রাগ বেশিই দেখিয়ে ফেলেছি, কুমানের স্বীকারোক্তি

হাতে থাকা ম্যাচ হঠাৎ ছুটে যেতে বসেছিল। প্রতিপক্ষের চাপে ক্ষণিকের জন্য হলেও জেগেছিল পয়েন্ট হারানোর শঙ্কা। এমন সময় রক্ষণ ফাঁকা করে অস্কার মিনগেসা আক্রমণে ওঠায় ভীষণ রেগে যান বার্সেলোনা কোচ রোনাল্ড কুমান। কঠিন মুহূর্তে খেলোয়াড়ের এমন ভুল মানতে পারেননি তখন। মাঠেই ফুঁসতে দেখা যায় তাকে। পরে স্বীকার করলেন, রাগ একটু বেশিই দেখিয়ে ফেলেছিলেন।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 April 2021, 11:21 AM
Updated : 23 April 2021, 11:21 AM

ওই ভুলের খানিক পর মিনগেসাকে তুলেও নেন তিনি। তবে বদলি নামানোর পেছনে তরুণ ডিফেন্ডারের এক মুহূর্তের ওই ভুল কারণ নয় বলে ম্যাচ শেষে জানান কুমান।

লা লিগায় ঘরের মাঠে বৃহস্পতিবার গেতাফের বিপক্ষে লিওনেল মেসির জোড়া গোলে ম্যাচটি ৫-২ ব্যবধানে জেতে বার্সেলোনা।

প্রথমার্ধেই ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছিল বার্সেলোনা। বিরতির পরও শুরুটা খারাপ ছিল না তাদের। এরপর হঠাৎ করেই পেনাল্টি পেয়ে ৬৯তম মিনিটে ব্যবধান কমায় গেতাফে। ম্যাচে ফিরে খেলতে থাকে উজ্জীবিত ফুটবল। ওই সময় ভুলটি করেন মিনগেসা।

শেষ দিকে অবশ্য রোনালদ আরাহো ও অঁতোয়ান গ্রিজমানের গোলে বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে কাতালান দলটি।

মাঠ ছেড়ে ডাগআউটে যাওয়ার সময় সবার সঙ্গে হাত মেলান মিনগেসা। সে সময়ও পাথরের মতো মুখ করে বসে ছিলেন কুমান। উপেক্ষা করেন মিনগেসার বাড়ানো হাত। কিছুক্ষণ ইতস্তত করে পিছনে একটা আসনে গিয়ে বসেন এই তরুণ।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে অবধারিতভাবে ওঠে ওই ঘটনা। কুমানও মেনে নেন, তার দেখানো প্রতিক্রিয়া ছিল একটু বেশিই।

বার্সেলোনা কোচ রোনাল্ড কুমান। ছবি: বার্সেলোনা

“আমি হয়তো প্রতিক্রিয়া দেখাতে গিয়ে একটু বাড়াবাড়িই করে ফেলেছি। কারণ, সে দারুণ একটা মৌসুম কাটাচ্ছে। তবে একজন বার্সেলোনার খেলোয়াড় হিসেবে প্রতিটা ম্যাচেই শতভাগ সজাগ থাকতে হবে। এটা অবশ্যই কঠিন। কঠিন অস্কারের জন্য, পেদ্রির জন্যও যে আজ (বৃহস্পতিবার) স্বরূপে ছিল না…এবং আরাহো…তাদেরকে শিখতে হবে।”

আরেকজনকে সুযোগ দিতেই মিনগেসাকে তুলে নিয়েছিলেন বলে জানান কোচ।

“মিনগেসা প্রথমার্ধে চোট পেয়েছিল। নিশ্চিত ছিলাম না, তাকে তুলে নিতে হবে কি না। এই সিদ্ধান্তটা আমাদের আরও আগে নেওয়া উচিত ছিল।”

“রাগের কারণে তাকে তুলে নেইনি। অন্য প্রান্তে ফ্রেংকি ডি ইয়ংকে রেখে এবং সামুয়েল উমতিতিকে কিছুক্ষণ সুযোগ দেওয়ার জন্য এই সিদ্ধান্ত।”

পরে মিনগেসার সঙ্গে কথা বলে ব্যাপারটা মিটিয়ে নিয়েছেন বলে জানান কুমান।

“অস্কারকে নিয়ে আমি খুব খুশি। ওর সঙ্গে কথা বলেছি এবং কোনো সমস্যা নেই।”

৩১ ম্যাচে ২১ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে তিনে বার্সেলোনা। একটি করে ম্যাচ বেশি খেলা রিয়াল ও আতলেতিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট যথাক্রমে ৭০ ও ৭৩।

আতলেতিকোর বিপক্ষে ফিরতি লেগ বাকি থাকায় শিরোপাভাগ্য রয়েছে বার্সেলোনার হাতেই।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক