চারটি মাছ বিক্রি ৯৭ হাজার টাকায়

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে পদ্মা নদীতে ধরা পড়া চারটি মাছ ৯৭ হাজার টাকায় বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে দুইটি বাঘাআইড় চল্লিশ কেজি, একটি বোয়াল বারো কেজি ও একটি পাঙ্গাশ উনিশ কেজি।

রাজবাড়ী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 June 2022, 06:10 PM
Updated : 20 June 2022, 06:10 PM

সোমবার সকালে মাছগুলো সাদেক হালদার, সাঈদ হালদার এবং এরশাদ মন্ডল হালদারের জালে আটকা পড়ে।

মাছগুলো ৯৭ হাজার ১৫০ টাকায় বিক্রি করা হয় বলে জানান গোয়ালন্দ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. টিপু সুলতান।

জেলে সাদেক হালদার জানান, সোমবার ভোর রাতের দিকে তিনিসহ কয়েকজন পদ্মা নদীতে মাছ ধরতে যান। দীর্ঘক্ষণ কোনো মাছ না পাওয়ায় তারা হতাশ হয়ে যান এক পর্যায়ে। পরে যখন তারা বাড়ি ফিরে যাওয়ার মনস্থির করেন তখন শেষবারের মতো মনে করে নদীতে জাল ফেলেন।

তিনি জানান, জাল গুটিয়ে নৌকায় তোলার সময় কয়েকবার বড় ঝাঁকি দিলে বুঝতে পারেন বড় কোনো মাছ পড়েছে। জাল টেনে নৌকায় তুলতেই দেখতে পান বড় দুইটি বাঘাআইড় মাছ।

পরে সকাল ৯টার দিকে বিক্রির জন্য মাছ দুটি দৌলতদিয়া মাছ বাজারের আড়তদার আনোয়ার খাঁর ঘরে নিয়ে যান বলে জানান।

“সেখানে প্রকাশ্য নিলামে তোলা হলে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে ফেরি ঘাট এলাকার মৎস্য ব্যবসায়ী মো. শাহজাহান শেখ মাছ দুটি কিনে নেন।”

মৎস্য ব্যবসায়ী মো. শাহজাহান শেখ বলেন, সকাল ৯টার দিকে আনোয়ার খাঁর আড়ত থেকে নিলামে অংশ নিয়ে ১ হাজার ১০০ টাকা কেজি দরে দুটি বাঘাআইড় মাছ মোট ৪৪ হাজার টাকায় কিনে নেন। একটি মাছের ওজন সাড়ে ১৯ কেজি ও আরেকটি সাড়ে ২০ কেজি।

পরে ফোনে যোগাযোগ করে ঢাকার এক ব্যাবসায়ীর কাছে মাছ দুটি ১ হাজার ২০০ টাকা কেজি দরে ৪৮ হাজার টাকায় বিক্রি করেন বলে তিনি জানান।  

এদিকে, ১২ কেজির বোয়াল মাছটি দৌলতদিয়া ব্যাপাড়ী পাড়া এলাকার জেলে সাইদ হালদারের জালে ধরা পড়ে ও ১৯ কেজির পাঙ্গাশ মাছটি দৌলতদিয়া ৭ নম্বর ফেরি ঘাট এলাকার এরশাদ মন্ডল হালদারের জালে মাছটি ধরা পড়েছে। মাছ দুইটি আড়তে বিক্রির উদ্দেশ্যে আনলে মৎস্য ব্যবসায়ী চান্দু মোল্লা কিনে নেন।

চান্দু মোল্লা বলেন, ১২ কেজির বোয়াল মাছটি সকালে দৌলতদিয়া রওশন মোল্লার আড়ত থেকে প্রতি কেজি ১ হাজার ৮শ টাকা দরে মোট ২১ হাজার ৬শ টাকায় ক্রয় করেন এবং ১৯ কেজির পাঙ্গাশ মাছটি দুলাল মন্ডলের আড়ত থেকে ১৩৫০টাকা কেজি দরে মোট ২৫ হাজার ৬৫০ টাকা কিনে নেন। পরে পাঙ্গাশ মাছটি ১৪৫০ টাকা প্রতি কেজি দরে মোট ২৭ হাজার ৫৫০ টাকায় ঢাকার এক ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রি করেন।

গোয়ালন্দ উপজেলার মৎস্য কর্মকর্তা টিপু সুলতান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বর্তমানে পদ্মায় যেসব বড় বড় মাছ ধরা পড়ছে এসব মাছ গভীর জলে বসবাস করে। নদীতে পানি বাড়ার কারণে এসব মাছ খাবারের সন্ধানে উপরে চলে আসছে।  যার ফলে মাঝে মধ্যেই জেলের জালে পাঙাশ, রুই, কাতলা, বোয়াল, বাঘাআইড়সহ  বিভিন্ন প্রজাতির মাছ জেলের জালে ধরা পড়ছে। এছাড়াও বছরে নির্দিষ্ট সময়ে ইলিশ মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার কারণে এসব মাছগুলো বড় হওয়ার সুযোগ পায়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক