'ইচ্ছা করে আর্জেন্টিনার ক্ষতি করবে না ব্রাজিল'

সরাসরি রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকেট পেতে বাছাই পর্বের শেষ রাউন্ডে আর্জেন্টিনার শুধু জিতলেই হবে না, তাকিয়ে থাকতে হবে ব্রাজিল-চিলি ম্যাচের দিকেও। এই অবস্থায় পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা ইচ্ছা করে চির প্রতিদ্বন্দ্বীদের কোনোরকম ক্ষতি করবে না বলে জানালেন সাবেক ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড তোস্তাও।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 8 Oct 2017, 12:42 PM
Updated : 10 Oct 2017, 06:05 PM

বাংলাদেশ সময় বুধবার সকাল সাড়ে পাঁচটায় সাও পাওলোয় চিলির মুখোমুখি হবে বাছাইপর্ব পেরিয়ে সবার আগে বিশ্বকাপের টিকেট নিশ্চিত করা ব্রাজিল। একই সময়ে বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়ার শঙ্কায় থাকা আর্জেন্টিনা তাদের মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ খেলবে একুয়েডরের মাঠে।

চিলি জিততে না পারলে আর্জেন্টিনা নিজেদের ম্যাচে জিতলে শীর্ষ চারে থেকে সরাসরি বিশ্বকাপ খেলার টিকেট পাবে।

ফুটবল বিশ্বে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনাকে একে অপরের চিরশত্রু বলেই সবাই জানে। তবে এক্ষেত্রে প্রতিবেশীদের ক্ষতি করার উদ্দেশ্য নিয়ে চিলির বিপক্ষে ব্রাজিল মাঠে নামবে না বলে জানালেন তোস্তাও। বরং টানা দুই ম্যাচ ড্র করা নেইমার, আলভেসরা জিততে মরিয়া থাকবে বলেই মনে করেন ১৯৭০ সালে ব্রাজিলের হয়ে বিশ্বকাপ জেতা এই খেলোয়াড়।

“ব্রাজিলে যেসব স্পোর্টস প্রোগ্রাম আছে সেগুলোতে এটা নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। তারা প্রশ্ন করে- আমরা (চিলির বিপক্ষে) ব্রাজিলকে সমর্থন করবো নাকি অবশ্যই চাইব আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়ে যাক।”

“আর্জেন্টিনার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতাটা খুবই বড় বিষয় এবং প্রত্যেকেই এটা জানে। কিন্তু আমি নিশ্চিতভাবে বলতে পারি যে, চিলিকে সাহায্য করার বা অন্য কিছুর চিন্তা করছে না ব্রাজিল।”

“ব্রাজিল ব্রাজিলের জন্যই খেলবে। তারা নিজেদের জন্য জিততে চায়। কিন্তু আমার মনে হয়, খেলোয়াড়দের যাচাই করার জন্য তিতে একটি বা দুটি পরিবর্তন আনতে পারেন।”

অবশ্য বিশ্বকাপ ভাগ্য নিজেদের হাতেই আছে আর্জেন্টিনার। শেষ রাউন্ডে তাদের উপরে থাকা দুই দল পেরু ও কলম্বিয়া বুধবার একই সময়ে মুখোমুখি হবে। এই ম্যাচ ড্র হলে আর্জেন্টিনা একুয়েডরকে হারাতে পারলে সরাসরিই পাবে রাশিয়ার টিকেট।

আর আর্জেন্টিনার জয়ে পেরু ও কলম্বিয়ার মধ্যে যারা হারবে তারা চলে যাবে আর্জেন্টিনার নিচে। ফলে অন্য সব ম্যাচে যে ফলই হোক না কেন আর্জেন্টিনা জিততে পারলে অন্তত পঞ্চম স্থানে থেকে পাবে প্লে-অফ খেলার সুযোগ।

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাইপর্বের শীর্ষস্থানধারী ব্রাজিলের পয়েন্ট ৩৮। দ্বিতীয় স্থানে থাকা উরুগুয়ের পয়েন্ট ২৮। ২৬ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে চিলি। কলম্বিয়ার পয়েন্টও ২৬, তাদের গোল পার্থক্যও সমান, তবে কম গোল করায় পিছিয়ে কলম্বিয়া।

পঞ্চম স্থানে থাকা পেরুর পয়েন্ট ২৫। আর্জেন্টিনার পয়েন্টও তাই; দুই দলের গোল ব্যবধানও সমান। তবে কম গোল করায় পিছিয়ে আছে হোর্হে সাম্পাওলির দল।

রাশিয়া যাওয়ার সম্ভাবনা আছে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে থাকা প্যারাগুয়েরও।

এই অঞ্চল থেকে সেরা চার দল সরাসরি খেলবে আগামী বছরের বিশ্বকাপে। পঞ্চম দলটির সুযোগ পেতে হলে প্লে-অফ খেলে জিততে হবে ওশিয়ানিয়া অঞ্চলের চ্যাম্পিয়ন নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে।

একই সময়ে হবে বাকি দুটি ম্যাচও। নিজেদের মাঠে উরুগুয়ে খেলবে বলিভিয়ার বিপক্ষে। আর প্যারাগুয়ের মাঠে খেলবে ভেনেজুয়েলা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক