লিলকে হারিয়ে শেষ ষোলোয় চেলসি

লিলের বিপক্ষে প্রথমার্ধেই দুই গোল দিয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় চেলসি। দ্বিতীয়ার্ধে এক গোল হজম করায় শঙ্কা জেগেছিল পয়েন্ট হারানোর। শেষ পর্যন্ত ব্যবধান ধরে রেখে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোয় পৌঁছেছে ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের দল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Dec 2019, 10:03 PM
Updated : 10 Dec 2019, 10:52 PM

স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ‘এইচ’ গ্রুপের ম্যাচে লিলকে ২-১ গোলে হারিয়েছে চেলসি। প্রথম দেখায় ফরাসি দলটির মাঠে একই ব্যবধানে জিতেছিল ইংলিশ ক্লাবটি।

ভালেন্সিয়ার মাঠে ১-০ গোলে হেরে আসর শুরু করা চেলসি পরের পাঁচ ম্যাচে তিন জয় ও দুই ড্রয়ে ১১ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ রানার্সআপ হলো।

ঘরের মাঠে ১৯তম মিনিটে গোছালো আক্রমণে এগিয়ে যায় চেলসি। উইলিয়ানের কাট-ব্যাক থেকে ছোট ডি-বক্সে বল পেয়ে ব্যাকহিলে জাল খুঁজে নেন ইংলিশ ফরোয়ার্ড ট্যামি আব্রাহাম।

স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে সব প্রতিযোগিতা মিলে শেষ তিন ম্যাচের প্রতিটিতেই জালের দেখা পেলেন তরুণ এই ফুটবলার। মৌসুমে তার মোট গোল হলো ১৩টি।

৩৫তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সেসার আসপিলিকুয়েতা। উইলিয়ানের কর্নারে মাথা ছুঁইয়ে কাছের পোস্ট দিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন স্প্যানিশ এই ডিফেন্ডার।

৭৮তম মিনিটে এক গোল শোধ করেন লোইক রেমি। ডি-বক্সের ভেতর থেকে বাঁ পায়ের শটে জাল খুঁজে নেন সাবেক এই চেলসি ফরোয়ার্ড। বাকিটা সময়ে আরও কয়েকটি ভালো আক্রমণ করলেও সমতাসূচক গোলের দেখা পায়নি সফরকারীরা।

একই সময়ে শুরু হওয়া আরেক ম্যাচে আয়াক্সের মাঠে ১-০ গোলে জেতা ভালেন্সিয়ার সংগ্রহও সমান ১১ পয়েন্ট। তবে চেলসির সঙ্গে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে গ্রুপ সেরা হয়েছে স্প্যানিশ ক্লাবটি।

১০ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে থেকে আসর শেষ করল গতবার সেমি-ফাইনালে খেলা ডাচ ক্লাব আয়াক্স। ফরাসি ক্লাব লিলের পয়েন্ট ১।

‘জি’ গ্রুপে আগেই শেষ ষোলো নিশ্চিত করা লাইপজিগের সঙ্গে ঘরের মাঠে ২-২ ড্র করে নকআউট পর্বে পৌঁছেছে লিওঁ। তিন জয় ও দুই ড্রয়ে ১১ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ সেরা লাইপজিগ। দুটি করে জয় ও ড্রয়ে লিঁওর সংগ্রহ ৮ পয়েন্ট।

গ্রুপের অন্য ম্যাচে বেনফিকার মাঠে ৩-০ গোলে হেরেছে জেনিত। সমান ৭ করে পয়েন্ট নিয়ে টুর্নামেন্ট শেষ করল দল দুটি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক