আফ্রিকার বর্ষসেরার লড়াইয়ে সালাহ, মানে ও আউবামেয়াং

আফ্রিকা মহাদেশের ২০১৮ সালের বর্ষসেরা ফুটবলারের চূড়ান্ত তালিকায় জায়গা পেয়েছেন মিশরের মোহামেদ সালাহ, সেনেগালের সাদিও মানে ও গ্যাবনের পিয়েরে-এমেরিক আউবামেয়াং।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Jan 2019, 02:52 PM
Updated : 1 Jan 2019, 02:52 PM

৮ জানুয়ারি সেনেগালের রাজধানী ডাকারে কনফেডারেশন অব আফ্রিকান ফুটবল (সিএএফ) আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে গত বছরের সেরা ফুটবলারের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে। বর্ষসেরা নির্বাচন করতে ভোট দেন এই অঞ্চলের দেশগুলোর জাতীয় দলের কোচ ও টেকনিক্যাল পরিচালকরা।

মানে ও আউবামেয়াংকে পেছনে ফেলে ২০১৭ সালের সেরা ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছিলেন সালাহ। ২০১৮ সালটাও দারুণ কেটেছে লিভারপুলের এই ফরোয়ার্ডের। গত মৌসুমে অ্যানফিল্ডে অভিষেকে ৩৮ ম্যাচের প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে এক মৌসুমে সর্বোচ্চ গোল করার কীর্তি গড়েন। সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে করেন ৪৪ গোল। লিগে সেরা চারে থাকার পাশাপাশি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ওঠে লিভারপুল।

চলতি মৌসুমেও দারুণ ছন্দে আছেন ২৬ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। এখন পর্যন্ত লিগে যৌথভাবে আউবামেয়াং ও হ্যারি কেইনের সমান সর্বোচ্চ ১৩ গোল করেছেন সালাহ। আসরের একমাত্র অপরাজিত দল হিসেবে শীর্ষে থেকে মৌসুমের প্রথম অর্ধেক শেষ করেছে লিভারপুল।

সালাহর ক্লাব সতীর্থ মানেরও বড় অবদান আছে লিভারপুলের সাম্প্রতিক সাফল্যে। সালাহ ও রবের্তো ফিরমিনোকে নিয়ে গড়ে তুলেছেন দারুণ এক আক্রমণভাগ। গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে গোল করেছিলেন মানে।

রাশিয়া বিশ্বকাপে নিজ নিজ দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন মানে ও সালাহ। অবশ্য গ্রুপ পর্ব পার হতে পারেনি কারো দলই।

২০১৮ সালের জানুয়ারিতে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড থেকে আর্সেনালে পাড়ি জমানো আউবামেয়াংও গত বছরটা ভালো কাটিয়েছেন। ২০১৫ সালে আফ্রিকার সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হওয়া এই ফরোয়ার্ড চলতি মৌসুমে এখন পর্যন্ত প্রিমিয়ার লিগের গোলদাতার তালিকায় যৌথভাবে সবার উপরে আছেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক