২০০ মিটারে সেরা রউফ-শিরিন

জাতীয় অ্যাথলেটিক্সের ২০০ মিটার স্প্রিন্টে প্রথমবারের মতো সেরা হয়েছেন আব্দুর রউফ। দুই মৌসুম পর এই ইভেন্টের মেয়েদের বিভাগে মুকুট ফিরে পেয়েছেন শিরিন আক্তার।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 Dec 2017, 01:40 PM
Updated : 22 Dec 2017, 01:48 PM

ইলেক্ট্রনিক টাইমারে ইভেন্ট আয়োজনের সম্ভাবনা ছিলই। প্রতিশ্রুতি রেখেছেন অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের কর্মকর্তারা।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুক্রবার ২১ দশমিক ৭৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে সেরা হন রউফ। গত সামার অ্যাথলেটিক্সে ২১ দশমিক ৬০ সেকেন্ড সময় নিয়ে সেরা হয়েছিলেন সাইফুল ইসলাম। আর গত জাতীয় অ্যাথলেটিক্সে ২১ দশমিক ৫১ সেকেন্ড সময় নিয়ে সেরা হয়েছিলেন শরিফুল ইসলাম।

চিকুনগুনিয়ার কারণে গত সামার অ্যাথলেটিক্সে দৌড়াতে পারেননি রউফ। ২৫ বছর বয়সী নৌবাহিনীর এই অ্যাথলেটের লক্ষ্য, সামনের এসএ গেমসে সোনা জয়।

“তিন মাসের প্রস্তুতি নিয়ে এবার প্রথম ২০০ মিটারে অংশ নিলাম। রিলে ১০০ মিটার ও ২০০ মিটারে অংশ নেব। এই ইভেন্টগুলোতেও সোনা জিততে চাই। সামনের এসএ গেমসেও পদক জিততে চাই। নৌবাহিনী আমাদের যে সুবিধা দেয়, তাতে পদক জেতা সম্ভব।”

২৫ দশমিক ৫৭ সেকেন্ডে দৌড় শেষ করে ২০০ মিটারে মুকুট ফিরে পান শিরিন। জাতীয় অ্যাথলেটিক্সের গত আসরে ২৪ দশমিক ৪৬ সেকেন্ড সময় নিয়ে সেরা হয়েছিলেন সোহাগী আক্তার। গত সামার অ্যথলেটিক্সেও সোহাগী প্রথম হন ২৫ দশমিক ১০ সেকেন্ডে দৌড় শেষ করে। মুকুট ফিরে পেলেও নিজের টাইমিং নিয়ে খুশি নন শিরিন।

“টাইমিং ভালো হয়নি। তবে ১০০ মিটারে ভালো হবে। ওটাই আমার মূল ইভেন্ট। আশা করছি, টানা ষষ্ঠ বারের মতো পদক জিততে পারব।”

জাতীয় পর্যায়ে ডিসকাস থ্রোয়ে (চাকতি নিক্ষেপ) নিজের রেকর্ড ভেঙেছেন আজহারুল ইসলাম। গড়েছেন ৪৪ দশমিক ৩৭ মিটারের নতুন রেকর্ড। ২০০৬ সালে ৪৪ দশমিক ০৬ মিটারের আগের রেকর্ডটি গড়েছিলেন তিনি। অবশ্য জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মিলিয়ে ২০১০ সালের এসএ গেমসে ৪৪ দশমিক ৯৮ মিটার তার সেরা।

জাতীয় পর্যায়ে ৩২ বার ডিসকাস থ্রোয়ে সেরা হওয়া আজহার আগামীর লক্ষ্যটাও জানালেন।

“নিজে অনুশীলন করে যদি জাতীয় রেকর্ড গড়া যায়। তবে টানা এক বছর নিরবিচ্ছিন্ন ক্যাম্প করে এএসএ গেমসে স্বর্ণ জেতা সম্ভব। আশা আছে আরও পাঁচ বছর খেলা চালিয়ে যাওয়ার।”

“১৯৯৬ সাল থেকে স্বর্ণ পাওয়া শুরু, মাঝে তিনটি আসরে (২০১৩, ২০১৫ ও ২০১৭-সামার অ্যাথলেটিকস) স্বর্ণ পাইনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক