‘মেসি একা সব করতে পারবে না’

বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসিসহ আরও অনেক তারকা খেলোয়াড়ে গড়া দল নিয়েও বিশ্বকাপে উঠতে না পারার শঙ্কায় পড়েছে আর্জেন্টিনা। শেষ পর্যন্ত তারা রাশিয়া বিশ্বকাপ খেলতে না পারলেও পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলারের সাফল্যমণ্ডিত ক্যারিয়ারে কোনো দাগ পড়বে না বলে মনে করেন উরুগুয়ের কোচ অস্কার তাবারেস।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Oct 2017, 11:00 AM
Updated : 10 Oct 2017, 06:05 PM

তাবারেসের মতে, আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপে তুলতে সবকিছু একা করতে পারবেন না বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড।

২০১৪ সালের বিশ্বকাপের রানার্সআপ আর্জেন্টিনা এবার বাছাইপর্ব থেকে ছিটকে পড়ার শঙ্কায় রয়েছে।

গত সপ্তাহে নিজেদের মাঠে পেরুর সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করার পর পয়েন্ট টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে নেমে গেছে আর্জেন্টিনা। ওই ম্যাচে মেসির একটি প্রচেষ্টা পোস্টে লাগে। আরও তিনটি গোলের সুযোগ তৈরি করেছিলেন তিনি; কিন্তু তার সতীর্থরা কাজে লাগাতে পারেনি।

শেষ পর্যন্ত যদি আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপে উঠতে না পারে, তাহলে সেটা মেসির ক্যারিয়ারে কোনো দাগ ফেলবে কি-না, এমন প্রশ্নের জবাবে তাবারেস বলেন, “এটাকে আমি একটা দাগ হিসাবে দেখি না এবং বিষয়টা এমন হওয়া উচিতও নয়।”

“ফুটবল ইতিহাসে অনেক অসাধারণ খেলোয়াড় আছে যারা বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়নি। আর সেজন্যে তাদের ক্যারিয়ারে কোনো দাগ পড়েনি, অন্তত আমার কাছে নয়।”

“তাছাড়া মেসি এখনও খেলছে। কি হবে আপনি বলতে পারেন না। বাছাইপর্ব পার হতে আর্জেন্টিনা সমস্যায় পড়েছে। কিন্তু তারা যদি উঠতে পারে তাহলে তারা বিশ্বকাপ জেতায় ফেভারিট হবে।”

“সে অনেক বড় খেলোয়াড়, কিন্তু সে একা সবকিছু করতে পারবে না। এটা একটা দলীয় খেলা।”

“ফুটবল সহজ নয় এবং সবসময় সেরা খেলোয়াড়রা একা সবকিছু করতে পারে না।…আপনারা যদি মেসির পুরো ক্যারিয়ারের পরিসংখ্যান দেখেন, সেগুলো চমৎকার। আর ফুটবলের ইতিহাসে জায়গা পেতে সেগুলো যথেষ্ট।”

বাছাইপর্বের শেষ রাউন্ডে বাংলাদেশ সময় বুধবার সকাল সাড়ে পাঁচটায় একুয়েডরের মাঠে খেলতে নামবে আর্জেন্টিনা।

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাইপর্বের শীর্ষস্থানধারী ব্রাজিলের পয়েন্ট ৩৮। দ্বিতীয় স্থানে থাকা উরুগুয়ের পয়েন্ট ২৮। ২৬ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে চিলি। কলম্বিয়ার পয়েন্টও ২৬, তাদের গোল পার্থক্যও সমান, তবে কম গোল করায় পিছিয়ে কলম্বিয়া।

পঞ্চম স্থানে থাকা পেরুর পয়েন্ট ২৫। আর্জেন্টিনার পয়েন্টও তাই; দুই দলের গোল ব্যবধানও সমান। তবে কম গোল করায় পিছিয়ে আছে হোর্হে সাম্পাওলির দল।

এই অঞ্চল থেকে সেরা চার দল সরাসরি খেলবে আগামী বছরের বিশ্বকাপে। পঞ্চম দলটির সুযোগ পেতে হলে প্লে-অফ খেলে জিততে হবে ওশিয়ানিয়া অঞ্চলের চ্যাম্পিয়ন নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে।

অবশ্য বিশ্বকাপ ভাগ্য নিজেদের হাতেই আছে আর্জেন্টিনার। শেষ রাউন্ডে তাদের উপরে থাকা দুই দল পেরু ও কলম্বিয়া বুধবার একই সময়ে মুখোমুখি হবে। এই ম্যাচ ড্র হলে আর্জেন্টিনা একুয়েডরকে হারাতে পারলে সরাসরিই পাবে রাশিয়ার টিকেট।

আর আর্জেন্টিনার জয়ে পেরু ও কলম্বিয়ার মধ্যে যারা হারবে তারা চলে যাবে আর্জেন্টিনার নিচে। ফলে অন্য সব ম্যাচে যে ফলই হোক না কেন আর্জেন্টিনা জিততে পারলে অন্তত পঞ্চম স্থানে থেকে পাবে প্লে-অফ খেলার সুযোগ।

আবার একই সময়ে হতে যাওয়া ম্যাচে ব্রাজিলের মাঠে চিলি জিততে না পারলে আর্জেন্টিনা নিজেদের ম্যাচে জিতলে শীর্ষ চারে থেকে সরাসরি বিশ্বকাপ খেলার টিকেট পাবে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক