নতুন অধ‍্যায়ে এরিকসেনের নতুন শুরু

জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণ থেকে ফিরে এলেও ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের ক্যারিয়ার পড়ে গিয়েছিল হুমকির মুখে। অনেক বাধা পেরিয়ে ‘নতুন আলোর’ খোঁজে তিনি যোগ দেন ব্রেন্টফোর্ডে। প্রিমিয়ার লিগের দলটির হয়েই এবার ফিরলেন প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে। ডেনিশ মিডফিল্ডারের ফুটবল জীবনে শুরু হলো নতুন আরেক অধ্যায়।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 Feb 2022, 06:14 PM
Updated : 26 Feb 2022, 06:14 PM

প্রিমিয়ার লিগে শনিবার নিউক্যাসল ইউনাইটেডের বিপক্ষে ম্যাচের ৫১তম মিনিটে বদলি নামেন এরিকসেন। ব্রেন্টফোর্ড কমিউনিটি স্টেডিয়ামের দুই দলের সমর্থকদের তুমুল কমতালির মাঝে মাঠে নামেন তিনি।

ফেরার উপলক্ষটা অবশ্য জয়ে রাঙাতে পারেননি এরিকসেন। ঘরের মাঠে তার দল হেরে গেছে ২-০ গোলে।

তবে আট মাস আগেও যার জীবন প্রদীপ নিভে যেতে বসেছিল, সেখান থেকে ফিরলেও ক্যারিয়ার থেমে যাওয়ার শঙ্কা ভর করেছিল, তার কাছে আবারও ম্যাচ খেলতে পারাটাই তো বিশাল এক পাওয়া।

গত জুনে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে কোপেনহেগেনে ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচের প্রথমার্ধে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাঠে লুটিয়ে পড়েছিলেন এরিকসেন। মাঠেই তাকে দেওয়া হয় সিপিআর। দীর্ঘক্ষণ চিকিৎসা দেওয়ার পর তাকে নেওয়া হয় হাসপাতালে।

এরপর এরিকসেনের শরীরে ইমপ্ল্যানটেবল কার্ডিওভার্টার ডেফিব্রিলেটর (আইসিডি) বসানো হয়। এটি একটি ছোট ইলেকট্রনিক ডিভাইস, পেসমেকারের মতো যা কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট প্রতিরোধ করে হৃদস্পন্দন স্বাভাবিক রাখার কাজ করে।

পরবর্তীতে সুস্থ হয়ে টুকটাক অনুশীলন শুরু করেন এরিকসেন। গত অগাস্টে ক্লাব ইন্টারেও ফেরেন তিনি। কিন্তু ইতালিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, শরীরে ইলেকট্রনিক ডিভাইস থাকায় ইতালিতে খেলতে পারবেন না তিনি। পরে গত ডিসেম্বরে তাকে ছেড়ে দেয় ইন্টার।

সাত মাসের ঘটনাবহুল জীবন ও ক্যারিয়ারে অনেক বাধা টপকে জানুয়ারির দলবদলের শেষ দিন ‘ফ্রি এজেন্ট’ হিসেবে মৌসুমের বাকি অংশের জন্য ব্রেন্টফোর্ডে যোগ দেন এরিকসেন। এরপর কদিন আগে ফেরেন প্রীতি ম্যাচে। এবার নামলেন মূল ঘরানার লড়াইয়ে। ৩০ বছর বয়সী মিডফিল্ডারের এবার কেবল সামনে এগোনোর পালা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক