উত্তরের পথে ধীরগতি

ঈদযাত্রার পথে দুই জায়গায় মালবাহী গাড়ির দুর্ঘটনার জেরে টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু হয়ে উত্তরের মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

টাঙ্গাইল প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 July 2022, 05:07 AM
Updated : 7 July 2022, 05:11 AM

টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মীর মনির হোসেন বলেন, বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত মানুষ স্বস্তি নিয়েই এ মহাসড়ক দিয়ে বাড়ি ফিরতে পেরেছে। কিন্তু রাতভর বৃষ্টি আর বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্বপাড়ে দুটি সড়ক দুর্ঘটনার কারণে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে গাড়ি চলছে ধীর গতিতে।

এর মধ্যে এলেঙ্গা থেকে সেতুতে যাওয়ার পথে ৩ নম্বর ব্রিজের কাছে দুই ট্রাকের সংঘর্ষ হয়। আর কালিহাতির গোহালিয়া বাড়ি এলাকায় একটি ট্রাক ও কভার্ড ভ্যানের সংঘর্ষ হয়।

দুই দুর্ঘটনায় কেউ হতাহত না হলেও সেগুলো সরিয়ে নিতে সময় লেগে যায়। ফলে টাঙ্গাইলের রাবনা বাইপাস থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব পাড় পর্যন্ত অন্তত ১৮ কিলোমিটার রাস্তায় যানজট সৃষ্টি হয় বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা মনির হোসেন।

তিনি বলেন, “যানবাহন চলাচলে ধীরগতি থাকলেও জেলা পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশের চেষ্টায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে আমরা দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি।”

বাংলাদেশে কোরবানির ঈদ হবে রোববার। তার আগে বৃহস্পতিবারই শেষ কর্মদিবস। ফলে অফিস ছুটির পর বিকাল থেকে ঢাকা থেকে বিভিন্ন জেলার যাত্রীদের মূল চাপ শুরু হবে।

ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন গন্তব্যে যেতে টাঙ্গাইল হয়ে বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে যমুনা নদী পার হতে হয় সব যানবাহনকে। আবার এই পথেই উত্তরবঙ্গ থেকে ট্রাকে করে কোরবানির পশু আসে রাজধানীতে। কোনো কোনো গাড়ি দুর্ঘটনায় পড়লেই জটিলতা তৈরি হয়। 

টাঙ্গাইলের সড়কে সকাল থেকেই যানবাহনের সংখ্যা কয়েক গুণ বেড়ে গেছে জানিয়ে পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার বলেন, “বিকাল থেকে ঈদে ঘরমুখো যাত্রীর ভিড় আরও বাড়বে, সড়কে যানবাহনের সংখ্যাও বাড়বে। যাত্রীদের দুর্ভোগ যাতে না হয়, সেজন্য প্রয়োজনীয় সব কিছু করতে আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক