প্যালেসকে উড়িয়ে শীর্ষেই লিভারপুল

আবারও জালের দেখা পেলেন মোহামেদ সালাহ। বর্তমান ক্লাবের হয়ে শত গোলের মাইলফলক স্পর্শ করলেন সাদিও মানে। তাদের নৈপুণ্যে আরেকটি দারুণ জয় পেল লিভারপুল। সফল পথচলায় এবার তারা ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে হারাল ক্রিস্টাল প্যালেসকে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 Sept 2021, 04:05 PM
Updated : 18 Sept 2021, 05:25 PM

অ্যানফিল্ডে শনিবার লিগের পঞ্চম রাউন্ডে ৩-০ গোলে জিতে লিগ টেবিলের শীর্ষস্থান মজবুত করেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। একটি করে গোল করেন মানে, সালাহ ও নাবি কেইটা।

বল দখলের পাশাপাশি আক্রমণেও আধিপত্য করা লিভারপুল ম্যাচে মোট ২৫টি শট নেয়, যার ১০টি ছিল লক্ষ্যে।

১২ শটের মাত্র দুটি লক্ষ্যে রাখতে পারা প্যালেস এগিয়ে যেতে পারতো ম্যাচের শুরুতেই। তবে লিভারপুল গোলরক্ষকের দৃঢ়তা আর নিজেদের দুর্ভাগ্যে সেটা হয়নি।

দ্বিতীয় মিনিটে উইলফ্রেড জাহার শট কোনোমতে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক আলিসন। পরের মিনিটেই ক্রিস্তিয়ান বেনতেকের হেড পোস্টে লাগলে ফের বেঁচে যায় স্বাগতিকরা।

এরপর একটু একটু করে চাপ বাড়াতে থাকে লিভারপুল। প্যালেস মাঝেমধ্যে পাল্টা আক্রমণে উঠলেও আধিপত্য করে ক্লপের দল। তবে সুযোগ নষ্ট হতে থাকে অনেক।

৩৮তম মিনিটে দিয়োগো জটা অবিশ্বাস্য এক মিস করেন। থিয়াগো আলকান্তারা হেড গোলরক্ষক ভিসেন্তে গুয়াইতা দারুণ নৈপুণ্যে রুখে দিলেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি, বল চলে যায় জটার পায়ে। পাঁচ গজ দূর থেকে কেবল একটা টোকার দরকার ছিল; কিন্তু ফাঁকায় দাঁড়িয়ে উড়িয়ে মারলেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড।

পাঁচ মিনিট পরই গোলের দেখা পায় লিভারপুল। কর্নারে সালাহর হেডে আরেকটি দুর্দান্ত সেভ করেন গুয়াইতা; কিন্তু এবারও বল হাতে রাখতে পারেননি তিনি। কাছ থেকে কোনাকুনি শটে ঠিকানা খুঁজে নেন মানে।

এই নিয়ে লিগে টানা দুই ও আসরে মোট তিন ম্যাচে গোল পেলেন মানে। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে লিভারপুলের জার্সিতে তার গোল হলো ১০০।

৬৮তম মিনিটে আবারও গুয়াইতার দুর্দান্ত ডাবল সেভে লড়াইয়ে থাকে প্যালেস। মুহূর্তের ব্যবধানে এই স্প্যানিয়ার্ড ব্যর্থ করে দেন কেইটা ও সালাহকে। ৭২তম মিনিটে পাল্টা আক্রমণে গোল পেতে পারতো সফরকারীরা। কিন্তু তাদের ফরাসি ডিফেন্ডার ওদসোন এদুয়া গোলমুখে বল নিয়ন্ত্রণেই নিতে পারেননি।

১০ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সালাহ। কর্নারে ভার্জিল ফন ডাইক হেড করতে লাফিয়ে ঠিকমতো বলে মাথা ছোঁয়াতে পারেননি। তার কাঁধে লেগে বলে যায় ছয় গজ বক্সের মুখে সালাহর পায়ে। বিনা বাধায় ডান পায়ের শটে লক্ষ্যভেদ করেন মিশরের এই ফরোয়ার্ড।

এই নিয়ে লিগে এখন পর্যন্ত হওয়া পাঁচ রাউন্ডের চারটিতে জালের দেখা পেলেন সালাহ। গত সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এসি মিলানের বিপক্ষেও জালের দেখা পেয়েছিলেন তিনি।

আর ৮৯তম মিনিটে সব অনিশ্চয়তার ইতি টানেন কেইটা। লিভারপুলের প্রথম প্রচেষ্টা এবার ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়েছিলেন গুয়াইতা; কিন্তু ডি-বক্সের বাইরে বল পেয়ে দুর্দান্ত ভলিতে ঠিকানা খুঁজে নেন গিনির সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার।

পাঁচ ম্যাচে চার জয় ও এক ড্রয়ে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে লিভারপুল।

দিনের আরেক ম্যাচে সাউথ্যাম্পটনের সঙ্গে ঘরের মাঠে গোলশূন্য ড্র করা ম্যানচেস্টার সিটি ১০ পয়েন্ট নিয়ে উঠেছে দুই নম্বরে।

একটি করে ম্যাচ কম খেলা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, চেলসি ও এভারটনের পয়েন্টও সমান ১০ করে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক