শিরোপা লড়াইয়ে মুখোমুখি সালাহ ও মানে?

লিভারপুলের আক্রমণভাগের বড় দুই তারকা তারা। কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়ে যান প্রতিপক্ষের বিপক্ষে। তবে জাতীয় দলের জার্সিতে আফ্রিকা কাপ অব নেশন্স মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দিতে পারে মোহামেদ সালাহ ও সাদিও মানেকে। মহাদেশীয় ফুটবল টুর্নামেন্টটির শেষ চারে জায়গা করে নিয়েছে তাদের নিজ নিজ দল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 Jan 2022, 09:03 AM
Updated : 31 Jan 2022, 09:03 AM

অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো কোয়ার্টার-ফাইনালে রোববার রাতে মরক্কোকে ২-১ গোলে হারায় সালাহর মিশর। একই দিন শেষ আটের আরেক ম্যাচে বিষুবীয় গিনির বিপক্ষে ৩-১ গোলে জেতে মানের সেনেগাল। 

মিশরের জয়ে বড় অবদান সালাহর। ম্যাচের শুরুতে পেনাল্টি গোলে পিছিয়ে পড়ার পর দ্বিতীয়ার্ধের অষ্টম মিনিটে দলকে সমতায় ফেরান ২৯ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। আর অতিরিক্ত সময়ে তার পাস থেকেই জয়সূচক গোলটি করেন অ্যাস্টন ভিলার মিডফিল্ডার ত্রেজেগে।

শেষ ষোলোয় কেপ ভার্দের বিপক্ষে মাথায় আঘাত পাওয়ার পরও খেলা চালিয়ে গিয়েছিলেন মানে। দলের ২-০ গোলের জয়ে নিজে করেছিলেন একটি। পরে তাকে যেতে হয়েছিল হাসপাতালে।

শেষ আটে তার দারুণ পাস থেকেই সেনেগালকে এগিয়ে নেন ফামারা দিদিও। দ্বিতীয়ার্ধে সমতায় ফেরে বিষুবীয় গিনি। এরপর ১১ মিনিটের মধ্যে দুইবার তাদের জালে বল পাঠিয়ে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে প্রতিযোগিতাটির দুইবারের রানার্সআপ সেনেগাল।   

আগামী বুধবার বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় প্রথম সেমি-ফাইনালে বুরকিনা ফাসোর মুখোমুখি হবে সেনেগাল। পরদিন একই সময়ে স্বাগতিক ক্যামেরুনের বিপক্ষে লড়বে প্রতিযোগিতার রেকর্ড সাতবারের চ্যাম্পিয়ন মিশর।

মিশর সবশেষ ফাইনালে খেলেছে ২০১৯ সালের আসরে। সেবার তাদের হারিয়ে পঞ্চম শিরোপা জিতেছিল ক্যামেরুন। সালাহদের সামনে তাই কিছুটা প্রতিশোধের হাতছানি।

আর সেনেগাল তো গত আসরের ফাইনালিস্ট। যেখানে তাদের প্রথম শিরোপার স্বপ্ন গুঁড়িয়ে দিয়েছিল আলজেরিয়া। অধরা শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে থাকা দলটির সামনে হাতছানি আবারও ফাইনালে ওঠার।

ফাইনাল হবে আগামী রোববার। শিরোপা লড়াইয়ের মঞ্চে দেখা হবে কি সালাহ ও মানের?

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক