আবারও গোলহীন রোনালদো, ইউনাইটেডের আরেকটি হতাশার ড্র

গোল করতেই যেন ভুলে গেছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। সবশেষ এমন দুঃসময় তার এসেছিল ২০০৮-০৯ মৌসুমে। সাত ম্যাচের সেই গোলশূন্যতার পর এবার এ নিয়ে ছয় ম্যাচে গোল পেলেন না তিনি। পর্তুগিজ তারকার এমন গোলখরা দীর্ঘায়িত হওয়ার ম্যাচে আরেকবার পয়েন্ট হারাল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 Feb 2022, 02:33 PM
Updated : 12 Feb 2022, 03:10 PM

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে শনিবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে সাউথ্যাম্পটনের বিপক্ষে শুরুতে এগিয়ে গিয়েও ১-১ ড্র করেছে স্বাগতিকরা। এ নিয়ে লিগে টানা দুই ম্যাচ ড্র করল রালফ রাংনিকের দল।

লিগে দুই দলের আগের দেখায় সাউথ্যাম্পটনের মাঠে একই স্কোরলাইনে ড্র করেছিল ইউনাইটেড। তবে তার আগের মৌসুমে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ৯-০ গোলে জিতেছিল ‘রেড ডেভিলস’ খ্যাত দলটি।

এ ম্যাচেও শুরুতে আভাস ছিল ভালো কিছুর। রোনালদো-স্যানচো জুটি সাউথ্যাম্পটনের রক্ষণে ভীতি ছড়াতে থাকে। সপ্তম মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার ভালো সুযোগও পায় ইউনাইটেড। স্যানচোর পাস অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গোলরক্ষকে পেছনে ফেলে কোনাকুনি শট নিয়েছিলেন রোনালদো, ছুটে গিয়ে আটকান রোমাঁ পেরুদ। দুই মিনিট পর স্যানচোর শট ফেরান গোলরক্ষক।

চাপ ধরে রেখে ২১তম মিনিটে এগিয়ে যায় আগের ম্যাচে বার্নলির মাঠে ড্র করে আসা ইউনাইটেড। ব্রুনো ফের্নান্দেসের দারুণ থ্রু পাস ধরে ডান দিক দিয়ে আক্রমণে ওঠা মার্কাস র‌্যাশফোর্ড আড়াআড়ি ক্রস বাড়িয়েছিলেন দূরের পোস্টে থাকা স্যানচোর উদ্দেশে। তার সামনে থাকা এক ডিফেন্ডার স্লাইড করে ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হলে নিখুঁত টোকায় সুযোগ কাজে লাগান এই ইংলিশ ফরোয়ার্ড।

প্রথমার্ধের শেষ দিকে ইউনাইটেডকে চেপে ধরে সাউথ্যাম্পটন। কিন্তু পোস্টের নিচে দাভিদ দে হেয়া ছিলেন বিশ্বস্ত দেয়াল হয়ে। ৪১তম মিনিটে বক্সের ভেতর থেকে স্টুয়ার্ট আর্মস্ট্রংয়ের একটু লাফিয়ে উঠে নেওয়া সাইড ভলি ফেরান তিনি। একটু পর পেরুদের নিচু শটও আটকান ইউনাইটেড গোলরক্ষক।

বিরতির আগ মুহূর্তে রোনালদোর ক্রসে পাওয়া বল জালে জড়ান পগবা। কিন্তু আক্রমণের শুরুতে বল রিসিভের সময়ই পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড অফসাইডে থাকায় গোল হয়নি।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে প্রথম সুযোগেই সমতা ফেরায় সাউথ্যাম্পটন। মোহামেদ ইউনুসির থ্রু পাস ধরে চে অ্যাডামসের কোনাকুনি শট দূরের পোস্টের ভেতরের দিকে লেগে জালে জড়ায়।

৬১তম মিনিটে দুটি শট ফিরিয়ে ইউনাইটেডের হতাশা বাড়ান সাউথ্যাম্পটন গোলরক্ষক ফ্রেসার ফস্টার। শুরুতে রোনালদোর শট ফেরানোর পর দিয়োগো দালতের শটও আটকান তিনি। এরপর পগবাও ছোট বক্সের ভেতর থেকে লক্ষ্যভেদে ব্যর্থ হন।

৭২তম মিনিটে ফের্নান্দেসের ফ্রি কিকে স্যানচোর হেডে বল জালে জড়ালেও রোনালদো অফসাইডে থাকায় গোল হয়নি। পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড রেফারির কাছে আপত্তি জানালেও সাড়া মেলেনি। এরপর কেবল সময় গড়িয়েছে। ইউনাইটেডের আক্রমণভাগের মলিনতা কাটেনি।

এ ড্রয়ে লিগ শিরোপার লড়াই থেকে ইউনাইটেড পিছিয়ে পড়ল আরও। ২৪ ম্যাচে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে আছে তারা। শীর্ষে থাকা সিটির চেয়ে ২০ পয়েন্ট পিছিয়ে রাংনিকের দল।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক