টাঙ্গাইলে স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

টাঙ্গাইলে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামীকে যাবজ্জীবন দিয়েছে আদালত।

টাঙ্গাইল প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 July 2022, 01:36 PM
Updated : 5 July 2022, 01:36 PM

টাঙ্গাইলের নারী ও শিশুনির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন মঙ্গলবার দুপুরে আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।

সাজাপ্রাপ্ত মো. সুজন মিয়া (৩৫) টাঙ্গাইল পৌরসভার আদিটাঙ্গাইল এলাকার আব্দুস সালামের ছেলে।

ট্রাইব্যুনালের এপিপি মোহাম্মদ আব্দুল কুদ্দুস মামলার নথির বরাতে জানান, প্রায় ১৪ বছর আগে শিউলী আক্তারের (২৭) সঙ্গে সুজনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর দেড় লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে সুজন বিভিন্ন সময় শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেন শিউলীকে। ২০১৪ সালের ১৭ জুন বেলা ১১টার দিকে তাকে ঘরের দরজা বন্ধ করে যৌতুকের টাকার জন্য মারধর করা হয়। পরে পরিকল্পিতভাবে কেরোসিন ঢেলে শিউলীর গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন সুজন। চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন গিয়ে তাকে উদ্ধার করেন। প্রথমে টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালে, পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। ঘটনার পরের দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিউলী মারা যান।

তার ভাই মো. শিবলু মিয়া বাদী হয়ে ১৮ জুন টাঙ্গাইল থানায় মামলা করেন। তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তদন্ত শেষে পুলিশ আদালতে অভিযোগপত্র দেয় সুজনের বিরুদ্ধে।

এপিপি বলেন, বিচার শেষে আসামিকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালত এই শাস্তি দিল। রায়ের পর আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক