মেসির ‘অনুপ্রেরণায়’ দ্বিতীয়ার্ধে জেগে ওঠে বার্সা

এলচের জমাট রক্ষণ আর নিজেদের ঝিমিয়ে পড়া ফুটবলে প্রথমার্ধে ধুঁকছিল দল। ঘুরে দাঁড়াতে বিরতিতে সতীর্থদের তাতিয়ে দেন লিওনেল মেসি। জোড়া গোল করে পথও দেখান তিনি। তাতেই দ্বিতীয়ার্ধে দেখা মেলে বার্সেলোনার চেনা রূপ। দারুণ জয়ের পর কোচ রোনাল্ড কুমান শোনালেন, দলকে জাগিয়ে তুলতে অধিনায়ক মেসির অনুপ্রেরণা জোগানোর কথা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Feb 2021, 10:23 AM
Updated : 25 Feb 2021, 10:23 AM

কাম্প নউয়ে বুধবার লা লিগার ম্যাচটিতে প্রথমার্ধে কেবল একটি উল্লেখযোগ্য সুযোগ তৈরি করতে পারে বার্সেলোনা। বিরতি থেকে ফিরেই দলকে এগিয়ে নেওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করা গোলটিও করেন মেসি। ৩-০ ব্যবধানের জয়ে জর্দি আলবার করা তৃতীয় গোলেও ছিল আর্জেন্টাইন তারকার অবদান।

ম্যাচ শেষে প্রথমার্ধের পারফরম্যান্স নিয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেন কুমান। তবে অধিনায়কের অনুপ্রেরণায় দ্বিতীয়ার্ধে দল ভালো প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে বলে মনে করেন এই ডাচ কোচ।

“সবাই দেখেছে, প্রথমার্ধে আমাদের খেলায় যথেষ্ট গতি বা উদ্যম ছিল না। তবে অধিনায়ক হিসেবে মেসির সতীর্থদের খেলায় মনোযোগ বাড়ানোর তাগিদ দেওয়াটা ছিল দারুণ ব্যাপার। প্রথমার্ধে আমাদের পারফরম্যান্স ছিল খুবই সাদামাটা।”

ঠাসা সূচির কারণে পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা ধরে রাখা কঠিন হয়ে পড়ে বলে মনে করেন কুমান।

“সবসময়ের মতো আমরা ভালো খেলতে চেয়েছিলাম, কিন্তু মাঝেমধ্যে প্রতিপক্ষ সবকিছু কঠিন করে তোলে। সাম্প্রতিক সময়ে প্রচুর ম্যাচ খেলায় আমরা কিছুটা ক্লান্তও ছিলাম। আমরা তো মানুষ, যন্ত্র নই। কখনও কখনও অন্যদের চেয়ে খারাপ খেলতেই পারি। তবে দ্বিতীয়ার্ধে আমরা আমাদের জাত চিনিয়েছি।”

বার্সেলোনা কোচ রোনাল্ড কুমান

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে দুই ম্যাচ পর জয়ে ফিরেছে বার্সেলোনা। গত সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পিএসজির বিপক্ষে ৪-১ গোলে হারের পাঁচ দিন পর লা লিগায় কাদিসের সঙ্গে ১-১ ড্র করেছিল মেসিরা।

এই জয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে থাকা আতলেতিকো মাদ্রিদের সঙ্গে তাদের ব্যবধান নেমে এসেছে ৫ পয়েন্টে। যদিও এক ম্যাচ কম খেলেছে দিয়েগো সিমেওনের দল।

২৪ ম্যাচে ৫২ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে রিয়াল মাদ্রিদ, ২ পয়েন্ট কম নিয়ে তিন নম্বরে বার্সেলোনা। ২৩ ম্যাচে ৫৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আতলেতিকো।

কাতালান দলটির সামনে আরও কঠিন পরীক্ষা অপেক্ষা করছে। আগামী শনিবার লিগে প্রতিপক্ষ পয়েন্ট তালিকার চার নম্বরে থাকা সেভিয়া। এর চার দিন পর একই দলের বিপক্ষে কোপা দেল রের সেমি-ফাইনালের ফিরতি লেগ। প্রথম লেগে সেভিয়ার মাঠে ২-০ গোলে হেরেছিল কুমানের দল।

এর এক সপ্তাহ পরেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পিএসজির মাঠে ঘুরে দাঁড়ানোর কঠিনতম চ্যালেঞ্জ। শেষ ষোলোর প্রথম লেগে বড় ব্যবধানে হেরে ছিটকে পড়ার শঙ্কায় আছে বার্সেলোনা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক