ভবিষ্যতের সিদ্ধান্ত নিতে হলান্ডকে ‘চাপ দিচ্ছে’ ডর্টমুন্ড

বর্তমানের সেরা ফরোয়ার্ডদের একজন আর্লিং হলান্ডকে পেতে অনেক ক্লাবের আগ্রহ নিয়ে নিয়মিতই গণমাধ্যমে খবর আসে। তিনি অবশ্য এ বিষয়ে নিজে কখনও তেমন কিছু বলেননি। ক্লাবও ছাড়তে চায়নি তাকে। তবে প্রেক্ষাপট বদলে গেছে। এখন তার ক্লাব বরুশিয়া ডর্টমুন্ড তাকে ভবিষ্যৎ নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে চাপ দিচ্ছে বলে জানালেন নরওয়ের এই ফুটবলার।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Jan 2022, 07:43 AM
Updated : 15 Jan 2022, 09:32 AM

অস্ট্রিয়ার ক্লাব সালসবুর্কে এক বছরের ছোট্ট অধ্যায়ে নিজের জাত চেনানো হলান্ডকে ২০২০ সালের শুরুতে দলে টানে ডর্টমুন্ড। দলটিতে মানিয়ে নিতে একেবারেই সময় নেননি তিনি। বুন্ডেসলিগার ক্লাবটির হয়ে অভিষেক ম্যাচে বদলি নেমে করেন হ্যাটট্রিক। এরপর থেকে নিয়মিত সামর্থ্যের ঝলক দেখিয়ে হয়ে ওঠেন দলটির আক্রমণভাগের মূল অস্ত্র।

সেখানে ধারাবাহিক পারফরম্যান্সে ইউরোপের বড় বড় ক্লাবগুলোরও নজর কাড়েন তিনি। ২০২০-২১ মৌসুম শেষে রিয়াল মাদ্রিদসহ কয়েকটি ক্লাব তাকে পেতে আগ্রহী ছিল বলে তখন গণমাধ্যমে খবর আসে। তবে নিজেদের শক্তি কমে যাবে বলে তখন তাকে ছাড়তে প্রস্তুত ছিল না ডর্টমুন্ড।

চলতি মৌসুমেও দারুণ ছন্দে গোল করে চলেছেন ২১ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকার। জার্মানির শীর্ষ লিগে এবার এখন পর্যন্ত ১৩ ম্যাচ খেলে করেছেন তৃতীয় সর্বোচ্চ ১৫ গোল। সঙ্গে সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন পাঁচ গোল। এর মধ্যে গত শুক্রবার রাতে লিগে ফ্রেইবুর্কের বিপক্ষে দলের ৫-১ ব্যবধানের জয়ে দুটি গোল করেন তিনি।

ম্যাচটির পর নরওয়ের চ্যানেল ভিয়াস্পোর্টকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ক্লাবের দেওয়া চাপের বিষয় ও নিজের ভাবনা জানান হলান্ড।

“গত ছয় মাসে ডর্টমুন্ডের প্রতি সম্মান দেখাতেই আমি কিছু না বলার সিদ্ধান্ত নেই। কিন্তু ক্লাব এখন আমাকে ভবিষ্যৎ নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে চাপ দিচ্ছে।”

“আমি কেবল ফুটবল খেলতে চাই। কিন্তু ক্লাব তাড়া দিচ্ছে…আমার ভবিষ্যৎ নিয়ে। ফলে এখন আমাকে খুব শীঘ্রই একটা সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তারা (ডর্টমুন্ড) এটাই চায়। এর অর্থ হলো, এখন কিছু ঘটবে।”

বুন্ডেসলিগায় শীর্ষে থাকা বায়ার্ন মিউনিখের চেয়ে ৩ পয়েন্টে পিছিয়ে আছে ডর্টমুন্ড। শুক্রবারের জয়ের পর ১৯ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৪০। বায়ার্ন অবশ্য একটি ম্যাচ কম খেলেছে।

মৌসুমের বাকি সময়টার সূচি ঠাসা। শিরোপা লড়াইয়ে খুব গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। তাই এই সময়ে দলবদলের বিষয়ে না ভেবে ফুটবলে পূর্ণ মনোযোগ দিতে পারলে খুশি হতেন ডর্টমুন্ডের সঙ্গে ২০২৪ সাল পর্যন্ত চুক্তির মেয়াদ থাকা হলান্ড।

বাস্তবে সেটা আর পারছেন না চলতি মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২১ গোল করা এই তারকা।

“আমরা (মৌসুমের) কঠিন ধাপে আছি, সামনে অনেক ম্যাচ।”

“শুরু থেকেই বলে আসছি যে আমি ফুটবলে মনোযোগ দিতে চাই। কারণ এটা করতে পারলেই আমি আমার সেরা অবস্থায় থাকি। কিন্তু এখন সেটা পারছি না।”

পিএসজি থেকে কিলিয়ান এমবাপে ও ডর্টমুন্ড থেকে হলান্ডকে আগামী মৌসুমেই রিয়াল দলে টানতে জোর চেষ্টা চালাচ্ছে বলে মার্কাসহ কয়েকটি স্প্যানিশ গণমাধ্যমের খবর। বার্সেলোনাও নাকি তাদের ভঙ্গুর আক্রমণভাগকে শক্তিশালী করতে হলান্ডকে পেতে চায়। তাকে নিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের আগ্রহ নিয়েও খবর আছে।

হলান্ডের এই মন্তব্যের পর আসছে দিনগুলোতে তাকে ঘিরে গুঞ্জন স্বাভাবিক ডালপালা মেলবে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক