সবাইকে ছাড়িয়ে সেরেনা

টেনিসের উন্মু্ক্ত যুগে নারী ও পুরুষ মিলিয়ে গ্র্যান্ড স্ল্যামে সর্বোচ্চ ম্যাচ জেতার রেকর্ড গড়ে ইউএস ওপেনের কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠেছেন সেরেনা উইলিয়ামস।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Sept 2016, 08:28 AM
Updated : 6 Sept 2016, 08:28 AM

শেষ ষোলোতে কাজাখস্তানের ইয়ারোস্লাভা শভেদোভাকে হারিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের এই তারকা।

নিউ ইয়র্কে গত সোমবার র‌্যাঙ্কিংয়ের ৫৩তম স্থানে থাকা শভেদোভাকে ৬-২, ৬-৩ গেমে হারাতে মাত্র ৬৮ মিনিট সময় নেন ৩৪ বছর বয়সী সেরেনা।

তৃতীয় রাউন্ডের জয়ে সুইস তারকা ফেদেরারের সর্বোচ্চ ৩০৭টি ম্যাচ জেতার রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলেছিলেন মেয়েদের টেনিসে বিশ্বের এক নম্বর খেলোয়াড় সেরেনা। আর শেষ ষোলোতে ৩০৮তম জয় তুলে নিয়ে রেকর্ডটি একার করে নেন ক্যারিয়ারে ২২টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপা জয়ী এই তারকা।

ইউএস ওপেনে রেকর্ড সাতটি শিরোপা জয়ের পথে আরও এক ধাপ এগিয়ে যাওয়া সেরেনা রেকর্ডটি একার করে নিতে পেরে দারুণ খুশি।

“এটা বিশাল একটা সংখ্যা। আমি মনে করি, আসলে এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। স্পষ্টতই আমি কখনো ভাবিনি আমি এখনও খেলে যাব। আমি কখন থামবো তাও আমি দেখতে পারছি  না।”

উইলিয়ামস পরিবারের বড় মেয়ে ৩৬ বছর বয়সী ভেনাস অবশ্য শেষ ষোলোর বাধা পেরোতে পারেননি। চেক প্রজাতন্ত্রের কারোলিনা প্লিসকোভার কাছে ৪-৬, ৬-৪, ৭-৬ গেমে হেরে গেছেন দুই বারের এই ইউএস ওপেন চ্যাম্পিয়ন।

মেয়েদের এককের শেষ ষোলো থেকে ছিটকে পড়েন আরেক তারকা আগ্নিয়েস্কা রাদভান্সকা। পোল্যান্ডের এই খেলোয়াড় ৬-৪, ৬-৪ গেমে হারেন ক্রোয়েশিয়ার তরুণী আনা কোনইয়ুহর কাছে।

২০১৩ সালে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও ইউএস ওপেনের জুনিয়র শিরোপা জেতা ১৮ বছর বয়সী কোনইয়ুহ ইউএস ওপেনের শেষ আটে জায়গা করে নেওয়া ক্রোয়েশিয়ার প্রথম নারী।

সোমবার শেষ ষোলোর আরেক ম্যাচে স্পেনের কার্লা সুয়ারেস নাভাররোকে ৬-২, ৭-৫ গেমে হারিয়ে কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠেন রোমানিয়ার সিমোনা হালেপ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক