তিন ঘণ্টা খেললেও আমরা গোল পেতাম না: পিকে

বার্সেলোনা্র জার্সিতে অনেক সাফল্য পাওয়া জেরার্দ পিকেকে এখন দেখতে হচ্ছে মুদ্রার উল্টো পিঠ, দলের ভঙ্গুর দশা। এতে আত্মবিশ্বাসও কমতে শুরু করেছে এই স্প্যানিশ ডিফেন্ডারের। সবশেষ আতলেতিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে দলের সাদামাটা পারফরম্যান্সের পর হতাশাভরা কণ্ঠে তিনি বলেন, ম্যাচটি যদি চলতেই থাকত, তবুও জালের দেখা পেতেন না তারা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 Oct 2021, 10:22 AM
Updated : 3 Oct 2021, 10:22 AM

ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোয় শনিবার রাতে লা লিগার ম্যাচে ২-০ গোলে জিতেছে দিয়েগো সিমেওনের দল। তুমা লিমাঁ দলকে এগিয়ে নেওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সাবেক বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড লুইস সুয়ারেস।

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে শেষ ছয় ম্যাচের মাত্র একটিতে জয়ের দেখা পেয়েছে কুমানের দল। লিগের পয়েন্ট টেবিলে প্রথম দুইয়ে থাকা মাদ্রিদের দুই দলের সঙ্গে তাদের ব্যবধান বেড়েই চলেছে। ইউরোপের মঞ্চেও চিত্রটা সুখকর নয়; গ্রুপ পর্বের প্রথম দুই ম্যাচেই তাদের উড়িয়ে দিয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ ও বেনফিকা।

অনেকের মতে, ক্লাবের ইতিহাসের সেরা তারকা লিওনেল মেসি চলে যাওয়ার পর থেকেই বার্সেলোনার বিপর্যয়ের শুরু। ফরাসি ফরোয়ার্ড অঁতোয়ান গ্রিজমানকেও তারা ধারে পাঠিয়েছে আতলেতিকো মাদ্রিদে। এছাড়াও আর্থিক দুরাবস্থায় দলটি ছেড়ে দিয়েছে বেশ কিছু তরুণ ও অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে মৌসুমের শুরু থেকে চোট সমস্যা। সব মিলিয়ে, ইউরোপের অন্যান্য বড় দলগুলোর থেকে কাতালান ক্লাবটির পিছিয়ে পড়াটা এখন দৃশ্যমান।

নিজেদের বাস্তবতা অনুধাবন করতে পারছেন পিকে। দুঃসময়ের এই ঘোরপাক থেকে বেরিয়ে আসা কঠিন বলেও মনে করেন স্পেনের ২০১০ বিশ্বকাপ জয়ী এই ডিফেন্ডার।

“আমরা ভুগছি, আমাকে সত্যটাই বলতে হবে। আমরা যথেষ্ট ভালো শুরু করেছিলাম, আমরা সাহসী ছিলাম; কিন্তু তারপর তারা দুটি বিশেষ পরিস্থিতি তৈরি করে দুটি গোল করল। আমরা হয়তো তিন ঘন্টা খেললেও গোল করতে পারতাম না।"

"এটাই একমাত্র সমস্যা নয়, আরও বেশ কিছু সমস্যা আছে। মানুষ দেখতে পাচ্ছে আমাদের কি ঘাটতি আছে। কিন্তু আমরা সমস্যা কাটিয়ে উঠব। কঠিন সময় যাচ্ছে, আমাদের অনেকেরই আগে এই অভিজ্ঞতা হয়নি। আমরা ঘুরে দাঁড়াতে চাই, কিন্তু তা সহজ নয়।"

ম্যাচে বার্সেলোনা দুটি গোলই হজম করে নিজেদের ভুলে। উভয় ক্ষেত্রেই তাদের থেকে বল কেড়ে নিয়ে প্রতি-আক্রমণে সাফল্য পায় লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা এবং দুবারই সফরকারীদের রক্ষণ হয়ে পড়ে উন্মুক্ত।

"দুটি গোল অনেকটা একই রকম ছিল। আমরা সেগুলো নিয়ে আলোচনা করব। আমরা এমনভাবে গোল হজম করেছি, যা কেউই পছন্দ করবে না।"

সাত ম্যাচে তিনটি করে জয় ও ড্রয়ে ১২ পয়েন্ট নিয়ে বার্সেলোনা আছে নবম স্থানে।

আট ম্যাচে পাঁচ জয় ও দুই ড্রয়ে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে আতলেতিকো। এক ম্যাচ কম খেলা রিয়াল মাদ্রিদ সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে শীর্ষে আছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক