অনন্য কীর্তিতে উদ্বেল জিদান

রিয়াল মাদ্রিদকে টানা তৃতীয়বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতানোর পর উচ্ছ্বাস বাঁধ মানছে না জিনেদিন জিদানের। ফরাসি কোচের মতে, তার শিষ্যরা এখনও ঠিক বুঝে ওঠতে পারছে না, কী অর্জন করেছে তারা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 May 2018, 11:23 AM
Updated : 27 May 2018, 11:23 AM

শনিবার রাতে কিয়েভে লিভারপুলকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ত্রয়োদশ বারের মতো ইউরোপ সেরার শিরোপা জিতে রিয়াল। প্রতিযোগিতাটির আধুনিক সংস্করণে প্রথম দল হিসেবে টানা তিনবার শিরোপা জিতল স্পেনের সবচেয়ে সফল ক্লাবটি। 

করিম বেনজেমার গোলে রিয়াল প্রথমে এগিয়ে যাওয়ার পর সমতা ফেরান লিভারপুলের সাদিও মানে। এরপর বদলি হিসেবে নেমে জোড়া গোল করে ম্যাচের ফল নির্ধারণ করে দেন গ্যারেথ বেল।

প্রতিযোগিতার ইতিহাসে ১৯৭৪-৭৬ পর্যন্ত টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন হওয়া বায়ার্ন মিউনিখের পর প্রথম দল হিসেবে ওই কীর্তি গড়লো জিদানের শিষ্যরা।

২০১৬ সালে রিয়ালের কোচ হিসেবে রাফায়েল বেনিতেসের স্থলাভিষিক্ত হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে ছিটকে পড়ার অভিজ্ঞতা হয়নি জিদানের। সব মিলিয়ে এ নিয়ে নবম শিরোপা জিতলেন তিনি। লিভারপুলকে হারানোর পর ফরাসি এই কোচের অভিব্যক্তিতে শুধুই উচ্ছ্বাস।

বিটি স্পোর্টসকে জিদান বলেন, "আমার খুব ভাল লাগছে।…এই ক্লাব ও দলের হয়ে তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতা দারুণ কিছু। এটা এক অবিশ্বাস্য অনুভূতি। কী অর্জন করেছি তা এখনও পুরোপুরি বুঝে উঠতে পারিনি আমরা।"

মৌসুমে রিয়ালের পারফরম্যান্সে ছিল ধারাবাহিকতার অভাব। কোপা দেল রে থেকে আগেভাগে ছিটকে পড়ার পর লিগের শিরোপা লড়াইয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনাকে কোনো চ্যালেঞ্জই জানাতে পারেনি তারা। তবে ইউরোপ সেরার মুকুট ধরে রেখে মৌসুম শেষ করতে পারায় ভীষণ খুশি কোচ।

"এটাই এই ক্লাবের স্ট্যাটাস। এটা কিংবদন্তিতুল্য একটি ক্লাব। এটা এমন একটি ক্লাব যারা ১৩ বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছে। অবশ্যই, এই ইতিহাসের অংশ হতে পেরে আমি খুবই খুশি।"

ইস্কোর বদলি হিসেবে মাঠে নামার কিছুক্ষণের মধ্যেই চমৎকার বাইসাইকেল কিকে দলকে ফের এগিয়ে নেন বেল। পরে জার্মান গোলরক্ষক লরিস কারিয়ুসের ভুলে জয় নিশ্চিত করা নিজের দ্বিতীয় গোল পেয়ে যান ওয়েলস ফরোয়ার্ড। শিষ্যর প্রথম গোলটি যেন চোখে লেগে আছে জিদানের। 

"গ্যারেথের গোল ছিল খুবই চমৎকার, তাকে অভিনন্দন।"

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক