মুক্তিযোদ্ধাকে উড়িয়ে জয়ে ফিরল সাইফ

টানা দুই হারের পর ঘুরে দাঁড়াল সাইফ স্পোর্টিং। তাদের আক্রমণাত্মক ফুটবলের সামনে দাঁড়াতে পারল না মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র। অনায়াসেই জিতল জামাল ভূইয়ার দল। 

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 May 2021, 05:20 PM
Updated : 11 May 2021, 05:41 PM

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচটি ৪-১ গোলে জিতেছে সাইফ। জোড়া গোল করেন জন ওকোলি। একবার করে জালের দেখা পান ইকেচুকে কেনেথ ও ইয়াসিন আরাফাত।

প্রথম লেগে মুক্তিযোদ্ধা সংসদকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল সাইফ স্পোর্টিং।

দুই নাইজেরিয়ানের মিলিত প্রচেষ্টায় একাদশ মিনিটে এগিয়ে যায় সাইফ স্পোর্টিং। সতীর্থের লম্বা ক্রস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এক ছুটে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন কেনেথ। গোলরক্ষক মাহফুজ হাসান প্রীতম পোস্ট ছেড়ে পথ আগলে দাঁড়ালে ছোট পাস বাড়ান গোলমুখে। জন ওকোলি স্রেফ টোকা দেওয়ার কাজটুকুই সারেন।

২৩তম মিনিটে একক প্রচেষ্টা ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ওকোলি। নিজেদের অর্ধ থেকে জামালের পাস ধরে বাঁ দিক দিয়ে গতির তোড়ে ডিফেন্ডারদের পেছনে ফেলে ডান পায়ের কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন এই নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড।

৪৪তম মিনিটে সাজন মিয়ার দৃষ্টিনন্দন গোলে ম্যাচে ফিরে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ। থ্রো ইনের পর একটু এগিয়ে সাজনের ডান পায়ের শট বাঁক খেয়ে দূরের পোস্ট দিয়ে জালে জড়ায়। গোলরক্ষক পাপ্পু হোসেন বুঝেই উঠতে পারেননি। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে কেনেথের গোলে ব্যবধান বাড়িয়ে নেয় সাইফ স্পোর্টিং।

দ্বিতীয়ার্ধেও চলতে থাকে আক্রমণ-প্রতি আক্রমণ; তবে দুই দলই ভুগছিল প্রতিপক্ষের রক্ষণে গিয়ে।

আক্রমণে একটু এগিয়ে থাকা সাইফ ৭৭তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়ায়। সিরোজদ্দিন রাখমাতুল্লায়েভের কর্নারে চমৎকার হেডে জাল খুঁজে নেন আরাফাত। এগিয়ে এসে বলের ফ্লাইট মিস করে বিপদটা ডেকে এনেছিলেন গোলরক্ষক প্রীতম।

ছয় মিনিট পর কমতে পারতো ব্যবধান। কিন্তু মুক্তিযোদ্ধার ফরোয়ার্ড ইউসুকে কাতোর শট একটুর জন্য লক্ষ্যে থাকেনি। বাকি সময়ে গোলের আর তেমন কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি কোনো দলই।

১৬ ম্যাচে অষ্টম জয়ে সাইফের পয়েন্ট হলো ২৬। লিগ টেবিলে ষষ্ঠ স্থানে আছে তারা।

ব্যর্থতার চক্রেই আটকে থাকল মুক্তিযোদ্ধা। সবশেষ ৫ ম্যাচে পেল চতুর্থ হারের স্বাদ। ১৬ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে ১১ নম্বরে আছে দলটি।

আরেক ম্যাচে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রকে ২-০ গোলে হারিয়ে ১৬ ম্যাচে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে উঠেছে চট্টগ্রাম আবাহনী। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে পিছিয়ে পঞ্চম স্থানে নেমে গেছে এক ম্যাচ কম খেলা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। ১৬ ম্যাচে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে সপ্তম স্থানে নেমে গেছে দ্বিতীয় লেগে টানা দুই ম্যাচ হারা শেখ রাসেল।

দিনের প্রথম ম্যাচে, আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের বিপক্ষে ৩-১ গোলে হেরে শিরোপা পুনরুদ্ধারের আশা মলিন হয়ে গেছে শেখ জামালের। ১৫ ম্যাচে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে শফিকুল ইসলাম মানিকের দলটি।

সমান ম্যাচে সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে এগিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আবাহনী লিমিটেড। শীর্ষে থাকা বসুন্ধরা কিংসের পয়েন্ট ৪৩।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক