলটি।

শুরু থেকে লেফট উইং দিয়ে বারবার আক্রমণে ওঠা দেনিয়েল কলিনদ্রেস সোলেরা চতুর্দশ মিনিটে কোনাকুনি শট নিয়েছিলেন। বল অল্পের জন্য ক্রসবারের উপর দিয়ে উড়ে যায়। একটু পর তার ক্রসে দোরিয়েলতনের হেড কোনোমতে কর্নারের বিনিময়ে আটকান সাইফুল ইসলাম। এরপর কলিনদ্রেসের দূরপাল্লার শটও আটকান চট্টগ্রাম আবাহনীর এই গোলরক্ষক।

খেলার ধারার বিপরীতে ৩১তম মিনিটে এগিয়ে যায় চট্টগ্রাম আবাহনী। বক্সের বাঁ দিকের একটু বাইরে থেকে পোপালজাইয়ের ফ্রি কিক লাফিয়ে ওঠা গোলরক্ষক শহীদুল আলম সোহেলকে পরাস্ত করে জালে জড়ায়।

দুই মিনিট পরই পাল্টা জবাব দেয় লিগের রেকর্ড ছয়বারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনী। এবারও বাঁ দিক দিয়ে আক্রমণে ওঠা কলিনদ্রেসের ক্রসে দোরিয়েলতন হেডে লক্ষ্যভেদ করেন।

আবাহনীর সমতার স্বস্তি থাকেনি বেশিক্ষণ। ৩৮তম মিনিটে মেহেদী হাসান রয়েলের চার্জে বক্সে ক্যান্ডি অগাস্টিন পড়ে গেলে পেনাল্টি পায় চট্টগ্রাম আবাহনী। রেফারির সিদ্ধান্তে আবাহনীর খেলোয়াড়রা আপত্তি জানালেও কাজ হয়নি। স্পট কিকে লক্ষ্যভেদ করেন থ্যাঙ্কগড।

আগে থেকেই লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে ছিলেন থ্যাঙ্কগড। এ নিয়ে নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ডের গোল হলো ১৮টি।

দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণাত্মক খেলা আবাহনী শুরুর দিকে সুযোগও পায়। কিন্তু কলিনদ্রেসের ফ্রি কিকে মিলাদ শেখ সুলেমানি পা ছোঁয়াতে না পারলেও গোল প্রায় পেয়েই যাচ্ছিল তারা, কিন্তু বল গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে পোস্টে লেগে ফিরে।

৭০তম মিনিটে কলিনদ্রেসের কর্নারে গোলমুখ থেকে দোরিয়েলতন হেডে সমতা ফেরান। সাত মিনিট পর দুর্ভাগ্যের ফেরে ম্যাচে প্রথমবারের মতো পিছিয়ে পড়ে চট্টগ্রাম আবাহনী। ম্যাচের পার্থক্যও গড়ে দেয় এই গোল। ফয়সালের ক্রস শাখাওয়াত হোসেন রনির মাথায় লেগে দিক পাল্টে দূরের পোস্ট দিয়ে জালে জড়ায়।

দিনের অন্য ম্যাচে গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হকি মনি স্টেডিয়ামে ১-১ ড্র হয়েছে উত্তর বারিধারা ও রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস অ্যান্ড সোসাইটির ম্যাচটি। ৮০তম মিনিটে সানডে চিজোবা রহমতগঞ্জকে এগিয়ে নেওয়ার পর যোগ করা সময়ে উত্তর বারিধারাকে সমতায় ফেরান ইউসুফ বাম্বা।

১৭ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে নবম স্থানে আছে উত্তর বারিধারা। ১১ পয়েন্ট নিয়ে অবনমন অঞ্চলে আছে রহমতগঞ্জ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক