কাতার বিশ্বকাপ: মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ, অভিবাসী শ্রমিকদের পাশে জার্মানি

২০২২ কাতার বিশ্বকাপের অবকাঠামো তৈরিতে কাজ করা অভিবাসী শ্রমিকদের সঙ্গে মানবাধিকার লঙ্ঘন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ অনেক আগে থেকেই। সম্প্রতি ব্রিটেনের শীর্ষস্থানীয় পত্রিকা ‘দ্য গার্ডিয়ান’ এ বিষয়ে প্রতিবেদন প্রকাশের পর আবার নতুন করে আলোচনা চলছে বিষয়টি নিয়ে। এরই প্রেক্ষিতে অভিবাসী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়িয়েছে জার্মানি ফুটবল দল। 

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 March 2021, 10:52 AM
Updated : 26 March 2021, 10:52 AM

বিশ্বকাপ বাছাইয়ে বৃহস্পতিবার রাতে ঘরের মাঠে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ৩-০ গোলে জয়ের ম্যাচ শুরুর আগে বিশেষ জার্সি পরেছিলেন জার্মানির খেলোয়াড়রা। সবাই কালো রঙের জার্সি পরে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়ান। জার্সিতে সাদা রঙে লেখা ছিল একটি করে ইংরেজি বর্ণ। যার পূর্ণ রূপ দাঁড়ায় ‘হিউম্যান রাইটস’ বা মানবাধিকার।

পরে দলটির মিডফিল্ডার লেয়ন গোরেটস্কা জার্মান একটি টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ব্যাখ্যা করেন কারণ।   

“সামনে বিশ্বকাপ আসছে এবং বিষয়টি (মানবাধিকার) নিয়ে আলোচনা হবে। দেখাতে চেয়েছি আমরা বিষয়টি এড়িয়ে যাচ্ছি না।”

গত বুধবার বিশ্বকাপ বাছাইয়ে জিব্রাল্টারের বিপক্ষে ৩-০ গোলে জয়ের ম্যাচের আগে একইভাবে প্রতিবাদ জানায় নরওয়ে ফুটবল দলও। তাদের খেলোয়াড়দের সাদা রঙের বিশেষ জার্সিতে লেখা ছিল, “মাঠে ও মাঠের বাইরে মানবাধিকার।”

গত মাসে গার্ডিয়ান এক প্রতিবেদনে জানায়, ১০ বছর আগে কাতার বিশ্বকাপ আয়োজনের সুযোগ পাওয়ার পর দেশটিতে অন্তত সাড়ে ৬ হাজার অভিবাসী শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার অবশ্য কোনোরকম মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে কাতার বিশ্বকাপ আয়োজকদের এক মুখপাত্র।

"২০২২ কাতার বিশ্বকাপের সঙ্গে সরাসরি সম্পর্কিত প্রকল্পগুলোতে শ্রমিকদের স্বাস্থ্য ও সুরক্ষার ব্যাপারে সবসময় আমরা স্বচ্ছ ছিলাম। ২০১৪ সালে নির্মাণকাজ শুরুর পর থেকে সেখানে কাজের সঙ্গে সম্পর্কিত তিনটি প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে এবং কাজের সঙ্গে সম্পর্কিত নয় এমন মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে ৩৫টি।”

পূর্বে বিভিন্ন ঘটনায় রাজনৈতিক মন্তব্য করায় বা কোনোরকম বিবৃতি দেওয়ায় খেলোয়াড় ও ফুটবল সংস্থাকে শাস্তি দিয়েছিল ফিফা। তবে এবার ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থার পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, বর্তমানে আলোচিত এই ঘটনায় কোনোরকম ব্যবস্থা নেওয়া হবে না।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক