নোয়াখালীতে আটকের পর পালালেন ২০ রোহিঙ্গা

ভাসানচর থেকে পালিয়ে আসা ২০ রোহিঙ্গা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় আটকের পর সেখান থেকেও পালিয়ে গেছেন বলে একজন জনপ্রতিনিধি জানিয়েছেন।

নোয়াখালী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 July 2022, 01:19 PM
Updated : 18 July 2022, 03:35 PM

উপজেলার চর এলাহী ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুল হক এই রোহিঙ্গাদের পালাতে সহযোগিতা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

তবে আব্দুল হক অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

তিনি বলেন, রোববার রাত ১২টার দিকে কোম্পানিগঞ্জের কিল্লার বাজার থেকে এই রোহিঙ্গাদের আটকের পর সেলিম মাঝি নামে এক ব্যক্তির ঘরে রাখা হয়। এলাকাবাসী তাদের আটক করেন।

“চৌকিদার ঘরের সামনে চেয়ার বসে পাহারা দিচ্ছিলেন। সেখানে হাজার মানুষের ভিড় ছিল। সোমবার বেলা পৌনে ১২টার দিকে কিছু লোক লুকিয়ে-চুরিয়ে একজন করে সবাইকে ঘর থেকে বের করে নিয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এলে আমরা বিষয়টি আঁচ করতে পারি।”

এই রোহিঙ্গাদের মধ্যে পাঁচজন পুরুষ, ছয়জন নারী ও নয়জন শিশু রয়েছে।

পুলিশের ভূমিকা নিয়েও এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

তবে কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মো. সাদেকুর রহমান যুক্তি দিয়েছেন, “ঘটনাস্থল থানা থেকে অনেক দূরে। পুলিশ যাওয়ার আগেই আটক রোহিঙ্গারা পালিয়ে যান।”

আবার তাদের ধরার চেষ্টা চলছে বলে তিনি জানান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক