কুষ্টিয়ায় আওয়ামী লীগ নেত্রীর ছেলে ‘অস্ত্র-মাদকসহ’ গ্রেপ্তার

কুষ্টিয়ায় এক আওয়ামী লীগ নেত্রীর ছেলে ও দুই সহযোগীকে ‘অস্ত্র’ ও ‘মাদক’সহ গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

কুষ্টিয়া প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 July 2022, 05:03 PM
Updated : 5 July 2022, 05:03 PM

মঙ্গলবার দুপুরে র‌্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মোহাম্মদ ইলিয়াস খান এক প্রেস ব্রিফিংয়ে একথা জানান।

গ্রেপ্তাররা হলেন কুষ্টিয়া শহর মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাহানা সুলতানা বনির ছেলে জেড এম সম্রাট (৩৩), তার দুই সহযোগী পশ্চিম মজমপুরের গোলাম রসুলের ছেলে দীন ইসলাম রাসেল (৩৩) এবং জুগিয়া গ্রামের আবুল কালামের ছেলে ওসমান হাসান (৩১)।

তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে কুষ্টিয়া মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানান র‌্যাব কর্মকর্তা ইলিয়াস।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে টেন্ডারের জন্য জিম্মি, সন্ত্রাস, অস্ত্রবাজি, তুলে নিয়ে মুক্তিপণ আদায়, টর্চার সেলে নিরীহ লোকজনকে ধরে এনে নির্যাতন করে মোটা অংকের চাঁদা আদায়সহ নানা অপরাধে জড়িত প্রায় অর্ধ ডজন মামলার এজাহারভুক্ত আসামি জেড এম সম্রাটের নেতৃত্বে কতিপয় চিহ্নিত সন্ত্রাসী বাহিনী শহরজুড়ে জনমনে এক ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে।

“এমন একাধিক অভিযোগ ও জিডি সূত্রে র‌্যাবের একটি দল সম্রাটের মজমপুরে অফিস কাম টর্চার সেলে অভিযান চালায়। সেখানে তল্লাশি চালিয়ে ৮ রাউন্ড গুলিসহ একটি ওয়ান শুটার গান, ইয়াবা, ফেনসিডিল, চারটি ওয়াকিটকি ও বেশকিছু দেশি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।”

জিজ্ঞাসাবাদে তাদের সংশ্লিষ্টতা পাওয়ায় অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হয় বলে তিনি জানান।

এদিকে, জেড এম সম্রাটের মা সাহানা সুলতানা বনির অভিযোগ, “আমার ছেলে যুবলীগ নেতা সম্রাটকে কুষ্টিয়ার রাজনৈতিক নেতারা তাদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য ব্যবহার করেন। যখনই এদিক-ওদিক হেরফের হয় তখনই আবার র‌্যাব পুলিশকে দিয়ে গ্রেপ্তার করে অস্ত্র ও মাদক ধরিয়ে দিয়ে মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়া হয়।”

এর আগেও আরও একাধিকবার ওরা র‌্যাবকে দিয়ে তার ছেলেকে ধরিয়ে দিয়েছিলেন বলে এই মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রীর ভাষ্য।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক