বিদায়ী আগুয়েরোর জন্য গুয়ার্দিওলার ভালোবাসা

ক্যারিয়ারে ম্যানচেস্টার সিটি অধ্যায়ের বাকি আর মাত্র কয়েক সপ্তাহ। বিদায়বেলায় একাদশে ফিরে আবারও আলো ছড়ালেন সের্হিও আগুয়েরো। তার দারুণ পারফরম্যান্সেই ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে জয়ে শিরোপার আরও কাছে পৌঁছে গেছে দল। আর্জেন্টাইন তারকার প্রতি তাই আবারও মুগ্ধতা প্রকাশ করলেন কোচ পেপ গুয়ার্দিওলা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 May 2021, 06:16 PM
Updated : 1 May 2021, 06:16 PM

চোট, অসুস্থতা আর কোচের প্রচলিত নাম্বার নাইন ছাড়া দল সাজানোর প্রক্রিয়া-সব মিলিয়েই চলতি মৌসুমে খেলার খুব একটা সুযোগ হয়নি আগুয়েরোর। জুনে শেষ হতে যাচ্ছে সিটিতে তার এক দশকের ক্যারিয়ার।

প্যালেসের মাঠে শনিবার ২-০ গোলে জয় পাওয়া ম্যাচে শুরুর একাদশে সুযোগ মেলে ৩২ বছর বয়স এই ফরোয়ার্ডের।

সিটির সর্বোচ্চ গোলদাতা (২৫৮) আগুয়েরোকে নিয়ে মুগ্ধতার শেষ নেই গুয়ার্দিওলার। প্রিমিয়ার লিগে তার গোল হয়ে গেল ২৭৩ ম্যাচে ১৮২টি। বাকি চার ম্যাচে আর একটি গোল করতে পারলে প্রিমিয়ার লিগে এক দলের হয়ে ওয়েইন রুনির সর্বোচ্চ গোলের (১৮৩) রেকর্ড স্পর্শ করবেন তিনি।

ম্যাচ শেষে গুয়ার্দিওলার কথায় মনে হলো সেই সুযোগ পাবেন আগুয়েরো।

“কী দুর্দান্ত গোল। কী দারুণ অ্যাকশন। কী অসাধারণ খেলোয়াড়। মানুষ হিসেবেও সে খুব ভালো। সে ফেরায় আমরা খুশি। বাকি ম্যাচগুলো আমরা তার সঙ্গে উপভোগ করব। সে গোল করে নিজের মান দেখাল। একজন ব্যক্তি হিসেবে তাকে আমি ভালোবাসি।”

“সে মানুষ হিসেবে দুর্দান্ত। এবারের মৌসুমে আমরা তাকে খুব বেশি পাইনি। হয়তো সঠিক সময়েই তাকে ফিরে পেয়েছি। সে জানে তার একটি বিশেষ মেধা আছে।”

তিন মৌসুমে দ্বিতীয় শিরোপার লক্ষ্যে থাকা সিটি এদিন প্রথমার্ধে সুবিধা করতে পারেনি। দ্বিতীয়ার্ধে ডি-বক্সের মধ্য থেকে আগুয়েরোর নেওয়া ডান পায়ের দারুণ শটে এগিয়ে যায় দল। দুই মিনিট পর তরেসের গোলে লিগে প্রতিপক্ষের মাঠে টানা ১১তম ও সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা ১৯তম জয় নিশ্চিত হয় সিটির।

বাকি চার ম্যাচের একটিতে জিতলে অন্য কোনো হিসাব ছাড়াই শিরোপা জিতবে সিটি। আবার রোববার গতবারের চ্যাম্পিয়ন লিভারপুলের বিপক্ষে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড হেরে গেলেও শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যাবে গুয়ার্দিওলার দলের। দলটির হয়ে ১০ মৌসুমে যা হবে আগুয়েরোর পঞ্চম লিগ শিরোপা।

৩৪ ম্যাচে ২৫ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে সিটির পয়েন্ট ৮০। এক ম্যাচ কম খেলে ৬৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে তাদের নগর প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক