ফাইনালের আগে ভবিষ্যতের প্রশ্নে বিরক্ত কুমান

গেল সপ্তাহেও পরিস্থিতি ছিল ভিন্ন। লা লিগায় দারুণ ছন্দে এগিয়ে যাচ্ছিল দল। সপ্তাহ না ঘুরতেই কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হতে হলো বার্সেলোনা কোচ রোনাল্ড কুমানকে। কোপা দেল রের ফাইনালের আগে নিজের ভবিষ্যৎ নিয়ে ওঠা প্রশ্নে কিছুটা বিরক্তও হলেন তিনি। তবে স্পষ্ট করে বললেন, নিজের ভবিষ্যৎ নিয়ে মোটেও তিনি চিন্তিত নন।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 April 2021, 06:41 PM
Updated : 16 April 2021, 06:41 PM

স্প্যানিশ কাপ নামে পরিচিত প্রতিযোগিতাটির ফাইনালে শনিবার আথলেতিক বিলবাওয়ের মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা। সেভিয়ার লা কার্তুসা স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত দেড়টায়।

বছরের শুরুতে বিলবাওয়ের কাছে হেরেই বার্সেলোনার কোচ হিসেবে প্রথম শিরোপা জয়ের সুযোগ হাতছাড়া হয়েছিল কুমানের। এরপর কোয়ার্টার-ফাইনালের আগে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায় নিয়েছে দল। সবশেষ ক্লাসিকোয় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে হারের ক্ষত তো এখনও টাটকা, যা লিগ পুনরুদ্ধারের পথ করে তুলেছে কঠিন। ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে তাই উঠল কুমানের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন।

শিরোপাশূন্য একটি মৌসুম কাটানোর পর বার্সেলোনার জন্য ব্যর্থতার বৃত্ত ভেঙে বেরিয়ে আসার উপলক্ষ এই ম্যাচ। এর আগে কোচের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্নে তাই বিরক্ত কুমান।

“এটা কিছুটা বিরক্তিকর যে আমাকে এই ধরনের প্রশ্নের জবাব দিতে হবে। এই ম্যাচে হারলে কী হবে আর জিতলে কী হবে, তা আমি আগে থেকেই জানি।”

“আমরা ১৯ ম্যাচ অপরাজিত ছিলাম (ক্লাসিকোয় গত শনিবার ২-১ গোলে হারের আগ পর্যন্ত), আর এখন আমাকে আমার ভবিষ্যৎ নিয়ে উত্তর দিতে হবে। আমাকে এটা মেনে নিতে হবে, তবে এর সঙ্গে আমি একমত নই।”

ক্লাবটি বার্সেলোনা বলেই যে এমন প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হচ্ছে, সেটাও জানেন দলটির সাবেক এই তারকা খেলোয়াড়।

“এটা অদ্ভুত, কিন্তু এটাই আমার কাজ। আমি জানি, আমাকে এমন চাপের মধ্যেই কাজ করতে হবে এবং জানি কীভাবে এটা সামাল দিতে হয়।”

চলতি মৌসুমে এ নিয়ে চতুর্থবারের মতো বিলবাওয়ের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে বার্সেলোনা। সুপার কাপে হারলেও লিগে দুই বারই জিতেছে কুমানের দল।

দলের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে তাই নিজের ভবিষ্যৎ নয়, বরং কীভাবে শিরোপা জেতা যায় কেবল তাই নিয়েই ভাবছেন কুমান।

“ফাইনালটি ক্লাবের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, শিরোপা জয়ের সুযোগ সবসময়ই দারুণ।”

“আমি কখনোই আমার ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাবি না। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো, আমার সবটুকু শক্তি দলের জন্য ব্যয় করা যেন আমরা শিরোপা জিততে পারি।”

দুই সপ্তাহের ব্যবধানে দ্বিতীয় কোপা দেল রে ফাইনাল খেলতে যাচ্ছে বিলবাও। করোনাভাইরাসের কারণে ২০১৯-২০ আসরের ফাইনাল এক বছর পিছিয়ে হয়েছে চলতি মাসের শুরুর দিকে। সেই ম্যাচে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরেছিল মার্সেলিনো গার্সিয়ার দল।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক