‘বড় পরীক্ষায়’ উতরে উচ্ছ্বসিত নেইমার

গোল করার রেশ না ফুরিয়ে যেতেই একজনকে হারিয়ে ফেলার ধাক্কা। চিলির বিপক্ষে কঠিন পরীক্ষায়ই পড়েছিল ব্রাজিল। তবে সেই পরীক্ষায় শেষ পর্যন্ত পার পেয়ে গেছে কোপা আমেরিকার বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। দ্বিতীয়ার্ধের প্রায় পুরোটা ১০ জন নিয়েও খেলেও জয়ের পর নেইমার কৃতিত্ব দিলেন দলের সবাইকে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 July 2021, 06:24 AM
Updated : 3 July 2021, 06:24 AM

রিও দে জেনেইরোয় কোপা আমেরিকায় কোয়ার্টার-ফাইনালের ম্যাচটিত দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকেই পাকুয়েতার গোলে এগিয়ে যায় ব্রাজিল। কিন্তু এরপরই গাব্রিয়েল জেসুস মাঠ ছাড়েন লাল কার্ড পেয়ে। নিজেদের দ্রুত গুছিয়ে রক্ষণে মন দিতে হয় তাদেরকে। দৃঢ়তাপূর্ণ ফুটবলের প্রদর্শনীতে শেষ পর্যন্ত গোলটা ধরে রেখে জয়ের আনন্দে মাঠ ছাড়তে পারে তারা।

লম্বা সময় ধরে স্রেফ গোল আটকে রাখার চেষ্টা ব্রাজিলিয়ান ফুটবলে খুব একটা দেখা যায় না। এই ম্যাচে তা করতে পেরে ম্যাচ শেষে নেইমার জানালেন দলের স্বস্তির কথা।

“আমরা এমন একটি চ্যালেঞ্জ জিতেছি, এই দলের ক্ষেত্রে যা খুব কম সময়ই হয়। আমাদের জন্য বড় পরীক্ষা ছিল এটি। জানতাম, কঠিন কিছু অপেক্ষা করছে আমাদের জন্য। তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো, আমরা জিতেছি ও সেমি-ফাইনালে উঠেছি।”

আগের ম্যাচগুলির ধারাবাহিকতায় এ দিনও দুর্দান্ত খেলেন নেইমার। চাপের মধ্যে নিজেদের মেলে ধরায় দলের সবার জন্য স্তুতি ঝরল তার কণ্ঠে।

“প্রতিটি দিনে নতুন নতুন পরীক্ষা আমাদের আরও শক্তিশালী করে তোলে। এতেই প্রমাণ হয়, যে কোনো পরিস্থিতির মোকাবেলা আমরা করতে পারি।”

“চিলি ভালো দল, দারুণ সব ফুটবলার আছে তাদের। একজন কম নিয়ে খেলা সবসময়ই কঠিন। আজকের জয়ে সবার কৃতিত্ব প্রাপ্য, ডিফেন্স, মিডফিল্ড, ফরোয়ার্ড, সবার।”

বাজেভাবে লাল কার্ড হজম করে দলকে বিপদে ফেলেছিলেন যিনি, সেই জেসুসের পাশেও দাঁড়ালেন নেইমার।

“ জেসুসের স্রেফ ভাগ্য খারাপ ছিল। ওর চোখ ছিল বলের দিকে, প্রতিপক্ষের ফুটবলারের দিকে নয়। দুর্ভাগ্যজনকভাবে তাকে লাল কার্ড দেখানো হয়।”

সেমি-ফাইনালে ব্রাজিলের সামনে থাকছে পেরু, আগামী মঙ্গলবার ম্যাচটি শুরু বাংলাদেশ সময় ভোর পাঁচটায়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক