এখন সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে ভাবনা বাংলাদেশের

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের মূল পর্বের টিকেট নিশ্চিত করে মিয়ানমার থেকে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। তবে এখন মূল পর্ব নিয়ে নয়, কদিন পরই শুরু হতে যাওয়া সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে ভাবতে বসেছেন মারিয়া মান্ডা-আখিঁ খাতুনরা।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 March 2019, 01:22 PM
Updated : 5 March 2019, 01:22 PM

মিয়ানমারের মানডালায় বাছাইয়ের দ্বিতীয় রাউন্ডে ‘বি’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ফিলিপিন্সকে ১০-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দেওয়ার পর নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিক মিয়ানমারকে ১-০ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ।

দুই জয়ে মূল পর্ব নিশ্চিত করা বাংলাদেশ তৃতীয় ম্যাচে শক্তিশালী চীনের কাছে ৩-০ গোলে হেরে গ্রুপের রানার্সআপ হয়। আগামী সেপ্টেম্বরে থাইল্যান্ডে হবে মূল পর্বের খেলা।

মঙ্গলবারই দেশে ফিরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অনূর্ধ্ব-১৬ দলের অধিনায়ক মারিয়া জানান, মিয়ানমারে চীনের বিপক্ষে করা ভুলগুলো দ্রুত শুধরে নিতে চান তারা।  ভাবতে চান আগামী ১২ মার্চ নেপালের বিরাটনগরে শুরু হতে যাওয়া সাফের পঞ্চম আসর নিয়ে।

“আমরা ম্যাচ বাই ম্যাচ পরিকল্পনা করে মিয়ানমারে খেলেছি। নিজেদের কিছু ভুলের কারণে একটা ম্যাচ হারতে হয়েছে। মূল পর্বের আগে আমাদের হাতে ছয় মাস সময় আছে। এসময়ের মধ্যে ভুলগুলো শুধরে নিতে হবে।”

“থাইল্যান্ডের মূলপর্বে ভাল করতে হলে নিজেদের ভুলগুলো কাটিয়ে ওঠার পাশাপাশি সামর্থ্যের সেরাটা দিতে হবে। তবে এ পর্যায়ে এসে আমরা মূল পর্ব নয়, সাফ নিয়ে ভাবতে চাই। সাফের পর মূলপর্ব নিয়ে ভাববো।”

গতবার বাছাইয়ে প্রথম রাউন্ডে চ্যাম্পিয়ন হয়ে সরাসরি মূল পর্বে খেলেছিল বাংলাদেশ। এবার পেরুতে হয়েছে দুই ধাপ। প্রথম রাউন্ডে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর দ্বিতীয় রাউন্ডে নামার আগে কিছুটা ভয় কাজ করছিল বলে জানান ডিফেন্ডার আঁখি।

“মিয়ানমারে খেলা শুরুর আগে কিছুটা ভয়, জড়তা ছিল। ফিলিপিন্স ম্যাচের পর সব দূর হয়ে যায়। ওদের আগের খেলার কিছু ভিডিও দেখে বুঝেছিলাম আমরা জিততে পারব।”

“এরপর মিয়ানমার ম্যাচের আগে কোচের নির্দেশনা ছিল-প্রতিপক্ষ নিয়ে না ভেবে নিজেদের দিকে মনোযোগ দাও। আমরা নিজেদের খেলায় মনোযোগী ছিলাম। নিজেদের সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করেছি, তার সুফলও পেয়েছি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক