আমাদের জায়গা ইউরোপা লিগে নয়: বার্সা কোচ

ব্যর্থতায় ভরা মৌসুম শুরুর পর বার্সেলোনাকে পথ দেখানোর দায়িত্ব পড়ে শাভি এরনান্দেসের কাঁধে। তার হাত ধরে শুরুতে ভালো কিছুর সম্ভাবনা জাগলেও এরই মধ্যে আশার প্রদীপ নিভতে বসেছে। মাস না গড়াতেই বড়সড় ধাক্কা খেয়েছে তার দল; দুই দশক পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম রাউন্ড থেকে বাদ পড়ে গেছে তারা। কঠিন পরিস্থিতিতে নতুন যুগের আশা দেখালেন বার্সেলোনা কোচ। সাবেক স্প্যানিশ মিডফিল্ডারের মতে, ধাক্কাটি আগামীর পথচলায় তাদের জন্য টার্নিং পয়েন্ট হতে যাচ্ছে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Dec 2021, 09:56 AM
Updated : 9 Dec 2021, 10:26 AM

আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় বুধবার রাতে ‘ই’ গ্রুপের ম্যাচে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ৩-০ গোলে হেরে ইউরোপ সেরার মঞ্চ থেকে বিদায় নিয়েছে বার্সেলোনা। নেমে গেছে ইউরোপা লিগে।

একই সময়ে শুরু হওয়া অন্য ম্যাচে দিনামো কিয়েভকে ২-০ গোলে হারিয়ে এই গ্রুপের রানার্সআপ হয়ে নকআউট পর্বে উঠেছে বেনফিকা।

গ্রুপে ছয় ম্যাচের সবকটি জেতা বায়ার্নের পয়েন্ট ১৮। রানার্সআপ বেনফিকার পয়েন্ট ৮। ৭ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় বার্সেলোনা।

সাম্প্রতিক সময়ে নিজেদের পারফরম্যান্সের বিচারে শেষ রাউন্ডে বার্সেলোনার জন্য সমীকরণটা ছিল বেশ কঠিন। ফর্মের তুঙ্গে থাকা বায়ার্নকে তাদেরই মাঠে হারাতে হতো। অন্যথায় নির্ভর করতে হতো বেনফিকা ও দিনামো কিয়েভের মধ্যেকার অন্য ম্যাচের ফলে।

এর আগে সবশেষ বার্সেলোনা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছিল ২০০০-০১ আসরে। এসি মিলান ও লিডস ইউনাইটেডের পেছনে থেকে তৃতীয় হয়ে উয়েফা কাপে (এখনকার ইউরোপা লিগ) নেমে গিয়েছিল কাতালান ক্লাবটি।

আর ইউরোপের দ্বিতীয় সেরা প্রতিযোগিতাটিতে তারা সবশেষ খেলেছে ২০০৩-০৪ আসরে। ওই আসরে চতুর্থ রাউন্ডে সেল্টিকের বিপক্ষে হেরে বিদায় নিয়েছিল বার্সেলোনা।

দলের এই বিপর্যয়ে হতাশ শাভি প্রতিশ্রুতি দিলেন বার্সেলোনাকে আবারও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ফিরিয়ে আনার।

“বায়ার্ন ভালো খেলেছে, (ম্যাচে) তারাই সেরা। এই কঠিন বাস্তবতা আমাদের মেনে নিতে হবে। আমি খেলোয়াড়দের বলেছি যে এটি একটি টার্নিং পয়েন্ট। আজ থেকে একটি নতুন যুগ শুরু হলো এবং আমাদের বার্সাকে সেখানে নিয়ে যেতে হবে যেখানে দলটির থাকা উচিত, যা ইউরোপা লিগ নয়।”

“আমি হতাশ, কারণ এটিই আমাদের বাস্তবতা। আমরা অতীত ভুলে একেবারে নতুন করে শুরু করব। বার্সাকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ফেরাতে হবে। আমি আমার দায়িত্বটা অনুধাবন করছি। এখন আমাদের লড়াই করতে হবে এবং ইউরোপা লিগ জিততে হবে।”

গ্রুপে ছয় ম্যাচে মাত্র দুটি গোল করেছে কাতালান দলটি। নভেম্বরে কোচ হিসেবে শাভি দায়িত্ব নেওয়ার পর সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হারের তেতো স্বাদ পেল বার্সেলোনা। লা লিগায় গত শনিবার রিয়াল বেতিসের বিপক্ষে তারা হেরেছিল ১-০ গোলে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক