স্কুলে পাঠদান: আশুলিয়ার সেই কলেজের অধ্যক্ষকে শোকজ

শিক্ষক উৎপল কুমার সরকার হত্যায় আলোচনায় থাকা আশুলিয়ার হাজী ইউনুছ আলী কলেজে ‘অনুমতি ছাড়া’ নিম্ন মাধ্যমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে পাঠদান করার কারণ জানতে চেয়েছে শিক্ষা বোর্ড।

সাভার প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 July 2022, 04:48 PM
Updated : 6 July 2022, 04:48 PM

বুধবার ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক আবু তালেব মো. মোয়াজ্জেম হোসেন এই তথ্য দেন।

মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, গত ৩০ জুন হাজী ইউনুছ আলী কলেজের অধ্যক্ষ সাইফুল হাসান বরাবর কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

সাইফুল হাসান বলেন, “আমি ঈদের ছুটিতে গ্রামের বাড়ি এসেছি। ঢাকা শিক্ষা বোর্ড থেকে আমাকে কারণ দর্শানোর একটি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। কলেজের এক শিক্ষক আমাকে বিষয়টি জানিয়েছেন।

“নোটিশে অনুমোদন ছাড়া স্কুল শাখা কীভাবে চালাচ্ছি সেটা জানতে চেয়েছে। সাত কর্মদিবেসর মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে বলেছে। এর আগে ঢাকা শিক্ষাবোর্ড থেকে একটা তদন্ত টিম এসেছিল। তারাই প্রতিবেদন দিয়েছিলেন এই বিষয়ে।”

শিক্ষক উৎপল হত্যার ঘটনা অন্য খাতে প্রবাহিত করতে এ ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে সাইফুল হাসানের অভিযোগ।

তিনি বলেন, “উৎপল স্যারকে হত্যার বিচার অন্যদিকে প্রবাহিত করার জন্য একটা বড় চক্রান্ত শুরু হয়েছে। সব স্কুল এভাবেই চলে। আমরা এতদিন ধরে শিক্ষা কার্যক্রম চালাচ্ছি, উপবৃত্তি পাচ্ছি। তাহলে এতদিন তো শিক্ষা বোর্ড আমাদের বলে নাই যে আপনারা বন্ধ করেন?”

গত ২৫ জুন দুপুরে হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক উৎপল কুমার সরকারকে স্কুল মাঠে ক্রিকেট খেলার ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে আহত করা হয়। দুদিন পর মারা যান উৎপল।

এ হত্যার ঘটনায় বুধবার আশরাফুল ইসলাম জিতুকে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার নগরহাওলা গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

এ ঘটনায় নিহতের ভাই অসীম কুমার সরকার আশুলিয়া থানায় মামলা করেছেন।

জিতু ওই স্কুলের দশম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র। মামলার এজাহারে তার বয়স ১৬ বছর লেখা হলেও র‌্যাব বলছে, জিতুর জুনিয়র দাখিল পরীক্ষার সার্টিফিকেটে জন্ম তারিখ ২০০৩ সালের ১৭ জানুয়ারি। সেই হিসাবে তার বয়স ১৯ বছর।

জিতু উৎপলকে হত্যার মামলায় আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

জিতুর আগে কুষ্টিয়ার কুমারখালী থেকে তার বাবা উজ্জ্বল হোসেনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। উজ্জ্বল হোসেন ও জিতু দুজনকেই পাঁচ দিন করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক উৎপল কলেজটির শৃঙ্খলা কমিটির সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পাশ করে আশুলিয়ার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিতে যোগ দিয়েছিলেন।

৩৭ বছর বয়সী এই শিক্ষক ঢাকার মিরপুরে পরিবার নিয়ে থাকতেন। সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া থানার এঙ্গেলদানি গ্রামের মৃত অজিত সরকারের ছেলে তিনি।

আরও পড়ুন:

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক