রক্ষণের পাশাপাশি আক্রমণভাগকেও দুষলেন কুমান

ম্যাচের শুরুর দিকে দলকে এগিয়ে নেওয়া লিওনেল মেসি মিনিট দশেক পর গোলরক্ষককে একা পেয়েও ব্যর্থ হন-গ্রানাদার বিপক্ষে এমন আরও কয়েকটি সুযোগ হাতছাড়া করে বার্সেলোনা। পরে অল্প সময়ের ব্যবধানে দুটি গোল খেয়ে হেরে যাওয়ায় ভীষণ হতাশ ও ক্ষুব্ধ দলটির কোচ রোনাল্ড কুমান। পরাজয়ের পেছনে দলের মনোযোগ হারানো ও রক্ষণের ভুলকে বড় কারণ হিসেবে দেখছেন তিনি।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 April 2021, 10:40 AM
Updated : 30 April 2021, 10:51 AM

লা লিগায় আগে কখনোই কাম্প নউয়ে না জেতা গ্রানাদা বৃহস্পতিবার রাতে ২-১ গোলে জিতে। ২০ মিনিটে দারুণ দুটি প্রতি-আক্রমণে জয় ছিনিয়ে নেয় তারা। দারউইন মার্চিস সমতা টানার পর ব্যবধান গড়ে দেন হোর্হে মোলিনা।

প্রতিপক্ষের কৃতিত্বের পাশাপাশি বার্সেলোনাও দায়ও আছে। দলটির হজম করা দুই গোলেই ফুটে ওঠে রক্ষণভাগের দুর্বলতা। প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি আক্রমণভাগও। পাশাপাশি, প্রায় ৮০ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে মাঠে আধিপত্য করে হঠাৎ করেই যেন মনোযোগ ছুটে গিয়েছিল তাদের। তখনই আঘাত হানে গ্রানাদা।

ম্যাচ শেষে মুভিস্টারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হারের কারণ খুঁজতে গিয়ে দ্বিতীয়ার্ধে মনোযোগ হারানোর বিষয়টি উল্লেখ করেন কুমান। তার মতে, মাঠের উভয় প্রান্তেই অদক্ষতার পরিচয় দিয়েছে দল।

“দ্বিতীয়ার্ধে আমরা মনোযোগ হারায় এবং রক্ষণে ভুলগুলো করে বসি। আমরা যে হেরে গেছি তা মেনে নিতে হবে, এটাই বাস্তবতা। ম্যাচটা জেতার সুযোগ আমাদের ছিল, কিন্তু এই হলো অবস্থা।”

“তারা গোল দুটি করার পর আমরা চেষ্টা করেছিলাম, কিন্তু এরপর খুব বেশি সুযোগ তৈরি করতে পারিনি। তারা শেষটা দারুণভাবে করেছে, আমরা সুযোগ তৈরি করতে পারিনি।”

বার্সেলোনা কোচ রোনাল্ড কুমান।

তিন পয়েন্ট হাতছাড়া তো হয়েই গেছে, এ নিয়ে ভেবে আর লাভ কি। কুমানও তাই আর ভাবতে চান না। আগামী রোববার স্বাগতিক ভালেন্সিয়ার বিপক্ষে খেলবে দল, ওই ম্যাচের প্রস্তুতিতে মনোযোগ দিতে চান এই ডাচ কোচ।

“এখন আমাদের রোববারের ম্যাচের জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে। আমরা এখনও শিরোপা দৌড়ে আছি এবং একটা সুযোগ আছে। এই হার মেনে নিয়ে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে এবং পরের ম্যাচের জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে।”

“আমাদের আরও পাঁচ ম্যাচ বাকি আছে। শিরোপা লড়াইয়ে থাকা প্রতিটা দলই সামনে কঠিন পরীক্ষায় পড়বে।”

জিতলে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠত কাতালান দলটি। লিগে সবশেষ ২৩ ম্যাচে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার হারল বার্সেলোনা এবং তাতে শিরোপা-ভাগ্য চলে গেছে অন্যের হাতে।

আসরে আর পাঁচ রাউন্ডের খেলা বাকি। শিরোপা লড়াইয়ে থাকা চার দলের পয়েন্ট ব্যবধান কেবল ৩।

৭৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আতলেতিকো মাদ্রিদ। সমান ৭১ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে যথাক্রমে রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা। ৭০ পয়েন্ট নিয়ে চারে সেভিয়া।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক