ফিরেই লিভারপুলের ত্রাতা মানে

পয়েন্ট তালিকার তলানীর দল নরিচ সিটির মাঠে পয়েন্ট হারাতে বসেছিল লিভারপুল। বদলি নেমে দলের ত্রাতা হলেন সাদিও মানে। সেনেগালের এই ফরোয়ার্ডের গোলে শিরোপা জয়ের পথে ২৫ পয়েন্টে এগিয়ে গেল ইয়ুর্গেন ক্লপের দল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Feb 2020, 07:27 PM
Updated : 16 Feb 2020, 10:27 AM

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে নরিচের মাঠে শনিবার ১-০ গোলে জিতেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। বাকি ১২ ম্যাচের পাঁচটিতে জিতলে অন্য কোনো হিসেব ছাড়াই ১৯৯০ সালের পর প্রথম লিগ শিরোপা উঠবে  ‘অল রেড’ নামে পরিচিত দলটির হাতে।

এই ম্যাচ দিয়ে চোট কাটিয়ে দলে ফেরেন সেনেগালের ফরোয়ার্ড সাদিও মানে ও অভিজ্ঞ ইংলিশ মিডফিল্ডার জেমস মিলনার। দুজনেই অবশ্য ছিলেন বেঞ্চে। ১ ফেব্রুয়ারি লিগে সবশেষ সাউথ্যাম্পটনকে ৪-০ গোলে হারানো ম্যাচের একাদশে একটি পরিবর্তন আনেন কোচ। মিডফল্ডার ফাবিয়ানোর জায়গায় সুযোগ পান নাবি কেইতা।

অগাস্টে ঘরের মাঠে নরিচকে ৪-১ গোলে হারিয়ে লিগ মৌসুম শুরু করা লিভারপুল প্রথমার্ধে তেমন কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি।

৫৮তম মিনিটে কেইতার ২০ গজ দূর থেকে নেওয়া শট কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন নরিচ গোলরক্ষক টিম ক্রুল। সেই কর্নারে নেওয়া ভার্জিল ফন ডাইকের হেডও রুখে দেন ক্রুল। পরের মিনিটে কেইতাকে ফিরিয়ে আবারও স্বাগতিক দলের ত্রাতা নেদারল্যান্ডসের এই গোলরক্ষক।

৬০তম মিনিটে অ্যালেক্স অক্সলেইড-চেম্বারলেইনের বদলে মানে ও জর্জিনিয়ো ভেইনালডামের জায়গায় ফাবিয়ানোকে নামান ক্লপ।

অবশেষে ৭৮তম মিনিটে জর্ডান হেন্ডারসনের মাঝমাঠ থেকে উঁচু করে বাড়ানো বল দারুণভাবে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে কাছের পোস্ট দিয়ে ডান পয়ের শটে লক্ষ্যভেদ করেন মানে। স্বস্তির জয় পায় সফরকারীরা।

২৬ ম্যাচে ২৫ জয় ও এক ড্রয়ে ৭৬ পয়েন্ট লিভারপুলের। এক ম্যাচ কম খেলে ৫১ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে ম্যানচেস্টার সিটি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক