বাংলাদেশের আক্রমণের চাপ নিতে পারিনি: ভুটান কোচ

বাংলাদেশের কাছে হেরে প্রথমবারের মতো সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ মহিলা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ওঠার স্বপ্ন গুঁড়িয়ে যাওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই হতাশ ভুটান কোচ। তবে প্রতিপক্ষের প্রশংসা করতে ভোলেননি সুং জায়ে লি। তার দল বাংলাদেশের আক্রমণের চাপ নিতে পারেনি বলে মনে করেন তিনি।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 August 2018, 05:36 PM
Updated : 16 August 2018, 06:09 PM

নিজেদের মাঠ থিম্পুর চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার সেমি-ফাইনালে বাংলাদেশের কাছে ৫-০ গোলে হারে ভুটান।  ম্যাচ শেষে বাংলাদেশের প্রশংসা করেন ভুটান কোচ লি।

“বাংলাদেশ খুবই শক্তিশালী, দক্ষ এবং অভিজ্ঞ দল। আমরা শুরুতে ভালো খেলেছিলাম কিন্তু পরে বাংলাদেশের আক্রমণের চাপ নিতে পারিনি।  উইংয়ে তারা খুবই শক্তিশালী ও ভারসাম্যপূর্ণ। এ কারণে আমরা তাদের কাছে বড় ব্যবধানে হেরেছি।”

গতবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথে নিজেদের মাঠে প্রাথমিক পর্বে ভুটানকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ।  এবার ভুটানের মাঠে বড় ব্যবধানে জেতায় দারুণ খুশি কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

“দল তাদের সহজাত খেলা খেলেছে। শুরুর ৩০ মিনিট দুই দলই ভালো খেলেছে; কিন্তু আমরা শুরু থেকে আক্রমণাত্মক খেলেছি। আর গোল পাওয়ার পর মেয়েরা আরও গোছালো, গতিময় ফুটবল খেলে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয়।”

“ভুটান এখন উন্নতি করছে কিন্তু তারা শুরু থেকে রক্ষণাত্মক খেলেছে। আমাদের আক্রমণের চাপে তাদের আত্মবিশ্বাস ভেঙে যায়।  ফাইনালে ওঠায় আমি মেয়েদের নিয়ে খুবই খুশি।  এবারও আমাদের শেষ লক্ষ্য চ্যাম্পিয়ন হওয়া।”

দলের জয়ে একটি করে গোল করেন আনাই মোগিনি, আনুচিং মোগিনি, তহুরা খাতুন, সাজেদা আক্তার রিপা ও সাজেদা খাতুন। দলের জয়ে অবদান রাখতে পেরে দুই জমজ বোন আনাই-আনুচিংয়ের কথাও হলো একই রকম।

“আমরা দুজনে খুব খুশি যে আমরা দুই বোনই ম্যাচে গোল করেছি এবং দল জিতে ফাইনালে উঠেছে। । আমাদের শেষ লক্ষ্য ফাইনাল জেতা; শিরোপা উচিঁয়ে ধরা।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক