বাহরাইন ম্যাচের আগে ডিফেন্সে বাড়তি মনোযোগী কাবরেরা

ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে দুই দলের ব্যবধান ৯৯ ধাপ! বাহরাইনের শক্তির ধারনা তাই র‌্যাঙ্কিং থেকে কিছুটা হলেও মিলছে। কঠিন চ্যালেঞ্জে মাঠে নামার আগে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের কোচ হাভিয়ের কাবরেরাও তাই রক্ষণ নিয়ে কাজ করছেন আরও নিবিড়ভাবে।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 June 2022, 01:22 PM
Updated : 6 June 2022, 01:22 PM

মালয়েশিয়ার কুয়ালা লামপুরের আগামী বুধবার বাহরাইনের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এশিয়ান কাপ বাছাই শুরু করবে বাংলাদেশ। এ মুহূর্তে শেষ সময়ের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত দল। সোমবার দেশটির জাতীয় স্টেডিয়াম বুকেট জলিলে অনুশীলন সেরেছে দল।

বাছাইয়ের তিন প্রতিপক্ষই বাংলাদেশের চেয়ে শক্তিশালী। তাই রক্ষণে বাড়তি মনোযোগ কেবল বাহরাইন ম্যাচের জন্য নয়, পুরো বাছাইয়ের জন্যই।

ইন্দোনেশিয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ ও এশিয়ান কাপের বাছাইয়ের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়ার আগে কাবরেরা বলেছিলেন এক একটি করে ম্যাচ ধরে পরিকল্পনা সাজানোর কথা। ছকের প্রথম অংশ পূরণ হয়েছে শক্তিশালী ইন্দোশিয়ার বিপক্ষে গোলশূন্য ড্রয়ে।

তবে জার্কাতার ওই ড্রয়ের তৃপ্তিতে ভেসে যাচ্ছে না দল। বাহরাইন ম্যাচের আগে তাই রক্ষণের দৃঢ়তা বাড়াতে আরও কাজ করার কথা ভিডিও বার্তায় জানিয়েছেন ডিফেন্ডার আতিকুর রহমান ফাহাদ।

“আলহামদুলিল্লাহ, আজ ম্যাচ গ্রাউন্ডে ট্রেনিং করলাম। ম্যাচের জন্য সবাই পুরোপুরি ফিট আছে। আজকে আমাদের ট্রেনিং হয়েছে কিভাবে বাহরাইনের সাথে ডিফেন্ডিং নিয়ে কাজ করব। এটা নিয়েই কাজ হয়েছে। সেট পিস নিয়েও কাজ করেছি। সেট পিসে কিভাবে প্রতিপক্ষের ডিফেন্সে পজিশন ঠিক রাখব, সেটা নিয়ে কাজ করছি। আমাদের রক্ষণ থেকে কিভাবে আক্রমণে যাব, কিভাবে বিল্ড-আপ করব, এগুলো নিয়েও কাজ হয়েছে।”

কাবরেরার সহকারী কোচ মাসুদ কায়সার পারভেজও জানিয়েছেন বাহরাইনকে পর্যালোচনা করে প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা।

“বাহরাইন শক্ত প্রতিপক্ষ, ইন্দোনেশিয়া থেকেও বেটার দল। ওদেরকে পর্যালোচনা করেই আজকে অনুশীলন সাজিয়েছিলাম। আমাদের প্রস্তুতি বেশ ভালো। আমরা আশা করছি, বাহরাইনের সাথে ভালো একটা ম্যাচ উপহার দিতে পারব। টিমের যে কম্বিনেশন, টিমের যে ওয়ার্ক সেটা আগের থেকে বেশ ভালো। সবাই ভালো কিছুর জন্য চেষ্টা করবে, সবাই ভালো কিছু চাচ্ছে। সবাই সুস্থ এবং খেলার জন্য প্রস্তুত আছে।”

মালয়েশিয়াতে থাকা বাংলাদেশিদের সমর্থনও চেয়েছেন ফাহাদ।

“আমরা জানি মালয়েশিয়ায় অনেক বাঙালি আছে। স্টেডিয়ামে যেহেতু দর্শক প্রবেশ করতে পারবে, সেক্ষেত্রে তারা যেন মাঠে এসে আমাদের সমর্থন দেয়, যাতে আমরা আরও ভালো খেলতে পারি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক