বের্নাবেউয়ে রিয়ালকে উড়িয়ে দিল সিএসকেএ মস্কো

বারবার ছন্দ হারানো রিয়াল মাদ্রিদ এবার আরও বড় বিব্রতকর হারের স্বাদ পেয়েছে। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টানা তিনবারের শিরোপাজয়ীদের তাদেরই মাঠে উড়িয়ে দিয়েছে সিএসকেএ মস্কো।  

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 Dec 2018, 07:52 PM
Updated : 12 Dec 2018, 11:14 PM

সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে বুধবার রাতে ‘জি’ গ্রুপে স্বাগতিকদের ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে মস্কোর ক্লাবটি। ইউরোপীয় ফুটবলে ঘরের মাঠে রিয়ালের এটাই সবচেয়ে বড় ব্যবধানে পরাজয়। প্রথম লেগে মস্কোর মাঠে ১-০ গোলে হেরেছিল প্রতিযোগিতার সর্বোচ্চ ১৩ বারের চ্যাম্পিয়নরা।

গত এক দশকে প্রথম দল হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে রিয়ালকে দুই লেগেই হারাল সিএসকেএ মস্কো। সবশেষ ২০০৮-০৯ মৌসুমে মাদ্রিদের ক্লাবটিকে এই তেতো স্বাদ দিয়েছিল ইউভেন্তুস।

গ্রুপের শীর্ষস্থান আগেই নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় লুকা মদ্রিচ, গ্যারেথ বেলসহ নিয়মিত একাদশের কয়েক জনকে বেঞ্চে রেখে একাদশ সাজান সান্তিয়াগো সোলারি।

ম্যাচের শুরু থেকে বাঁ দিক দিয়ে বারবার আক্রমণে ওঠা ভিনিসিউস জুনিয়রের নৈপুণ্যে ২৩তম মিনিটে প্রথম ভালো সুযোগ পায় রিয়াল। ডি-বক্সে ঢুকে একজনকে কাটিয়ে তরুণ ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের নেওয়া শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলরক্ষক। ফিরতি বলে মার্কো আসেনসিওর নেওয়া জোরালো শট লাগে ক্রসবারে।

খানিক পর দুই মিনিটের ব্যবধানে আরও দুটি দারুণ সুযোগ নষ্ট করেন আসেনসিও। ডি-বক্সের বাইরে থেকে তার জোরালো শট কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক। আর করিম বেনজেমার সঙ্গে একবার বল দেওয়া নেওয়া করে ডি-বক্সে ঢুকে গোলরক্ষক বরাবর শট নেন স্পেনের এই মিডফিল্ডার।

খেলার ধারার বিপরীতে ৩৭তম মিনিটে এগিয়ে যায় অতিথিরা। এক জনকে কাটিয়ে মিডফিল্ডার আর্নর সিগুর্দসনের বাড়ানো বল ডি-বক্সে ঢুকে এক ঝটকায় এক ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দিয়ে জোরালো শটে গোলটি করেন রাশিয়ার ফরোয়ার্ড ফিওদোর চালোভ।

প্রথম গোলের ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই দ্বিতীয় গোল খেয়ে বসে রিয়াল। ৪৩তম মিনিটে চালোভের কোনাকুনি শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান কোর্তোয়া; কিন্তু বল চলে যায় শেনিকভের পায়ে। ভলিতে বল ঠিকানায় পাঠিয়ে বের্নাবেউকে স্তব্ধ করে দেন রাশিয়ার এই ডিফেন্ডার।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে বেনজেমাকে বসিয়ে গ্যারেথ বেল ও কিছুক্ষণ পর মার্কোস লরেন্তেকে তুলে টনি ক্রুসকে নামান রিয়াল কোচ। প্রথমার্ধের মতো বল দখলে এগিয়ে থাকলেও পরিষ্কার সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না তারা।

এরই মাঝে ৭৩তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে অসাধারণ জয়ের পথ প্রশস্ত করে মস্কো। ডি-বক্সে সতীর্থের ছোট করে বাড়ানো বল ধরে কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন আইসল্যান্ডের মিডফিল্ডার সিগুর্দসন।

দুর্দান্ত এই জয়ের পরও ইউরোপের মঞ্চ থেকে ছিটকে পড়েছে সিএসকেএ মস্কো। আরেক ম্যাচে রোমাকে ২-১ গোলে হারিয়ে ইউরোপা লিগে জায়গা করে নিয়েছে চেক রিপাবলিকের ক্লাব ভিক্তোরিয়া প্লজেন।

৬ ম্যাচে ৪ জয়ে ১২ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ পর্ব শেষ করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। নকআউট পর্বে তাদের সঙ্গী রোমার পয়েন্ট ৯।

মস্কো ও প্লজেনের পয়েন্ট সমান ৭। তবে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে তৃতীয় হয়েছে প্লজেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক