অপরাজেয় পথচলায় চিলিকে হারাল আর্জেন্টিনা

লিওনেল স্কালোনির হাত ধরে অপরাজেয় হয়ে ওঠা আর্জেন্টিনাকে চ্যালেঞ্জ জানালেও আটকাতে পারল না চিলি। আরেকটি পরাজয়ে তাদের কাতার বিশ্বকাপে ওঠার স্বপ্ন ফিকে হয়ে গেল আরেকটু।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 Jan 2022, 02:13 AM
Updated : 28 Jan 2022, 02:45 AM

চিলির কালামা শহরে বাংলাদেশ সময় শুক্রবার সকালে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচটি ২-১ গোলে জিতেছে আর্জেন্টিনা।

ম্যাচের তিনটি গোলই হয়েছে প্রথমার্ধে। আনহেল দি মারিয়া সফরকারীদের এগিয়ে নেওয়ার পর সমতা টানেন বেন ব্রেরেতন। তার একট পরই ব্যবধান গড়ে দেওয়া গোলটি করেন লাউতারো মার্তিনেস।

সব মিলিয়ে টানা ২৮ ম্যাচে অপরাজিত রইল আর্জেন্টিনা, যার শুরুটা হয়েছিল ২০১৯ সালের মাঝামাঝি সময়ে। এই ম্যাচে অবশ্য কোভিড বিধিনিষেধের কারণে ডাগআউটে ছিলেন না দেশটির ২৮ বছরের শিরোপা খরা কাটানো কোচ স্কালোনি।

চলতি মাসের শুরুতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া লিওনেল মেসি অনেক আগেই সেরে উঠেছেন। তবে এর ধকল কাটিয়ে উঠতে যথেষ্ট সময় দিতে এবং পিএসজির অনুরোধে তাকে এই পর্বের দুই ম্যাচে দলে রাখেননি স্কালোনি। অধিনায়কের অনুপস্থিতিতে দ্বিতীয়ার্ধে দলটির আক্রমণভাগ কিছুটা ঝিমিয়ে পড়লেও জয়ের প্রশ্নে অবশ্য ভুগতে হয়নি দলকে।

দি মারিয়ার অসাধারণ গোলে ম্যাচের নবম মিনিটেই এগিয়ে যায় সফরকারীরা। রদ্রিগো দে পলের পাস ধরে ডান দিক দিয়ে আক্রমণে উঠে একটুখানি বাঁয়ে মোড় নিয়ে এক পলকে সামনে দেখে ২২ গজ দূর থেকে শট নিলেন পিএসজি তারকা। বল বুলেট গতিতে দূরের পোস্ট দিয়ে ঠিকানা খুঁজে নেয়। ঝাঁপিয়ে নাগাল পাননি গোলরক্ষক।

আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে শুরু থেকে জমে ওঠা লড়াইয়ে পাল্টা জবাব দিতে দেরি করেনি চিলি। ১১ মিনিট পর সমতা টানেন ব্রেরেতন। ডান দিক থেকে মার্সেলিনো নুনেসের ক্রসে ছয় গজ বক্সের বাঁ থেকে ভাসিয়ে দেওয়া চমৎকার কোনাকুনি হেডে গোলরক্ষকের ওপর দিয়ে গোলটি করেন ব্ল্যাকবার্ন ফরোয়ার্ড।

৬ ম্যাচ পর এই প্রথম গোল হজম করল আর্জেন্টিনা।

৩৪তম মিনিটে আবারও এগিয়ে যায় দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। আতলেতিকো মাদ্রিদের মিডফিল্ডার দে পলের অনেক দূর নেওয়া জোরাল শট কোনোমতে দুই হাত উঁচু করে ঠেকান গোলরক্ষক ক্লাওদিও ব্রাভো; কিন্তু বল চলে যায় সরাসরি ডি-বক্সে মার্তিনেসের পায়ে। প্লেসিং শটে আগেই পড়ে যাওয়া গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ইন্টার মিলান ফরোয়ার্ড।

দ্বিতীয়ার্ধে বেশিরভাগ সময় বল দখলে রেখে আক্রমণে মনোযোগী হয় চিলি। বিপরীতে প্রথমার্ধের তুলনায় আর্জেন্টিনার গতি কমে যায় অনেকটা। উল্লেখযোগ্য সুযোগ অবশ্য কেউই তৈরি করতে পারছিল না।  

৮৩তম মিনিটে ভালো একটা সুযোগ আসে স্বাগতিকদের সামনে। কিন্তু কাছ থেকে এদুয়ার্দো ভার্গাসের হেড ঠেকিয়ে দেন আর্জেন্টিনা গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেস। চার মিনিট পর সমতা টানার শেষ সুযোগটা পান ব্রেরেতন; কিন্তু তিনিও পারেননি দলকে পথ দেখাতে।

কাতারের টিকেট আগেই নিশ্চিত হওয়ায় বাছাইয়ের বাকি ম্যাচগুলো আর্জেন্টিনার জন্য মূলত দল গুছিয়ে নেওয়ার। দিনের প্রথম ম্যাচে একুয়েডরের সঙ্গে ১-১ ড্র করা ব্রাজিলের জন্যও তাই।

১৪ ম্যাচে ১১ জয় ও তিন ড্রয়ে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে তিতের দল। সমান ম্যাচে ৯ জয় ও ৫ ড্রয়ে আর্জেন্টিনার পয়েন্ট ৩২।

১৫ ম্যাচে সাত জয় ও তিন ড্রয়ে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে একুয়েডর। প্যারাগুয়ের মাঠে ১-০ গোলে জয়ী উরুগুয়ে সমান ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে আছে চার নম্বরে।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার সমান ১৪ ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে কলম্বিয়া। পেরুর পয়েন্টও সমান ১৭।

১৫ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে আছে চিলি।

এই অঞ্চলের ১০ দেশের বাছাই থেকে শীর্ষ চারটি দল কাতার বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার টিকেট পাবে। পঞ্চম স্থানে থাকা দলকে খেলতে হবে আন্তঃমহাদেশীয় প্লে অফ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক