আর্জেন্টিনার প্রতি সহানুভূতি নেই ব্রাজিল দলের

রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব থেকে ছিটকে পড়ার শঙ্কায় থাকা আর্জেন্টিনার প্রতি কোনো সহানুভূতি নেই ব্রাজিল দলের সদস্যদের। কোচ তিতে বরং মনে করিয়ে দিয়েছেন, যেমন কর্ম, তেমন ফল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Oct 2017, 12:56 PM
Updated : 10 Oct 2017, 06:08 PM

পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল অনেক আগেই বাছাইপর্ব থেকে সবার আগে ২০১৮ সালের বিশ্বকাপ নিশ্চিত করে ফেলেছে। অন্যদিকে তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনা ১৯৭০ সালের আসরের পর প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ না খেলতে পারার শঙ্কায়।

সবার আগে বাছাইপর্ব পেরিয়ে বিশ্বকাপে ওঠা ব্রাজিল শেষ রাউন্ডে ঘরের মাঠে চিলির বিপক্ষে খেলবে। এ ম্যাচে তিতের দলের হারানোর কিছু নেই; কিন্তু এর ফলের উপর কিছুটা আর্জেন্টিনার ভাগ্য নির্ভর করছে। একই সময়ে হতে যাওয়া এ ম্যাচে চিলি জিততে না পারলে আর্জেন্টিনা নিজেদের ম্যাচে একুয়েডরকে হারালে শীর্ষ চারে থেকে সরাসরি বিশ্বকাপ খেলার টিকেট পাবে।

ছিটকে পড়ার শঙ্কায় থাকা আর্জেন্টিনার প্রসঙ্গে সোমবার তিতে বলেন, “বাছাইপর্বে ওঠা একটা ম্যাচের বিষয় নয়, পুরো প্রতিযোগিতার বিষয়।”

“গতকাল, আমরা একে অপরকে ধন্যবাদ দিয়েছি কারণ আমরা আগেই বিশ্বকাপে উঠে গেছি। অন্যদের জন্য এখন কি অবস্থা, আমি কল্পনা করতে পারছি না। নিশ্চয় তাদের ঘুমাতে কষ্ট হচ্ছে। অন্যরা যে কাজ করবে তার ফল পাবে।”

ব্রাজিলের কোচের মতো স্ট্রাইকার গাব্রিয়েল জেসুসও একইরকম কথা বলেছেন।

“মেসির দক্ষতা আর আর্জেন্টিনার গুরুত্ব সম্পর্কে সবাই জানে। তারা যেখানে আছে সেখানেই যদি থাকে তাহলে সেটা তারা যা করেছে তার কারণে। অবশ্যই, আপনারা মেসির কথা বলবেন, ইতিহাসের অন্যতম সেরা ফুটবলার। তবে আমাদের শুধু নিজেদের নিয়েই ভাবতে হবে।”

ব্রাজিলের ডিফেন্ডার মিরান্দা অন্যদের নিয়ে ভাবতেই রাজি নন।

“ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা কিংবা জার্মানিকে ছাড়া একটি বিশ্বকাপ স্বাভাবিকভাবে কিছুটা আকর্ষণ হারাবে। কিন্তু আমাদের লক্ষ্য বিশ্বকাপে ওঠা আর আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বীদের নিজেদেরই নিজেদের অবস্থা নিয়ে ভাবা উচিত।”

বাছাইপর্বের শীর্ষে থাকা ব্রাজিলের পয়েন্ট ৩৮। দ্বিতীয় স্থানে থাকা উরুগুয়ের পয়েন্ট ২৮। ২৬ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে চিলি। কলম্বিয়ার পয়েন্টও ২৬, তাদের গোল পার্থক্যও সমান, তবে কম গোল করায় পিছিয়ে কলম্বিয়া।

পঞ্চম স্থানে থাকা পেরুর পয়েন্ট ২৫। আর্জেন্টিনার পয়েন্টও তাই; দুই দলের গোল ব্যবধানও সমান। তবে কম গোল করায় পিছিয়ে আছে হোর্হে সাম্পাওলির দল।

রাশিয়া যাওয়ার সম্ভাবনা আছে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে থাকা প্যারাগুয়েরও।

এই অঞ্চল থেকে সেরা চার দল সরাসরি খেলবে আগামী বছরের বিশ্বকাপে। পঞ্চম দলটির সুযোগ পেতে হলে প্লে-অফ খেলে জিততে হবে ওশিয়ানিয়া অঞ্চলের চ্যাম্পিয়ন নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে।

বিশ্বকাপ ভাগ্য অবশ্য নিজেদের হাতেই আছে আর্জেন্টিনার। শেষ রাউন্ডে তাদের উপরে থাকা দুই দল পেরু ও কলম্বিয়া বুধবার একই সময়ে মুখোমুখি হবে। এই ম্যাচ ড্র হলে আর্জেন্টিনা একুয়েডরকে হারাতে পারলে সরাসরিই পাবে রাশিয়ার টিকেট।

আর আর্জেন্টিনার জয়ে পেরু ও কলম্বিয়ার মধ্যে যারা হারবে তারা চলে যাবে আর্জেন্টিনার নিচে। ফলে অন্য সব ম্যাচে যে ফলই হোক না কেন আর্জেন্টিনা জিততে পারলে অন্তত পঞ্চম স্থানে থেকে পাবে প্লে-অফ খেলার সুযোগ।

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে কিটোর ২ হাজার ৮৫০ মিটার উচ্চতার কিটোতে বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে পাঁচটায় শুরু হবে আর্জেন্টিনা-একুয়েডর ম্যাচ। একই সময়ে হবে ব্রাজিল-চিলিসহ শেষ রাউন্ডের বাকি ম্যাচগুলো।  

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক