বেলজিয়ামকে হারিয়ে তৃতীয় ইতালি

স্পেনের বিপক্ষে হারের ধাক্কা সামলে জয়ে ফিরেছে ইতালি। বেলজিয়ামকে হারিয়ে উয়েফা নেশন্স লিগে তৃতীয় হয়েছে রবের্তো মানচিনির দল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Oct 2021, 02:57 PM
Updated : 10 Oct 2021, 03:44 PM

তুরিনের আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে রোববার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচটি ২-১ গোলে জিতেছে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। সবগুলো গোলই হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধে।

নিকোলা বারেল্লা ইতালিকে এগিয়ে নেওয়ার পর ব্যবধান বাড়ান দোমেনিকো বেরার্দি। শেষ দিকে একটি গোল শোধ করেন চার্লস ডে কেটেলায়েরে।

বেলজিয়াম জিততেও পারত, কিন্তু তাদের তিনটি প্রচেষ্টা ক্রসবার কিংবা পোস্টে লাগে।

বল দখলে পিছিয়ে থাকা ইতালি গোলের জন্য ১২টি শট নেয়, যার পাঁচটি ছিল লক্ষ্যে। আর বেলজিয়ামের ১৩ শটের চারটি লক্ষ্যে ছিল।

সেমি-ফাইনালে স্পেনের কাছে ২-১ গোলে হেরেছিল ইতালি। তাতে থেমে যায় তাদের বিশ্ব রেকর্ড ৩৭ ম্যাচের অপরাজেয় যাত্রা। শেষ চারের আরেক ম্যাচে ফ্রান্সের বিপক্ষে দুই গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর তিনটি হজম করে ৩-২ ব্যবধানে হেরেছিল বেলজিয়াম।

ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর দল বেলজিয়াম চোটের কারণে এই ম্যাচে পায়নি রোমেলু লুকাকু ও এদের আজারকে। কেভিন ডে ব্রুইনেকে বেঞ্চে রাখেন কোচ।

শুরুতে বল দখলে দুই দল সমানে-সমান থাকলেও পরিষ্কার সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না কেউই। অষ্টাদশ মিনিটে দারুণ সেভ করে জাল অক্ষত রাখেন থিবো কোর্তোয়া। আলগা বল পেয়ে ২৫ গজ দূর থেকে বেরার্দির শট বেলজিয়ামের ডিফেন্ডার জেসন দেনায়ের পায়ে লেগে জালে জড়াতে যাচ্ছিল। বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে ঠেকান রিয়াল মাদ্রিদ গোলরক্ষক।

২৫তম মিনিটে ভাগ্যের ফেরে গোল পায়নি বেলজিয়াম। মিচি বাতসুয়াইয়ের পাস ডি-বক্সের সামনে খুঁজে পায় আলেক্সিস সায়েলেমায়েকারর্সকে। এসি মিলানের এই মিডফিল্ডারের শট লাগে ক্রসবারে।

বিরতির আগে সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেন ফেদেরিকো চিয়েসা। মাঝমাঠ থেকে সতীর্থের লম্বা করে বাড়ানো বল ডি-বক্সের বাইরে পান তিনি। সামনে একমাত্র বাধা গোলরক্ষক। বক্সে ঢুকে তার শট এগিয়ে আসা কোর্তোয়ার পায়ে লেগে বাইরে দিয়ে যায়।

দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম মিনিটেই ইতালির সমর্থকদের উচ্ছ্বাসে ভাসান বারেল্লা। কর্নার ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে পারেনি বেলজিয়াম। ২০ গজ দূর থেকে জোরালো ভলিতে ঠিকানা খুঁজে নেন ইন্টার মিলানের মিডফিল্ডার।

৫৯তম মিনিটে বদলি নামেন ডে ব্রুইনে। পরের মিনিটে সমতায় ফিরতে পারত বেলজিয়াম। আবারও বাধা হয়ে দাঁড়ায় দুর্ভাগ্য। দুরূহ কোণ থেকে বাতসুয়াইয়ের জোরালো শট লাগে ক্রসবারে।

চার মিনিট পরই সফল স্পট কিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন বেরার্দি। ডি-বক্সে চিয়েসা ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি পায় ইতালি।

৮১তম মিনিটে ইয়ানিক কারাসকোর শট পোস্টে লাগে। নির্ধারিত সময়ের চার মিনিট বাকি থাকতে ব্যবধান কমায় বেলজিয়াম। কোর্তোয়ার লম্বা করে বাড়ানো বল ধরে ডে ব্রুইনে পাস দেন ডে কেটেলায়েরেকে। এগিয়ে আসা জানলুইজি দোন্নারুমার দুই পায়ের ফাঁক দিয়ে জালে বল পাঠান দ্বিতীয়ার্ধে বদলি নামা এই মিডফিল্ডার।

মিলানের সান সিরোয় রোববার রাতে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে মুখোমুখি হবে স্পেন ও ফ্রান্স।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক